গলাচিপায় প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, বৃদ্ধ গ্রেফতার

প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০২১

সজ্ঞিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: পটুয়াখালীতে খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে বাক প্রতিবন্ধি শিশুকে ধর্ষণ অভিযোগে জালাল গাজী নামের এক চায়ের দোকানিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) বিকেলে গলাচিপা উপজেলার কল্যান কলস এলাকা থেকে জালালকে গ্রেফতার করেছে পটুয়াখালী র‌্যাব-৮। গ্রেফতারকৃত মোঃ জালাল গাজী(৬৫) দক্ষিণ চরচন্দ্রাইল এলাকার মৃত মোন্তাজ গাজীর সন্তান ।

র‌্যাব জানায়, ধর্ষক পটুয়াখালীর গলাচিপার গজালিয়া ইউনিয়নের ব্রীজ বাজারের চায়ের দোকানদার। শিশুটির বয়স ১২ বছর এবং সে একজন বাক প্রতিবন্ধী। ওই শিশু গত ১২ এপ্রিল দুপুরে মোঃ জালাল গাজীর দোকানে যায়। এ সময় খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে জালাল দোকানের পিছনে নিয়ে যায় এবং ধর্ষণ করে। এ সময় শিশুটির কান্নাকাটির শব্দ পেয়ে পার্শ্ববর্তী মোঃ রেজাউল গাজী নামে এক ব্যক্তি ঘটনাস্থলে ছুটে গেলে জালাল গাজী দৌড়ে পালিয়ে যায়। ধর্ষক প্রভাবশালী হওয়ায় ভুক্তভোগী পরিবারকে মামলা না করার জন্য হুমকি দেয়। এ বিষয়ে ১৯ এপ্রিল ভুক্তভোগী পরিবার গলাচিপা থানায় মামলা দায়ের করে।

পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা থানার কল্যান কলস এলাকায় প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণকারী অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী অধিনায়ক সহকারী পরিচালক মোঃ রবিউল ইসলাম এর নেতৃত্বে ধর্ষণকারীকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-০৮।
পটুয়াখালী র‌্যাব-৮ ক্যাম্পের সহকারী পরিচালক ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী অধিনায়ক মোঃ রবিউল ইসলাম জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ জালাল গাজী(৬৫) ঘটনার সাথে নিজের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি র‌্যাবের কাছে স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীকে পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা থানায় হস্থান্তর করা হয়েছে।

 

আপনার মতামত লিখুন :