বালুর জাহাজের এংকর এখন কলাপাড়ার বিনোদন স্পট হেলি পোর্টএর বেঞ্চ


প্রকাশিত : ২১ জুন ২০২০

নয়নাভিরাম গাইন( নয়ন), কলাপাড়া : পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় আন্ধার মানিক নদীর তীরে অবস্থিত কলাপাড়ার একমাত্র বিনোদন স্পট। খেপুপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিপরীতে হ্যালিপোর্ট মাঠের বিনোদন প্রেমিদের বসার বেঞ্চ এখন বালুর জাহাজ বেধে রাখার খুঁটি হিসাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। পৌর শহরের মানুষগুলোর একটু স্বস্তি ও নদীর পারে বসে নির্মল বাতাস উপভোগের জন্য বেঞ্চগুলো বানানো হয়। অথচ সেই বেঞ্চের সাথে বেধে রাখা হচ্ছে বালুর জাহাজ। এতে যে কোন সময় বেঞ্চগুলো ভেঙ্গে যেতে পারে বলে আশংকা করছে পৌরবাসী সহ বিনোদন প্রেমিরা।

রবিবার শেষ বিকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বড় বড় দুটো বালুর জাহাজ বেঞ্চের সাথে বাধা রয়েছে। সাধারনের বসার বেঞ্চের সাথে জাহাজ বেধে থাকতে দেখে স্থানীয়দের মাঝে তীব্র ক্ষোভ লক্ষ্য করা গেছে। জানা যায়, পৌর শহরের সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য হ্যালিপোর্ট’র চারিপাশে পাকা রাস্তা ও নদীর পারে বসার বেঞ্চ করা হয়েছে। অথচ সেই বেঞ্চের সাথে জাহাজ বেধে সৌন্দর্য নষ্ট করা হচ্ছে। শরীর চর্চা করতে আসা বশির হাওলাদার বলেন, সকালে ও বিকালে শরীর চর্চা করার জন্য প্রতিদিন এখানে আসি। একটু ক্লান্তিবোধ করলে বেঞ্চে বসে বিশ্রাম নেই। অথচ সেই বেঞ্চের সাথে বালুর জাহাজ বেধে রেখেছে।

এতে যে কোন সময় বেঞ্চগুলো ভেঙ্গে যেতে পারে। মহামারি করোনার কারনে লোকসমাগম কম হওয়ায় জাহাজ মালিকরা এধরনের হীন কাজ করছে বলেও অনেকে ধারনা করছেন। এবিষয়ে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মাদ শহিদুল হক বলেন, বিষয়টি অত্যান্ত দুঃখজনক। আমি যথাযথ ব্যাবস্থা নিচ্ছি।

 

আপনার মতামত লিখুন :

এই বিভাগের সর্বশেষ