অনলাইন সন্ত্রাসবাদ নির্মূলের ডাক নিউ জিল্যান্ড ও ফ্রান্সের

Spread the love

অনলাইন থেকে সহিংস চরমপন্থা ও সন্ত্রাসবাদমূলক আচরণ প্রদর্শন নির্মূল করতে চায় নিউ জিল্যান্ড ও ফ্রান্স। খবর ইউএনবি’র। বুধবার গণমাধ্যমকে নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন বলেন, আগামী মাসে প্যারিসে তিনি এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ এ সংক্রান্ত একটি বৈঠকের আয়োজন করবেন। আরডার্ন বলেন, তিনি এবং ম্যাখোঁ বিশ্ব নেতা এবং প্রযুক্তি কোম্পানিসমূহের প্রধান নির্বাহীদের ‘ক্রাইস্টচার্চ কল’ নামে একটি অঙ্গীকারের বিষয়ে একমত হওয়ার আহ্বান জানাবেন। অঙ্গীকারের বিষয়ে কোনো বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করেননি কিউই প্রধানমন্ত্রী। তবে তিনি বলেন, তারা এখনও এটিকে উন্নত করছেন।

 

আরডার্ন বলেন, তিনি ফেসবুক, টুইটার, মাইক্রোসফট এবং গুগলসহ প্রযুক্তি কোম্পানিসমূহের প্রতিনিধি এবং বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে কথা বলছেন। অঙ্গীকারটির বিষয়গুলো নিয়ে ঐক্যমতে পৌঁছানোর আশা করছেন নিউ জিল্যান্ড ও ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী। এতে বিশেষ করে অনলাইনে সন্ত্রাসবাদের চরমপন্থী কাজ নির্মূল করার ওপর আলোকপাত করা হবে,’ যোগ করেন আরডার্ন।গত ১৫ মার্চ নিউ জিল্যান্ডে ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে ৫০ জনকে হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যক্তি তার হেলমেটে ক্যামেরা বসিয়ে ফেসবুকে সেটি সরাসরি সম্প্রচার করে। ১৭ মিনিটের ওই ভিডিওটি দ্রুত ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। পরবর্তীতে এটি সব জায়গা থেকে মুছে ফেলতে প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোকে অনেক বেগ পেতে হয়।

 

আরডার্ন বলেন, হামলাকারী সন্ত্রাসবাদ ও ঘৃণ্য একটি কাজ প্রচারের জন্য অভূতপূর্ব উপায়ে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেছিল। এ বিষয়ে কেউ দ্বিমত করবে না যে, একজন সন্ত্রাসীর ৫০ জনকে হত্যা করার সরাসরি ভিডিও সম্প্রচার করার অধিকার আছে।তিনি আরও বলেন, ‘কোনো প্রযুক্তি কোম্পানি এবং সরকারই অনলাইনে সহিংস চরমপন্থা ও সন্ত্রাসবাদ দেখতে চায় না। এ ব্যাপারে সকলেই একমত। গত মাসে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জুকারবার্গ সরকার ও নিয়ন্ত্রকদের ইন্টারনেটের নীতির ক্ষেত্রে আরও সক্রিয় ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানান।

 

ওয়াশিংটনের পোস্টে মতামত প্রকাশ করে জুকারবার্গ বলেন, ‘মানুষকে সুরক্ষিত রাখতে আমাদের কোম্পানির দায়িত্ব রয়েছে। আমরা সবসময় বিশেষজ্ঞদের সাথে আমাদের নীতিসমূহ পর্যালোচনা করি। তবে ফেসবুকের সিইও সরাসরি সম্প্রচারের সমস্যাগুলোর সমাধান করেননি। তিনি বলেন, ইন্টারনেট থেকে সমস্ত ক্ষতিকারক কনটেন্ট সরিয়ে ফেলা অসম্ভব। আরডার্ন বলেন, অনলাইন সন্ত্রাসবাদ নির্মূলের চেষ্টা করার জন্য ম্যাখোঁ সাতটি প্রধান অর্থনীতির গ্রুপের মধ্যে নেতৃত্বের ভূমিকা পালন করেছেন। অনলাইন সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে আগামী ১৫ মে বৈঠক করবেন তারা।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» ধানের দাম কম তাই জমেনি ঈদের বাজার!

» বাগেরহাটে ঘূর্ণিঝড়ের তান্ডবে অর্ধশতাধিক বাড়ী-ঘর বিধ্বস্ত

» মোরেলগঞ্জে উন্মুক্ত বাজেট প্রনয়ন সভা অনুষ্ঠিত

» ঈদ উপলক্ষে আমতলী ঢাকা রুটে যাত্রীদের জন্য অতিরিক্ত লঞ্চ দেয়ার ঘোষণা

» নবীগঞ্জের বিভিন্ন বাজারে ঈদের হাটে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজী

» রাজাপুরে নারী মাদক ব্যবসায়ীসহ গ্রেফতার -৩

» সাজাপ্রাপ্ত আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে বেনাপোল পোর্ট থানার পুলিশ

» নিরাপদ সড়ক বা যাত্রী কল্যাণের নামে প্রতারণা প্রতিরোধ করুন : সেভ দ্য রোড

» কলাপাড়ায় পৃথক ঘটনায় স্কুল ছাত্রী ও ইউপি সদস্যসহ আহত ১০

» ঝিনাইদহ সাগান্নার উত্তর নারায়নপুর গ্রামে গভীর রাতে গোয়াল ঘর থেকে ৫টি গরু চুরি

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন





ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com



আজ রবিবার, ২৬ মে ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

অনলাইন সন্ত্রাসবাদ নির্মূলের ডাক নিউ জিল্যান্ড ও ফ্রান্সের

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

অনলাইন থেকে সহিংস চরমপন্থা ও সন্ত্রাসবাদমূলক আচরণ প্রদর্শন নির্মূল করতে চায় নিউ জিল্যান্ড ও ফ্রান্স। খবর ইউএনবি’র। বুধবার গণমাধ্যমকে নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন বলেন, আগামী মাসে প্যারিসে তিনি এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ এ সংক্রান্ত একটি বৈঠকের আয়োজন করবেন। আরডার্ন বলেন, তিনি এবং ম্যাখোঁ বিশ্ব নেতা এবং প্রযুক্তি কোম্পানিসমূহের প্রধান নির্বাহীদের ‘ক্রাইস্টচার্চ কল’ নামে একটি অঙ্গীকারের বিষয়ে একমত হওয়ার আহ্বান জানাবেন। অঙ্গীকারের বিষয়ে কোনো বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করেননি কিউই প্রধানমন্ত্রী। তবে তিনি বলেন, তারা এখনও এটিকে উন্নত করছেন।

 

আরডার্ন বলেন, তিনি ফেসবুক, টুইটার, মাইক্রোসফট এবং গুগলসহ প্রযুক্তি কোম্পানিসমূহের প্রতিনিধি এবং বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে কথা বলছেন। অঙ্গীকারটির বিষয়গুলো নিয়ে ঐক্যমতে পৌঁছানোর আশা করছেন নিউ জিল্যান্ড ও ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী। এতে বিশেষ করে অনলাইনে সন্ত্রাসবাদের চরমপন্থী কাজ নির্মূল করার ওপর আলোকপাত করা হবে,’ যোগ করেন আরডার্ন।গত ১৫ মার্চ নিউ জিল্যান্ডে ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে ৫০ জনকে হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যক্তি তার হেলমেটে ক্যামেরা বসিয়ে ফেসবুকে সেটি সরাসরি সম্প্রচার করে। ১৭ মিনিটের ওই ভিডিওটি দ্রুত ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। পরবর্তীতে এটি সব জায়গা থেকে মুছে ফেলতে প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোকে অনেক বেগ পেতে হয়।

 

আরডার্ন বলেন, হামলাকারী সন্ত্রাসবাদ ও ঘৃণ্য একটি কাজ প্রচারের জন্য অভূতপূর্ব উপায়ে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেছিল। এ বিষয়ে কেউ দ্বিমত করবে না যে, একজন সন্ত্রাসীর ৫০ জনকে হত্যা করার সরাসরি ভিডিও সম্প্রচার করার অধিকার আছে।তিনি আরও বলেন, ‘কোনো প্রযুক্তি কোম্পানি এবং সরকারই অনলাইনে সহিংস চরমপন্থা ও সন্ত্রাসবাদ দেখতে চায় না। এ ব্যাপারে সকলেই একমত। গত মাসে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জুকারবার্গ সরকার ও নিয়ন্ত্রকদের ইন্টারনেটের নীতির ক্ষেত্রে আরও সক্রিয় ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানান।

 

ওয়াশিংটনের পোস্টে মতামত প্রকাশ করে জুকারবার্গ বলেন, ‘মানুষকে সুরক্ষিত রাখতে আমাদের কোম্পানির দায়িত্ব রয়েছে। আমরা সবসময় বিশেষজ্ঞদের সাথে আমাদের নীতিসমূহ পর্যালোচনা করি। তবে ফেসবুকের সিইও সরাসরি সম্প্রচারের সমস্যাগুলোর সমাধান করেননি। তিনি বলেন, ইন্টারনেট থেকে সমস্ত ক্ষতিকারক কনটেন্ট সরিয়ে ফেলা অসম্ভব। আরডার্ন বলেন, অনলাইন সন্ত্রাসবাদ নির্মূলের চেষ্টা করার জন্য ম্যাখোঁ সাতটি প্রধান অর্থনীতির গ্রুপের মধ্যে নেতৃত্বের ভূমিকা পালন করেছেন। অনলাইন সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে আগামী ১৫ মে বৈঠক করবেন তারা।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ





সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited