নির্যাতিতার নয়, ধর্ষকের নাম-পরিচয় প্রচার করুন: প্রধানমন্ত্রী

Spread the love

ধর্ষণ একটি অত্যন্ত গর্হিত কাজ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আজকাল প্রায় শিশু ধর্ষণ, নারী ধর্ষণের কথা শোনা যাচ্ছে। যারা এ কাজ করে তারা সমাজের শত্রু। এসময় ধর্ষক ও নারী নির্যাতনকারীদের ছবি এবং নাম-পরিচয় ভালোভাবে প্রচারের আহ্বান জানান তিনি । আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে শনিবার (৯ মার্চ) সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

 

শেখ হাসিনা বলেন, আমি বলব, যারা এসব কাজ করছে, তাদের নামধাম পরিচয় ভালোভাবে প্রচার করা দরকার। নির্যাতিতা নারী নয়, যে ধর্ষক বা নির্যাতনকারী, তার চেহারা এমনভাবে প্রচার করতে হবে যেন সমাজের প্রত্যেকটা মানুষ তাকে ঘৃণার চোখে দেখে। তাকে একেবারে সমাজের বাইরে বের করে দেয়া প্রয়োজন। এসব অপরাধীদের বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে আশ্বাস দেন তিনি। শেখ হাসিনা বলেন, ইতোমধ্যে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে এদের শাস্তির ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। তিনি বলেন, এটা শুধু বাংলাদেশের সমস্যা নয়, সমস্যাটি বিশ্বব্যাপী। উন্নত, সভ্য দেশেও এই সমস্যাটা রয়েছে। এর বিরুদ্ধে আরও জনমত সৃষ্টি করতে হবে।

 

ধর্মের নামে নারীদের ঘরে আটকে রাখা যাবে না বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদাহরণ হিসেবে তিনি বলেন, প্রথম ইসলাম গ্রহণকারী নারী বিবি খাদিজা একজন ব্যবসায়ী ছিলেন। সরকারপ্রধান বলেন, সমাজে নারী-পুরুষে বৈষম্য কমে এলেও এখনো রয়েছে। শুধু আইন করলেই বৈষম্য দূর হবে না। সমাজে এ ব্যাপারে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। যে সমাজের অর্ধেকই নারী, সেই নারীকে বাদ রেখে কোনো সমাজ গড়ে উঠতে পারে না। সমাজ গড়তে নারী-পুরুষ উভয়কে এগিয়ে আসতে হবে।কন্যাশিশু যেন বৈষম্যের শিকার না হয় এ ব্যাপারে সচেতন হতে বলেছেন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, সমাজকে গড়ে তুলতে হলে সবাইকে একসাথে কাজ করা দরকার। সমাজ ও দেশকে কল্যাণময় করতে নারী-পুরুষের একসঙ্গে কাজ করা একান্ত প্রয়োজন।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিক্ষাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারী সফলতার স্বাক্ষর রাখছে। লেখাপড়ায় বাংলাদেশে আজ ছেলেদের চেয়ে মেয়েরা এগিয়ে। মেয়েরাই সব পেশায় বেশি মনোযোগী। তবে তাই বলে ছেলেদের পিছিয়ে থাকলে চলবে না। আমরা চাই ছেলেরাও এগিয়ে আসুক। নারীর ক্ষমতায়নে অসামান্য অবদান এবং দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলে দক্ষ নেতৃত্বের জন্য আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে লাইফটাইম কন্ট্রিবিউশন ফর উইমেন এম্পাওয়ারমেন্ট অ্যাওয়ার্ড পাওয়ার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যে সম্মাননাই আমি পাই না কেন, সবই আমার দেশের।

 

আমার সম্মাননা আমি আমার দেশের মা-বোনদের এবং পুরো বিশ্বের সব নির্যাতিতা নারীর নামে উৎসর্গ করছি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেহের আফরোজ চুমকি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» প্রশ্নপত্রে পর্নো তারকার নাম বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে: শিক্ষামন্ত্রী

» হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) দুনিয়ার সর্বকালের সেরা মানব : রানী মুখার্জি

» ছাত্রীদেড় প্রস্তাব দেন বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের, ফোনালাপ ফাঁস! (অডিও)

» আমরা বিপদে, বাঁচান! এবার আশ্রয় চেয়ে আর্তি দুই তরুণীর

» আযানের সাথে সাথে শুরু হতো ওসি মোয়াজ্জেমের জন্য চাঁদা আদায়

» নুসরাত হত্যাকাণ্ড: ‘অনেক তথ্য’ দিয়েছেন আসামি কাদের

» তোরা যদি সাফাকে গালি দিস তবে আবার আমি একই কাজ করবো: সেফাতউল্লাহ

» সেফুদাকে ধরিয়ে দিলেই ২ লাখ পুরস্কার!

» নুসরাতকে নিয়ে ছোট ভাই রায়হানের আবেগঘন স্ট্যাটাস!

» নবম শ্রেণির বাংলা প্রশ্নে দুই পর্নো তারকার নাম!

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

x

আজ শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৬ই বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নির্যাতিতার নয়, ধর্ষকের নাম-পরিচয় প্রচার করুন: প্রধানমন্ত্রী

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

ধর্ষণ একটি অত্যন্ত গর্হিত কাজ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আজকাল প্রায় শিশু ধর্ষণ, নারী ধর্ষণের কথা শোনা যাচ্ছে। যারা এ কাজ করে তারা সমাজের শত্রু। এসময় ধর্ষক ও নারী নির্যাতনকারীদের ছবি এবং নাম-পরিচয় ভালোভাবে প্রচারের আহ্বান জানান তিনি । আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে শনিবার (৯ মার্চ) সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

 

শেখ হাসিনা বলেন, আমি বলব, যারা এসব কাজ করছে, তাদের নামধাম পরিচয় ভালোভাবে প্রচার করা দরকার। নির্যাতিতা নারী নয়, যে ধর্ষক বা নির্যাতনকারী, তার চেহারা এমনভাবে প্রচার করতে হবে যেন সমাজের প্রত্যেকটা মানুষ তাকে ঘৃণার চোখে দেখে। তাকে একেবারে সমাজের বাইরে বের করে দেয়া প্রয়োজন। এসব অপরাধীদের বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে আশ্বাস দেন তিনি। শেখ হাসিনা বলেন, ইতোমধ্যে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে এদের শাস্তির ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। তিনি বলেন, এটা শুধু বাংলাদেশের সমস্যা নয়, সমস্যাটি বিশ্বব্যাপী। উন্নত, সভ্য দেশেও এই সমস্যাটা রয়েছে। এর বিরুদ্ধে আরও জনমত সৃষ্টি করতে হবে।

 

ধর্মের নামে নারীদের ঘরে আটকে রাখা যাবে না বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদাহরণ হিসেবে তিনি বলেন, প্রথম ইসলাম গ্রহণকারী নারী বিবি খাদিজা একজন ব্যবসায়ী ছিলেন। সরকারপ্রধান বলেন, সমাজে নারী-পুরুষে বৈষম্য কমে এলেও এখনো রয়েছে। শুধু আইন করলেই বৈষম্য দূর হবে না। সমাজে এ ব্যাপারে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। যে সমাজের অর্ধেকই নারী, সেই নারীকে বাদ রেখে কোনো সমাজ গড়ে উঠতে পারে না। সমাজ গড়তে নারী-পুরুষ উভয়কে এগিয়ে আসতে হবে।কন্যাশিশু যেন বৈষম্যের শিকার না হয় এ ব্যাপারে সচেতন হতে বলেছেন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, সমাজকে গড়ে তুলতে হলে সবাইকে একসাথে কাজ করা দরকার। সমাজ ও দেশকে কল্যাণময় করতে নারী-পুরুষের একসঙ্গে কাজ করা একান্ত প্রয়োজন।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিক্ষাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারী সফলতার স্বাক্ষর রাখছে। লেখাপড়ায় বাংলাদেশে আজ ছেলেদের চেয়ে মেয়েরা এগিয়ে। মেয়েরাই সব পেশায় বেশি মনোযোগী। তবে তাই বলে ছেলেদের পিছিয়ে থাকলে চলবে না। আমরা চাই ছেলেরাও এগিয়ে আসুক। নারীর ক্ষমতায়নে অসামান্য অবদান এবং দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলে দক্ষ নেতৃত্বের জন্য আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে লাইফটাইম কন্ট্রিবিউশন ফর উইমেন এম্পাওয়ারমেন্ট অ্যাওয়ার্ড পাওয়ার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যে সম্মাননাই আমি পাই না কেন, সবই আমার দেশের।

 

আমার সম্মাননা আমি আমার দেশের মা-বোনদের এবং পুরো বিশ্বের সব নির্যাতিতা নারীর নামে উৎসর্গ করছি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেহের আফরোজ চুমকি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited