কলম্বিয়ায় পুলিশ অ্যাকাডেমিতে গাড়িবোমা হামলা : নিহত ২১

কলম্বিয়ার রাজধানী বোগোটায় পুলিশ ক্যাডেট প্রশিক্ষণ অ্যাকাডেমিতে গাড়ি বোমা হামলায় কমপক্ষে ২১ জন নিহত ও ৬৫ জন আহত হয়েছে। গত ১৬ বছরের মধ্যে এ নগরীতে এটি ছিল সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, এ ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড’ চালাতে ৮০ কিলোগ্রাম বিস্ফোরকভর্তি একটি গাড়ি ব্যবহার করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা সাংবাদিকদেরকে বলেছেন, একটি গাড়ি অ্যাকাডেমি প্রাঙ্গণে প্রবেশ করে। নিরাপত্তারক্ষীরা গাড়িটিকে থামাতে গেলে সেটি দ্রুতগতিতে এগিয়ে গিয়ে দেয়ালে ধাক্কা মেরে বিস্ফোরিত হয়। কলম্বিয়া সরকার এ নৃশংস ঘটনায় তিন দিনের শোক ঘোষণা করেছে।

 

বৃহস্পতিবার ক্যাডেটদের পদোন্নতি অনুষ্ঠান চলাকালে বোগোটার দক্ষিণে জেনারেল ফ্রান্সিসকো পলা স্যানটান্ডার অফিসার্স স্কুলে এ বোমা হামলা চালানো হয়। এতে হামলাকারী নিহত হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে। এখন পর্যন্ত এ হামলার দায়িত্ব কেউ স্বীকার করেনি। তবে সরকারি প্রসিকিউটর নেস্টর হুমবার্তো মার্টিনেজ জানান, এ জঘন্য ঘটনার প্রধান সন্দেহভাজনের নাম হচ্ছে জোসে আলদেমার রোজাস রদ্রিগুয়েজ। মার্টিন জানান, রোজাস রদ্রিগুয়েজ স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৯টার দিকে একটি নিশান পেট্রোল ট্রাক নিয়ে ওই স্কুলে প্রবেশ করে। তবে এ বিস্ফোরণের ব্যাপারে তিরি আর বিস্তারিত কিছু উল্লেখ করেননি। একাডেমির আশপাশের এলাকায় কয়েকটি অ্যাপার্টমেন্টের জানালাও বিস্ফোরণে উড়ে গেছে। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় প্রথমে এক বিবৃতিতে ৮ জন নিহত এবং ১০ জন আহত হওয়ার খবর জানিয়েছিল। তবে নিহতরা পুলিশ না সাধারণ মানুষ তা জানায়নি। মেয়র এনরিক পেনালোসা ঘটনাটিকে ‘সন্ত্রাসী হামলা’ বলে এর নিন্দা করেছেন। তবে এ হামলার পেছনে কারা জড়িত সে সম্পর্কে কর্তৃপক্ষ এখনো কিছু জানায়নি। কলম্বিয়ার রেডিও স্টেশন আরসিএন ঘটনাস্থলের দৃশ্য টুইট করেছে।

 

হামলার পরপরই প্রেসিডেন্ট ইভান ডুক টুইটার বার্তায় বলেন, ‘কলম্বিয়ার সকল নাগরিক সন্ত্রাসবাদকে প্রত্যাখ্যান করেছে। আমরা একত্রে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করছি।’ পরে জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া এক বিবৃতিতে ডুক বলেন, তিনি কলম্বিয়ার সীমান্তে এবং বিভিন্ন নগরীর প্রবেশ ও বাইর পথে নিরাপত্তা জোরদারের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এই সন্ত্রাসী হামলার মূল হোতা ও সহযোগীদের সনাক্ত করতে সার্বিক তদন্তের ব্যাপারে অগ্রাধিকার দিতে আমি আবেদন জানাচ্ছি। কলম্বিয়ায় সরকার এবং বামপন্থি বিদ্রোহী রেভল্যুশনারি আর্মড ফোর্সেস অব কলম্বিয়ার (ফার্ক) মধ্যকার দীর্ঘ লড়াইয়ে গাড়িবোমা হামলার ঘটনা নতুন কিছু নয়। তবে স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, গত ৯ বছরে এ ধরনের প্রাণঘাতী বিস্ফোরণের ঘটনা এর আগে আর ঘটেনি। কলম্বিয়ার ফার্ক বিদ্রোহীরা ২০১৬ সালের নভেম্বরেই সরকারের সঙ্গে শান্তিচুক্তি সই করেছে। তার পর থেকে দলটি রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে। কিন্তু দেশটিতে আরেকটি বিদ্রোহী গোষ্ঠী ‘ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি’ (ইএলএন) এখনো সক্রিয় রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» শৈলকুপায় নদী থেকে অবৈধভাবে মাটি ও বালু উত্তলোন করায় নদী ভাঙ্গনের কবলে বসতভিটা

» ঝিনাইদহ গোয়েন্দা পুলিশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান, গাঁজা ও ইয়াবাসহ চার জন গ্রেফতার

» নষ্ট হচ্ছে ৫০ বিঘা জমির আবাদি ফসল, প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

» ঝিনাইদহের চাকলা পাড়ার আলোচিত মিনি পতিতালয় ও মাদকের গডফাদার এলাকাবাসীর অভিযোগ

» মেয়র প্রার্থীর মা স্ত্রী ও ভাইসহ ৫ জনকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালো নৌকার সমর্থকরা

» আপত্তিকর ভিডিও পোস্ট: অভিনেত্রী সানাই সুপ্রভা আটক

» দ্বিতীয় পুরস্কার ছিনিয়ে আনলেন শার্শার উদ্ভাবক মিজান

» গলাচিপায় ৭ লক্ষ ২৪ হাজার রেণু পোনা জব্দ

» সাধারণ মানুষের জন্য গ্রাম আদালত কতটা প্রয়োজন: একটি নিরীক্ষা

» র‌্যাব-৬ এর পৃথক দুটি অভিযানে গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৬ই ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কলম্বিয়ায় পুলিশ অ্যাকাডেমিতে গাড়িবোমা হামলা : নিহত ২১

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

কলম্বিয়ার রাজধানী বোগোটায় পুলিশ ক্যাডেট প্রশিক্ষণ অ্যাকাডেমিতে গাড়ি বোমা হামলায় কমপক্ষে ২১ জন নিহত ও ৬৫ জন আহত হয়েছে। গত ১৬ বছরের মধ্যে এ নগরীতে এটি ছিল সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, এ ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড’ চালাতে ৮০ কিলোগ্রাম বিস্ফোরকভর্তি একটি গাড়ি ব্যবহার করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা সাংবাদিকদেরকে বলেছেন, একটি গাড়ি অ্যাকাডেমি প্রাঙ্গণে প্রবেশ করে। নিরাপত্তারক্ষীরা গাড়িটিকে থামাতে গেলে সেটি দ্রুতগতিতে এগিয়ে গিয়ে দেয়ালে ধাক্কা মেরে বিস্ফোরিত হয়। কলম্বিয়া সরকার এ নৃশংস ঘটনায় তিন দিনের শোক ঘোষণা করেছে।

 

বৃহস্পতিবার ক্যাডেটদের পদোন্নতি অনুষ্ঠান চলাকালে বোগোটার দক্ষিণে জেনারেল ফ্রান্সিসকো পলা স্যানটান্ডার অফিসার্স স্কুলে এ বোমা হামলা চালানো হয়। এতে হামলাকারী নিহত হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে। এখন পর্যন্ত এ হামলার দায়িত্ব কেউ স্বীকার করেনি। তবে সরকারি প্রসিকিউটর নেস্টর হুমবার্তো মার্টিনেজ জানান, এ জঘন্য ঘটনার প্রধান সন্দেহভাজনের নাম হচ্ছে জোসে আলদেমার রোজাস রদ্রিগুয়েজ। মার্টিন জানান, রোজাস রদ্রিগুয়েজ স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৯টার দিকে একটি নিশান পেট্রোল ট্রাক নিয়ে ওই স্কুলে প্রবেশ করে। তবে এ বিস্ফোরণের ব্যাপারে তিরি আর বিস্তারিত কিছু উল্লেখ করেননি। একাডেমির আশপাশের এলাকায় কয়েকটি অ্যাপার্টমেন্টের জানালাও বিস্ফোরণে উড়ে গেছে। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় প্রথমে এক বিবৃতিতে ৮ জন নিহত এবং ১০ জন আহত হওয়ার খবর জানিয়েছিল। তবে নিহতরা পুলিশ না সাধারণ মানুষ তা জানায়নি। মেয়র এনরিক পেনালোসা ঘটনাটিকে ‘সন্ত্রাসী হামলা’ বলে এর নিন্দা করেছেন। তবে এ হামলার পেছনে কারা জড়িত সে সম্পর্কে কর্তৃপক্ষ এখনো কিছু জানায়নি। কলম্বিয়ার রেডিও স্টেশন আরসিএন ঘটনাস্থলের দৃশ্য টুইট করেছে।

 

হামলার পরপরই প্রেসিডেন্ট ইভান ডুক টুইটার বার্তায় বলেন, ‘কলম্বিয়ার সকল নাগরিক সন্ত্রাসবাদকে প্রত্যাখ্যান করেছে। আমরা একত্রে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করছি।’ পরে জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া এক বিবৃতিতে ডুক বলেন, তিনি কলম্বিয়ার সীমান্তে এবং বিভিন্ন নগরীর প্রবেশ ও বাইর পথে নিরাপত্তা জোরদারের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এই সন্ত্রাসী হামলার মূল হোতা ও সহযোগীদের সনাক্ত করতে সার্বিক তদন্তের ব্যাপারে অগ্রাধিকার দিতে আমি আবেদন জানাচ্ছি। কলম্বিয়ায় সরকার এবং বামপন্থি বিদ্রোহী রেভল্যুশনারি আর্মড ফোর্সেস অব কলম্বিয়ার (ফার্ক) মধ্যকার দীর্ঘ লড়াইয়ে গাড়িবোমা হামলার ঘটনা নতুন কিছু নয়। তবে স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, গত ৯ বছরে এ ধরনের প্রাণঘাতী বিস্ফোরণের ঘটনা এর আগে আর ঘটেনি। কলম্বিয়ার ফার্ক বিদ্রোহীরা ২০১৬ সালের নভেম্বরেই সরকারের সঙ্গে শান্তিচুক্তি সই করেছে। তার পর থেকে দলটি রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে। কিন্তু দেশটিতে আরেকটি বিদ্রোহী গোষ্ঠী ‘ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি’ (ইএলএন) এখনো সক্রিয় রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited