জাবিতে উৎযাপিত হল ৪৯তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস

জাবি প্রতিনিধি : সাগর কর্মকার: প্রতিষ্ঠার ৪৮ বছর পেরিয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে উৎযাপিত হল ৪৯তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। শনিবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ চত্বরে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলনের পর বেলুন উড়ানোর মধ্য দিয়ে দিবসটির উদ্বোধন করা হয়।জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মো. আমির হোসেন। পরে উপাচার্য বেলুন উড়িয়ে দিবসের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করেন।উদ্বোধনী বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বলেন, ‘প্রতিষ্ঠার ৪৮ বছরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা দেশ-বিদেশে যে সম্মান অর্জন করেছেন তাতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় গৌরব বৃদ্ধি পেয়েছে।

 

আগামীতে ৫০বছরে পা রাখবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়। আমাদের এখন ভাবতে হবে ৫০বছরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়কে কি রকম দেখতে চাই? ইতোমধ্যে জাবির অধিকতর উন্নয়নের জন্য প্রকল্প অনুমোদন হয়েছে। প্রকল্পের আওতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভৌত ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন হবে। আমরা আশা করছি ৫০বছরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়কে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌছাতে পারবো।’উদ্বোধন শেষে বিজনেস স্ট্যাডিজ অনুষদের সামনে থেকে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুক্তমঞ্চে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন), কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মো. মঞ্জুরুল হক, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভিন্ন হলের প্রাধ্যক্ষ, বিভাগীয় সভাপতি ও শিক্ষকমন্ডলী, প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা, শিক্ষক সমিতি, সিন্ডিকেট ও সিনেট সদস্য, অফিসার সমিতি, কর্মকর্তা-কর্মচারী সমিতির সদস্য ও ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করেন।

 

এরপর বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সেলিম আল দীন মুক্তমঞ্চে ছাত্রকল্যাণ ও পরামর্শদান কেন্দ্রের আয়োজনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও বেলা আড়াইটায় রয়েছে পুতুল নাট্য, বিকেল পাঁচটায় ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের উদ্যোগে রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সন্ধ্যা সাতটায় সেলিম আল দীন মুক্তমঞ্চে রয়েছে লোকসঙ্গীত সম্রাজ্ঞী মমতাজ বেগম এম পি এর একক সঙ্গীতানুষ্ঠান। উল্লেখ্য, ৬৯৭.৫৬ একরের এই বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করা হয় ২০ আগস্ট ১৯৭০ সালে। ৪ জানুয়ারি ১৯৭১ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ক্লাস অনুষ্ঠিত হলেও আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয় ১২ জানুয়ারি ১৯৭১। পূর্ব পাকিস্তানের তৎকালীন গভর্নর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর রিয়ার অ্যাডমিরাল এস এম আহসান বিশ্ববিদ্যালয়টির উদ্বোধন করেন। আর তখন থেকেই ১২ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয় দিবস পালিত হয়ে আসছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» মৃত্যুশয্যায় বৃদ্ধা মা, পাশে নেই বিসিএস ক্যাডার-বিত্তবান সন্তানেরা

» পদ্মা সেতুর ১ হাজার ৫০ মিটার দৃশ্যমান

» বুলবুলকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘গার্ড অব অনার’, সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা

» সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে নিয়ে বিদিশার আবেগঘন স্ট্যাটাস

» সেই আলোচিত মোটর সাইকেল চালক শাহনাজের দুই মেয়েকে বৃত্তি দিচ্ছে উবার

» বেনাপোলে ফেন্সিডিলসহ আটক-৩

» লক্ষ্মীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৬জনসহ নিহত ৭

» শহীদ মিনারে আবারো ৩ ধুমপায়ীকে জরিমানা

» ঝিনাইদহে জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

» কালীগঞ্জে পদ্মা, মেঘনা, যমুনা ও সাগর চার জমজ সন্তানকে নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় বাবা-মা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বুধবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১০ই মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জাবিতে উৎযাপিত হল ৪৯তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

জাবি প্রতিনিধি : সাগর কর্মকার: প্রতিষ্ঠার ৪৮ বছর পেরিয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে উৎযাপিত হল ৪৯তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। শনিবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ চত্বরে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলনের পর বেলুন উড়ানোর মধ্য দিয়ে দিবসটির উদ্বোধন করা হয়।জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মো. আমির হোসেন। পরে উপাচার্য বেলুন উড়িয়ে দিবসের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করেন।উদ্বোধনী বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বলেন, ‘প্রতিষ্ঠার ৪৮ বছরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা দেশ-বিদেশে যে সম্মান অর্জন করেছেন তাতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় গৌরব বৃদ্ধি পেয়েছে।

 

আগামীতে ৫০বছরে পা রাখবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়। আমাদের এখন ভাবতে হবে ৫০বছরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়কে কি রকম দেখতে চাই? ইতোমধ্যে জাবির অধিকতর উন্নয়নের জন্য প্রকল্প অনুমোদন হয়েছে। প্রকল্পের আওতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভৌত ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন হবে। আমরা আশা করছি ৫০বছরে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়কে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌছাতে পারবো।’উদ্বোধন শেষে বিজনেস স্ট্যাডিজ অনুষদের সামনে থেকে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুক্তমঞ্চে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন), কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মো. মঞ্জুরুল হক, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভিন্ন হলের প্রাধ্যক্ষ, বিভাগীয় সভাপতি ও শিক্ষকমন্ডলী, প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা, শিক্ষক সমিতি, সিন্ডিকেট ও সিনেট সদস্য, অফিসার সমিতি, কর্মকর্তা-কর্মচারী সমিতির সদস্য ও ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করেন।

 

এরপর বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সেলিম আল দীন মুক্তমঞ্চে ছাত্রকল্যাণ ও পরামর্শদান কেন্দ্রের আয়োজনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও বেলা আড়াইটায় রয়েছে পুতুল নাট্য, বিকেল পাঁচটায় ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের উদ্যোগে রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সন্ধ্যা সাতটায় সেলিম আল দীন মুক্তমঞ্চে রয়েছে লোকসঙ্গীত সম্রাজ্ঞী মমতাজ বেগম এম পি এর একক সঙ্গীতানুষ্ঠান। উল্লেখ্য, ৬৯৭.৫৬ একরের এই বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করা হয় ২০ আগস্ট ১৯৭০ সালে। ৪ জানুয়ারি ১৯৭১ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ক্লাস অনুষ্ঠিত হলেও আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয় ১২ জানুয়ারি ১৯৭১। পূর্ব পাকিস্তানের তৎকালীন গভর্নর ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর রিয়ার অ্যাডমিরাল এস এম আহসান বিশ্ববিদ্যালয়টির উদ্বোধন করেন। আর তখন থেকেই ১২ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয় দিবস পালিত হয়ে আসছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited