ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক ও পাখি ভ্যানে তছনছ ট্রাফিক ব্যাবস্থা, থামছেই না ইজিবাইক

জাহিদুর রহমান তারিক:  ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক ও পাখি ভ্যানে তছনছ ট্রাফিক ব্যাবস্থা। যে দিকে চোখ যায় শহরের সব খানেই ইজিবাইকের দাপট। কোন ভাবেই এ দুটি যানবাহন নিয়ন্ত্রন করা যাচ্ছে না। নিয়ন্ত্রনহীন এই যানবাহনের কারণে একদিকে যেমন যানজট লেগেই আছে অন্যদিকে ছোটখাট দুর্ঘটনাও যেন পথচারীদের পিছু ছাড়ছে না। ইজিবাইকের এলইডি লাইটিং ব্যবস্থা পথচারীদের ভোগান্তির কারণ হয়ে দেখা দিচ্ছে। জেলা প্রশাসক ও পৌরসভার পক্ষ থেকে ইজিবাইক কেনাবেঁচা বন্ধ করার নির্দেশনা দিলেও শহরের ৫টি দোকানে চুরি করে তারা ইজিবাইক বিক্রি হচ্ছে।

 

প্রতিদিন গড়ে ৫/৭টি করে ইজিবাইক বিক্রি হচ্ছে। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, জেলায় ইজিবাইকের সঠিক কোন পরিসংখ্যান নেই। ঝিনাইদহ ট্রাফিক বিভাগের পরিদর্শক (এ্যাডমিন) কৃষ্ণপদ সরকার জানান, সারা জেলায় অনুমোদিত ইজিবাই আছে দুই হাজার। এছাড়া সারা জেলায় এক হাজার রয়েছে লাইসেন্স বিহীন। অন্যদিকে ইজিবাইক বিক্রেতারা জানিয়েছেন ঝিনাইদহ জেলায় ইজিবাইকের সংখ্যা ১০ হাজার হবে। তারা এ পর্যন্ত এ রকম সংখ্যাই বিক্রি করেছেন। প্রতিটি উপজেলায় ইজিবাইকের শো রুম আছে। প্রতিদিন নতুন নতুন ইজিবাইক রাস্তা দখল করছে। জানা গেছে, এখন শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত মানুষের চলাচলের যানবাহন হয়েছে ইজিবাইক।

 

পৌরসভা থেকে লাইসেন্স প্রদান করা হলেও ড্রাইভারদের কোন লাইন্সে নেই। ফলে অদক্ষ যে কেউ এক দিনে চালক বনে যাচ্ছে। ইজিবাইকের কারণ শহর থেকে প্যাডেল চালিত রিক্সা ভ্যান উঠে গেছে। রিক্সা ও ভ্যানে লাগানো হয়েছে ব্যাটারি। এ দুই যানবাহনের নাম হয়েছে পাখি ভ্যান। পাখির মতো নিয়ন্ত্রনহীন ছুটে চলে এ সব পরিবহন। পথচারিদের অভিযোগ ঝিনাইদহ শহরে যানজটের মুল কারণ হচ্ছে এ সব ব্যাটারি চালিত যানবহন। ঝিনাইদহ ট্রাফিক বিভাগের পরিদর্শক (এ্যাডমিন) কৃষ্ণপদ সরকার জানান, আমরা যানজট নরসনের জন্য প্রতি নিয়ত ইজিবাইকের কাগজপত্র চেক করছি। শহরে ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রনে আছে। তিনি আরও বলেন, ট্রাফিক পুলিশরা চেক করার কারণে পৌরসভাগুলোতে রাজস্ব বেড়ে গেছে। মানবিক কারণ ছাড়া বাইরের ইজিবাইক আমরা শহরে প্রবেশ করতে দিচ্ছি না। তিনি বলেন শহরে ছাড়া তো আর কোথাও এই যানবাহন তেমন একটা চলে না।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» কুয়াকাটায় যথাযথ মর্যাদায় মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে

» দশমিনায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

» দশমিনায় প্রানী সম্পদ অধিদপ্তরে ভাষা দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন হয়নি

» যশোরের বেনাপোলে ফেন্সিডিলসহ মহিলা ব্যবসায়ী আটক

» আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবসে বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে দুই বাংলার মিলন মেলা

» বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে ভাষা শহীদদেও প্রতি শ্রদ্ধা

» বান্দরবানের রুমায় বিষ পানে পাড়া প্রধানের আত্মহত্যা

» গলাচিপায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস পালিত

» পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা সৈকতে পতাকা বিক্রেতা মো.গিয়াস উদ্দিন

» আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস উপলক্ষ্যে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন ও আলোচনা সভা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৯ই ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক ও পাখি ভ্যানে তছনছ ট্রাফিক ব্যাবস্থা, থামছেই না ইজিবাইক

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

জাহিদুর রহমান তারিক:  ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক ও পাখি ভ্যানে তছনছ ট্রাফিক ব্যাবস্থা। যে দিকে চোখ যায় শহরের সব খানেই ইজিবাইকের দাপট। কোন ভাবেই এ দুটি যানবাহন নিয়ন্ত্রন করা যাচ্ছে না। নিয়ন্ত্রনহীন এই যানবাহনের কারণে একদিকে যেমন যানজট লেগেই আছে অন্যদিকে ছোটখাট দুর্ঘটনাও যেন পথচারীদের পিছু ছাড়ছে না। ইজিবাইকের এলইডি লাইটিং ব্যবস্থা পথচারীদের ভোগান্তির কারণ হয়ে দেখা দিচ্ছে। জেলা প্রশাসক ও পৌরসভার পক্ষ থেকে ইজিবাইক কেনাবেঁচা বন্ধ করার নির্দেশনা দিলেও শহরের ৫টি দোকানে চুরি করে তারা ইজিবাইক বিক্রি হচ্ছে।

 

প্রতিদিন গড়ে ৫/৭টি করে ইজিবাইক বিক্রি হচ্ছে। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, জেলায় ইজিবাইকের সঠিক কোন পরিসংখ্যান নেই। ঝিনাইদহ ট্রাফিক বিভাগের পরিদর্শক (এ্যাডমিন) কৃষ্ণপদ সরকার জানান, সারা জেলায় অনুমোদিত ইজিবাই আছে দুই হাজার। এছাড়া সারা জেলায় এক হাজার রয়েছে লাইসেন্স বিহীন। অন্যদিকে ইজিবাইক বিক্রেতারা জানিয়েছেন ঝিনাইদহ জেলায় ইজিবাইকের সংখ্যা ১০ হাজার হবে। তারা এ পর্যন্ত এ রকম সংখ্যাই বিক্রি করেছেন। প্রতিটি উপজেলায় ইজিবাইকের শো রুম আছে। প্রতিদিন নতুন নতুন ইজিবাইক রাস্তা দখল করছে। জানা গেছে, এখন শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত মানুষের চলাচলের যানবাহন হয়েছে ইজিবাইক।

 

পৌরসভা থেকে লাইসেন্স প্রদান করা হলেও ড্রাইভারদের কোন লাইন্সে নেই। ফলে অদক্ষ যে কেউ এক দিনে চালক বনে যাচ্ছে। ইজিবাইকের কারণ শহর থেকে প্যাডেল চালিত রিক্সা ভ্যান উঠে গেছে। রিক্সা ও ভ্যানে লাগানো হয়েছে ব্যাটারি। এ দুই যানবাহনের নাম হয়েছে পাখি ভ্যান। পাখির মতো নিয়ন্ত্রনহীন ছুটে চলে এ সব পরিবহন। পথচারিদের অভিযোগ ঝিনাইদহ শহরে যানজটের মুল কারণ হচ্ছে এ সব ব্যাটারি চালিত যানবহন। ঝিনাইদহ ট্রাফিক বিভাগের পরিদর্শক (এ্যাডমিন) কৃষ্ণপদ সরকার জানান, আমরা যানজট নরসনের জন্য প্রতি নিয়ত ইজিবাইকের কাগজপত্র চেক করছি। শহরে ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রনে আছে। তিনি আরও বলেন, ট্রাফিক পুলিশরা চেক করার কারণে পৌরসভাগুলোতে রাজস্ব বেড়ে গেছে। মানবিক কারণ ছাড়া বাইরের ইজিবাইক আমরা শহরে প্রবেশ করতে দিচ্ছি না। তিনি বলেন শহরে ছাড়া তো আর কোথাও এই যানবাহন তেমন একটা চলে না।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited