জাজিরার ব্যক্তি উদ্যোগে নদীর ওপর নির্মিত হলো বাঁশের সেতু

Spread the love

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার পালেরচর-বড়কান্দি-পূর্ব-নাওডোবা যাওয়ার নদী পথে একমাত্র পথ রূপবাবুর হাট এলাকার সুগন্ধা নদী (রূপবাবুর হাট নদী)। এতদিন এ নদী পারাপারের জন্য নৌকার অপেক্ষায় থাকা লাগতো। কিন্তু এখন আর সেই দিন নেই। নদীটি পারাপারের জন্য নদীর ওপর প্রায় এক বছর ধরে কাজ করে বাঁশের সেতু নির্মাণ করেছেন ওই ঘাটেরই নৌকার মাঝি মন্টু বাবু। বুধবার (৭ নভেম্বর) স্থানীয় এলাকাবাসী মন্টু বাবুর বাঁশের সেতুটি উদ্বোধন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সমাজসেবক লিটন আকন, কিনাই শেখ, মান্নান চৌকিদার, কালা মিয়া বেপারী, ইউছুব বেপারী, ছালাম আকন, মজিবর ভূইট্টা, নুরুল ইসলাম সিকদার, রব তালুকদার, শামীম চৌকিদার, দুদু মিয়া মাদবর, সৈকত আকন, পলাশ বাবু, মহন বাবু, রিপন বাবু, শ্রীচরন বাবু, লক্ষণ বাবু প্রমূখ।

 

এ ব্যাপারে পূর্ব-নাওডোবা ইউনিয়নের মহর আলী সিকদার কান্দি গ্রামের মন্টু বাবু জানান, রূপবাবুর হাট এলাকায় সুগন্ধা নদীর ওই ঘাটে প্রায় ২৫ বছর যাবৎ নৌকায় মানুষ পারাপার করেন তিনি। তার বাবা কুটি বাবু ও দাদা রবি দাস বাবুও একই কাজ করতেন। পালেরচর-বড়কান্দি-পূর্ব-নাওডোবা এই ৩ ইউনিয়নের ৩০ গ্রামের প্রায় ৫০ হাজার মানুষ দীর্ঘদিন ধরে একটি সেতুর অভাবে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। অনেক চেষ্টা করেও এখানে একটি সেতু নির্মাণে সরকারি কোনো সহযোগিতা পাননি এলাকাবাসী। তাই এলাকার মানুষের কথা ভেবে নিজ উদ্যোগে প্রায় আধা কিলো দীর্ঘ বাঁশের এই সেতুটি নির্মাণ করেছেন তিনি। তিনি আরও জানান, কাঠের সেতুটি নির্মাণ করতে প্রায় এক বছর সময় লেগেছে তার। খরচ হয়েছে বাঁশ ছাড়া ও ড্রামসহ নগদ প্রায় ৫ লাখ টাকা।

 

তবে তিনি এই কাজটি করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছেন। আর তিনি এই স্থানে সরকারি ভাবে একটি ব্রীজের প্রত্যাশা করে যথাযথ কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন। স্থানীয় বাসিন্দা লিটন আকন জানান, রূপবাবুর হাট এলাকায় সুগন্ধা নদীর ওপরে অনেকেই ব্রিজ করে দেবে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। কিন্তু আজও পর্যন্ত ব্রিজ নির্মাণ হয়নি। তবে মন্টু বাবু বাঁশের সেতুটি তৈরি করে বুঝিয়ে দিলো ইচ্ছা থাকলে অনেক কিছু করা সম্ভব। আর সেতুটি নির্মাণ করায় এলাকার মানুষের অনেক উপকারসহ পালেরচর, বড়কান্দি, পূর্ব-নাওডোবা ও পশ্চিম-নাওডোবা ইউনিয়নের মানুষের মধ্যে সেতু বন্ধন হয়েছে বলেও জানান তিনি। এছাড়াও তিনি এই স্থানে সরকারি ভাবে একটি ব্রিজের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» গুয়াবাড়িয়া এবি বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় নারী শিক্ষায় অনন্য প্রতিষ্ঠান

» শরীয়তপুরে আরজেএফ’র ১২ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান পালিত

» বার্ষিক ক্রিড়া পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে -ও.সি মঞ্জুর কাদের জীবনে বড় কিছু হতে হলে প্রচুর পড়ালেখা করতে হবে

» কুয়াকাটা মহসড়কে প্রান হারালো অজ্ঞাত পরিচয়ের এক বৃদ্ধ

» আরজেএফ’র ১২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

» বাগেরহাটে শরণখোলায় ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মীদের মানববন্ধন

» জেন্ডার ও গ্রাম আদালত বিষয়ক সক্ষমতা বৃদ্ধি কর্মশালায় গ্রাম আদালতের সার্বিক বিচার-প্রক্রিয়া নারী-বান্ধব ও ভয়মুক্ত করতে হবে

» প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী বাতিল হচ্ছে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত পরীক্ষা

» মসজিদে যেতে কেউ আমাদের আটকে রাখতে পারবে না

» ডিম বালককে বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে রাজপথে তরুণীরা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৭ই চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জাজিরার ব্যক্তি উদ্যোগে নদীর ওপর নির্মিত হলো বাঁশের সেতু

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার পালেরচর-বড়কান্দি-পূর্ব-নাওডোবা যাওয়ার নদী পথে একমাত্র পথ রূপবাবুর হাট এলাকার সুগন্ধা নদী (রূপবাবুর হাট নদী)। এতদিন এ নদী পারাপারের জন্য নৌকার অপেক্ষায় থাকা লাগতো। কিন্তু এখন আর সেই দিন নেই। নদীটি পারাপারের জন্য নদীর ওপর প্রায় এক বছর ধরে কাজ করে বাঁশের সেতু নির্মাণ করেছেন ওই ঘাটেরই নৌকার মাঝি মন্টু বাবু। বুধবার (৭ নভেম্বর) স্থানীয় এলাকাবাসী মন্টু বাবুর বাঁশের সেতুটি উদ্বোধন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সমাজসেবক লিটন আকন, কিনাই শেখ, মান্নান চৌকিদার, কালা মিয়া বেপারী, ইউছুব বেপারী, ছালাম আকন, মজিবর ভূইট্টা, নুরুল ইসলাম সিকদার, রব তালুকদার, শামীম চৌকিদার, দুদু মিয়া মাদবর, সৈকত আকন, পলাশ বাবু, মহন বাবু, রিপন বাবু, শ্রীচরন বাবু, লক্ষণ বাবু প্রমূখ।

 

এ ব্যাপারে পূর্ব-নাওডোবা ইউনিয়নের মহর আলী সিকদার কান্দি গ্রামের মন্টু বাবু জানান, রূপবাবুর হাট এলাকায় সুগন্ধা নদীর ওই ঘাটে প্রায় ২৫ বছর যাবৎ নৌকায় মানুষ পারাপার করেন তিনি। তার বাবা কুটি বাবু ও দাদা রবি দাস বাবুও একই কাজ করতেন। পালেরচর-বড়কান্দি-পূর্ব-নাওডোবা এই ৩ ইউনিয়নের ৩০ গ্রামের প্রায় ৫০ হাজার মানুষ দীর্ঘদিন ধরে একটি সেতুর অভাবে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। অনেক চেষ্টা করেও এখানে একটি সেতু নির্মাণে সরকারি কোনো সহযোগিতা পাননি এলাকাবাসী। তাই এলাকার মানুষের কথা ভেবে নিজ উদ্যোগে প্রায় আধা কিলো দীর্ঘ বাঁশের এই সেতুটি নির্মাণ করেছেন তিনি। তিনি আরও জানান, কাঠের সেতুটি নির্মাণ করতে প্রায় এক বছর সময় লেগেছে তার। খরচ হয়েছে বাঁশ ছাড়া ও ড্রামসহ নগদ প্রায় ৫ লাখ টাকা।

 

তবে তিনি এই কাজটি করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছেন। আর তিনি এই স্থানে সরকারি ভাবে একটি ব্রীজের প্রত্যাশা করে যথাযথ কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন। স্থানীয় বাসিন্দা লিটন আকন জানান, রূপবাবুর হাট এলাকায় সুগন্ধা নদীর ওপরে অনেকেই ব্রিজ করে দেবে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। কিন্তু আজও পর্যন্ত ব্রিজ নির্মাণ হয়নি। তবে মন্টু বাবু বাঁশের সেতুটি তৈরি করে বুঝিয়ে দিলো ইচ্ছা থাকলে অনেক কিছু করা সম্ভব। আর সেতুটি নির্মাণ করায় এলাকার মানুষের অনেক উপকারসহ পালেরচর, বড়কান্দি, পূর্ব-নাওডোবা ও পশ্চিম-নাওডোবা ইউনিয়নের মানুষের মধ্যে সেতু বন্ধন হয়েছে বলেও জানান তিনি। এছাড়াও তিনি এই স্থানে সরকারি ভাবে একটি ব্রিজের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited