ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্ট অনুষ্ঠিত তথ্যপ্রযুক্তি মেয়েদের পেশার জন্য উপযুক্ত ক্ষেত্র

Spread the love

দেশের নারীসমাজকে তথ্যপ্রযুক্তির উৎকর্ষতার ধারায় সম্পৃক্ততা বাড়াতে ও তথ্যপ্রযুক্তি চর্চায় উৎসাহিত করতে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ‘ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্ট-২০১৮’-এর তৃতীয় আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের আইসিটি বিভাগ ও বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের সহযোগিতায় ২২ অক্টোবর সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ মিলনায়তনে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক অথরিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম।

 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভিসি অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম, প্রোভিসি অধ্যাপক ড. এসএম মাহবুব উল হক মজুমদার, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী একেএম ফজলুল হক, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. সৈয়দ আকতার হোসেন প্রমুখ। ‘ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্ট-২০১৮’-এর তৃতীয় আসরের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ও সচিব জুইয়েনা আজিজ।

 

সারা দেশের স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আসা ১০২টি দল এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় দুইটি বিভাগে। বিভাগ-১এ ছিল প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষার্থীরা এবং বিভাগ-২এ ছিল মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা। ৫ ঘণ্টাব্যাপী এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে আ লিক পর্বের প্রতিযোগিতায় তিন শতাধিক দল অনলাইনে অংশগ্রহণ করেছিল। সেখান থেকে নির্বাচিত এই ১০২টি দল জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। এবারের প্রতিযোগিতায় ঢাকার ৫২টি দল ও ঢাকার বাইরের ৫০টি দল অংশগ্রহণ করছে।

 

ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্ট-এর এবারের আসরে চ্যাম্পিয়ন হয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘জে ইউ জাবিয়ান’ দল। প্রথম রানার আপ হয় চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট)-এর ‘হুকডঅন’ দল। দ্বিতীয় রানারআপ হয় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ফাইটার্স’ দল। প্রাথমিক পর্যায়ে পুরস্কৃত হয় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ও খিলগাঁও ন্যাশনাল আইডিয়াল স্কুল। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আধুনিক বিশ্বের প্রতিযোগিতায় নিজেদের টিকিয়ে রাখতে তথ্যপ্রযুক্তির জ্ঞান আহরণ অত্যন্ত জরুরি। তিনি দেশের নারীসমাজ ও তরুণ প্রজন্মকে তথ্যপ্রযুক্তির উৎকর্ষতার ধারায় সম্পৃক্ততা বাড়াতে তথ্যপ্রযুক্তি চর্চায় উৎসাহিত করতে প্রোগ্রামিংয়ের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। মন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে রয়েছে।

 

ভবিষ্যতে বাংলাদেশ ডিজিটাল বিশ্বের নেতৃত্ব দেবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি মেয়েদের জন্য উপযুক্ত পেশা বা ক্ষেত্র যা যে কোনো স্থান থেকেই করা যায়। তিনি জীবনের প্রাথমিক স্তর থেকেই তথ্যপ্রযুক্তি চর্চার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক তথ্যপ্রযুক্তিতে নিজেদের সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবনী ক্ষমতাকে সঠিকভাবে কাজে লাগানোর ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। উদ্ভাবনী ক্ষমতাকে সঠিকভাবে কাজে লাগাতে বর্তমান সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» আজ ভয়াল ২৫ মার্চ, জাতীয় গণহত্যা দিবস

» বান্দরবানে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানেই যৌন হয়রানি! ফেইসবুকে ভাইরাল

» হুমকির মুখে প্রায় ২০টি পরিবার ধলাই নদীপাড়ের মানুষের মানববন্ধন

» আ’লীগ ক্ষমতায় আসার পর বক্তাবলীতে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগে- শওকত চেয়ারম্যান

» কমলগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় মা-মেয়েসহ আহত- ৪

» ডিম বালক: সেই ৪২ হাজার ডলার নিহতদের পরিবারে দান করছেন

» ভোলার লালমোহনে দুই রোহিঙ্গা ভাইবোন, অতঃপর…

» যে কারণে নূরের বান্ধবীকে জিজ্ঞাসাবাদ করল সিআইডি

» ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসার জন্য সাহায্যের আবেদন

» স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বেনাপোলে কিশোর কিশোরী হ্যান্ডবল ও ফুটবল প্রতিযোগিতা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১১ই চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্ট অনুষ্ঠিত তথ্যপ্রযুক্তি মেয়েদের পেশার জন্য উপযুক্ত ক্ষেত্র

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

দেশের নারীসমাজকে তথ্যপ্রযুক্তির উৎকর্ষতার ধারায় সম্পৃক্ততা বাড়াতে ও তথ্যপ্রযুক্তি চর্চায় উৎসাহিত করতে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ‘ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্ট-২০১৮’-এর তৃতীয় আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের আইসিটি বিভাগ ও বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের সহযোগিতায় ২২ অক্টোবর সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ মিলনায়তনে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক অথরিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম।

 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভিসি অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম, প্রোভিসি অধ্যাপক ড. এসএম মাহবুব উল হক মজুমদার, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী একেএম ফজলুল হক, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. সৈয়দ আকতার হোসেন প্রমুখ। ‘ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্ট-২০১৮’-এর তৃতীয় আসরের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ও সচিব জুইয়েনা আজিজ।

 

সারা দেশের স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আসা ১০২টি দল এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় দুইটি বিভাগে। বিভাগ-১এ ছিল প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষার্থীরা এবং বিভাগ-২এ ছিল মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা। ৫ ঘণ্টাব্যাপী এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে আ লিক পর্বের প্রতিযোগিতায় তিন শতাধিক দল অনলাইনে অংশগ্রহণ করেছিল। সেখান থেকে নির্বাচিত এই ১০২টি দল জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। এবারের প্রতিযোগিতায় ঢাকার ৫২টি দল ও ঢাকার বাইরের ৫০টি দল অংশগ্রহণ করছে।

 

ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্ট-এর এবারের আসরে চ্যাম্পিয়ন হয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘জে ইউ জাবিয়ান’ দল। প্রথম রানার আপ হয় চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট)-এর ‘হুকডঅন’ দল। দ্বিতীয় রানারআপ হয় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ফাইটার্স’ দল। প্রাথমিক পর্যায়ে পুরস্কৃত হয় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ও খিলগাঁও ন্যাশনাল আইডিয়াল স্কুল। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আধুনিক বিশ্বের প্রতিযোগিতায় নিজেদের টিকিয়ে রাখতে তথ্যপ্রযুক্তির জ্ঞান আহরণ অত্যন্ত জরুরি। তিনি দেশের নারীসমাজ ও তরুণ প্রজন্মকে তথ্যপ্রযুক্তির উৎকর্ষতার ধারায় সম্পৃক্ততা বাড়াতে তথ্যপ্রযুক্তি চর্চায় উৎসাহিত করতে প্রোগ্রামিংয়ের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। মন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে রয়েছে।

 

ভবিষ্যতে বাংলাদেশ ডিজিটাল বিশ্বের নেতৃত্ব দেবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি মেয়েদের জন্য উপযুক্ত পেশা বা ক্ষেত্র যা যে কোনো স্থান থেকেই করা যায়। তিনি জীবনের প্রাথমিক স্তর থেকেই তথ্যপ্রযুক্তি চর্চার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক তথ্যপ্রযুক্তিতে নিজেদের সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবনী ক্ষমতাকে সঠিকভাবে কাজে লাগানোর ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। উদ্ভাবনী ক্ষমতাকে সঠিকভাবে কাজে লাগাতে বর্তমান সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited