নড়িয়ায় যুবলীগ নেতা হত্যা মামলার সাক্ষীর ছেলেকে হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নে যুবলীগ নেতা ইব্রাহিম হোসেন মাইকেল হত্যা মামলার সাক্ষী আলী হোসেন মীর মালতের ছেলে স্কুল ছাত্র নাহিদ মীর মালত’কে হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে এলাকাবাসী। বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন ও শহরে বিক্ষোভ মিছিল করা হয়।

 

এতে অংশগ্রহণ করেন, রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যন ও আওয়ামীলীগ নেতা আলী উজ্জামান মীর মালত, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি নুর ইসলাম মীর মালত, আন্ধার মানিক বাজার বণিক সমিতির সভাপতি দাদন মীর মালত, নিহত নাহিদের বাবা আলী হোসেন, ফুফু ইয়াসমিন বেগম, যুবলীগ নেতা পূর্বে নিহত ইব্রাহিম হোসেন মাইকেলের বাবা আমিন ফকির, যুবলীগ নেতা গোলাম মাওলা মীর বহর, শহিদুল মীর বহর সহ রাজনগর ইউনিয়নের প্রায় পাঁচ শতাধিক জনগণ। এসময় তারা রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যন গাজী জাকির হোসেন, আনোয়ার হোসেন বেপারী, শাহজাহান মাদবর, স¤্রাট গাজী, আজহার মাদবর, জনী গাজী, সাগর সরদার, শাহীন সরদার, আল-আমিন মোড়ল, মাসুম বেপারী, খোকন বেপারী, দেলোয়ার বেপারী সহ হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করে দ্রুত বিচারের আওতায় এনে ফাঁসির দাবি জানান।

 

এ সময় বক্তারা বলেন, গাজী জাকির ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিনদুপুরে মানুষ খুন করে। মাইকেল হত্যা মামলায় সাক্ষী দেওয়ার কারণে আলী হোসেনের ছেলে নাহিদকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমরা গাজী জাকিরের বিচার চাই, অনতিবিলম্বে তাকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় এতে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক। নিহত নাহিদের বাবা আলী হোসেন বলেন, আমি খুনি চেয়ারম্যান গাজী জাকিরের বিরুদ্ধে সাক্ষী দেওয়ায় আমার ছেলেকে হত্যা করেছে। আমি গাজী জাকিরের বিচার চাই। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। নড়িয়া থানার ওসি একেএম মঞ্জুরুল হক আকন্দ বলেন, এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া চলছে।

 

উল্লেখ্য, রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা জাকির হোসেন গাজী এবং সাবেক চেয়ারম্যন ও আওয়ামীলীগের নেতা আলী উজ্জামান মীর মালত এর মধ্যে দীর্ঘ দিন ধরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে গত বছর আওয়ামীলীগের দু গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে আলী উজ্জামান মীর মালতের সমর্থক যুবলীগ নেতা ইকবাল হোসেন মাইকেল গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। ওই মামলার সাক্ষী আলী হোসেন মীর মালত গত কয়েক দিন আগে সি আই ডির কাছে সাক্ষী দেয়। এতে প্রতি পক্ষের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়। এরই জের ধরে বুধবার সন্ধায় ৭ টায় সাক্ষী আলী হোসেন মীর মালতের ছেলে নাহিদ মীর মালত(১৭) একই উপজেলার মহিষ খোলা স্কুল মাঠে ভ্যানের উপর বসা ছিল। হটাৎ করে স¤্রাট গাজী, আলামিন মোড়ল, শাহিন সরদার, সাগর সরদার সহ ১৫/২০ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে নাহিদের উপর হামলা করে রড পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

 

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। রাজনগর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান জাকির হোসেন গাজী বলেন, মাইকেল খুনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে নাহিদকে মারপিট করেনি। সন্ধ্যার পরে প্রতিদিন যুবকরা মহিষখোলা মাঠে আড্ডা দেয়। তাদের মধ্যে কোন বিরোধকে কেন্দ্র করে মারামারি হতে পারে। তবে ঘটনাস্থল রাজনগর ইউনিয়নে নয় এটি মোকতারের চর ইউনিয়নের মধ্যে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» কুয়াকাটায় যথাযথ মর্যাদায় মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে

» দশমিনায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

» দশমিনায় প্রানী সম্পদ অধিদপ্তরে ভাষা দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন হয়নি

» যশোরের বেনাপোলে ফেন্সিডিলসহ মহিলা ব্যবসায়ী আটক

» আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবসে বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে দুই বাংলার মিলন মেলা

» বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে ভাষা শহীদদেও প্রতি শ্রদ্ধা

» বান্দরবানের রুমায় বিষ পানে পাড়া প্রধানের আত্মহত্যা

» গলাচিপায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস পালিত

» পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা সৈকতে পতাকা বিক্রেতা মো.গিয়াস উদ্দিন

» আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস উপলক্ষ্যে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন ও আলোচনা সভা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১০ই ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নড়িয়ায় যুবলীগ নেতা হত্যা মামলার সাক্ষীর ছেলেকে হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নে যুবলীগ নেতা ইব্রাহিম হোসেন মাইকেল হত্যা মামলার সাক্ষী আলী হোসেন মীর মালতের ছেলে স্কুল ছাত্র নাহিদ মীর মালত’কে হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে এলাকাবাসী। বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন ও শহরে বিক্ষোভ মিছিল করা হয়।

 

এতে অংশগ্রহণ করেন, রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যন ও আওয়ামীলীগ নেতা আলী উজ্জামান মীর মালত, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি নুর ইসলাম মীর মালত, আন্ধার মানিক বাজার বণিক সমিতির সভাপতি দাদন মীর মালত, নিহত নাহিদের বাবা আলী হোসেন, ফুফু ইয়াসমিন বেগম, যুবলীগ নেতা পূর্বে নিহত ইব্রাহিম হোসেন মাইকেলের বাবা আমিন ফকির, যুবলীগ নেতা গোলাম মাওলা মীর বহর, শহিদুল মীর বহর সহ রাজনগর ইউনিয়নের প্রায় পাঁচ শতাধিক জনগণ। এসময় তারা রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যন গাজী জাকির হোসেন, আনোয়ার হোসেন বেপারী, শাহজাহান মাদবর, স¤্রাট গাজী, আজহার মাদবর, জনী গাজী, সাগর সরদার, শাহীন সরদার, আল-আমিন মোড়ল, মাসুম বেপারী, খোকন বেপারী, দেলোয়ার বেপারী সহ হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করে দ্রুত বিচারের আওতায় এনে ফাঁসির দাবি জানান।

 

এ সময় বক্তারা বলেন, গাজী জাকির ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিনদুপুরে মানুষ খুন করে। মাইকেল হত্যা মামলায় সাক্ষী দেওয়ার কারণে আলী হোসেনের ছেলে নাহিদকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমরা গাজী জাকিরের বিচার চাই, অনতিবিলম্বে তাকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় এতে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক। নিহত নাহিদের বাবা আলী হোসেন বলেন, আমি খুনি চেয়ারম্যান গাজী জাকিরের বিরুদ্ধে সাক্ষী দেওয়ায় আমার ছেলেকে হত্যা করেছে। আমি গাজী জাকিরের বিচার চাই। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। নড়িয়া থানার ওসি একেএম মঞ্জুরুল হক আকন্দ বলেন, এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া চলছে।

 

উল্লেখ্য, রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা জাকির হোসেন গাজী এবং সাবেক চেয়ারম্যন ও আওয়ামীলীগের নেতা আলী উজ্জামান মীর মালত এর মধ্যে দীর্ঘ দিন ধরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে গত বছর আওয়ামীলীগের দু গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে আলী উজ্জামান মীর মালতের সমর্থক যুবলীগ নেতা ইকবাল হোসেন মাইকেল গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। ওই মামলার সাক্ষী আলী হোসেন মীর মালত গত কয়েক দিন আগে সি আই ডির কাছে সাক্ষী দেয়। এতে প্রতি পক্ষের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়। এরই জের ধরে বুধবার সন্ধায় ৭ টায় সাক্ষী আলী হোসেন মীর মালতের ছেলে নাহিদ মীর মালত(১৭) একই উপজেলার মহিষ খোলা স্কুল মাঠে ভ্যানের উপর বসা ছিল। হটাৎ করে স¤্রাট গাজী, আলামিন মোড়ল, শাহিন সরদার, সাগর সরদার সহ ১৫/২০ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে নাহিদের উপর হামলা করে রড পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

 

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। রাজনগর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান জাকির হোসেন গাজী বলেন, মাইকেল খুনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে নাহিদকে মারপিট করেনি। সন্ধ্যার পরে প্রতিদিন যুবকরা মহিষখোলা মাঠে আড্ডা দেয়। তাদের মধ্যে কোন বিরোধকে কেন্দ্র করে মারামারি হতে পারে। তবে ঘটনাস্থল রাজনগর ইউনিয়নে নয় এটি মোকতারের চর ইউনিয়নের মধ্যে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited