বক্তাবলীর আকবরনগরের দুর্ধর্ষ রহিম হাজীর অজানা কাহিনী!

কুয়াকাটা নিউজ:- নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার বক্তাবলীর আকবর নগর গ্রামের সামেদ আলী হাজ্বীর প্রধান প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসী ও চাদাঁবাজ রহিম হাজ্বীর বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ ও একাধিক মামলা থাকা সত্বেও সব সময় রয়ে গেছে পুলিশী ধরা ছোয়াঁর বাইরে। বিএনপি – জামায়াতের রাজনীতির সাথে জড়িত রহিম হাজ্বীর উত্থান নিয়ে আজকের প্রতিবেদন।

 

কে এই রহিম হাজ্বীঃ

 

বক্তাবলীর আকবরনগর গ্রামের মৃত লতু খাঁর ৫ পুত্রের মধ্যে ৪র্থ রহিম খাঁ ওরফে হাজ্বী রহিম,লতু খাঁর অপর পুত্ররা হলেন লালু খাঁ,মৃত নুরুল ইসলাম,ফুলু মাদবর ও সুরুজ খা।

 

রহিম হাজ্বীর উত্থান যে ভাবেঃ

 

এক সময়ের কাচাঁ সব্জী বিক্রেতা ও ইটভাটার লেবার হতে অন্যের জমি জমা দখল করে রাতারাতি কয়েকটি ইটভাটা, একাধিক বাড়ি ও জমিজমার মালিক বনে যান। ফতুল্লার কোতালেরবাগে বহুতল ভবন,গ্রামের বাড়িতে ভবন ও ব্যাংকে কোটি কোটি টাকার মালিক বনে যান মাত্র ১৮/২০ বছরের ব্যবধানে।

 

রহিম হাজ্বীর সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্য যারাঃ

 

সুচতুর রহিম হাজ্বী তার ছেলে মামুন,মিলনকে শহরে রাখলেও তার আপন ভাতিজা নবী হোসেন ও তার মেয়ে কাকলীর স্বামী কবির হোসেনের নেতৃত্বে একটি সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তুলেছে। এ বাহিনীর সদস্যরা হলেন,কাদির,নজরুল,সানি,মান্না,সুরজা,সেরাজল,রিয়াজল,মজিবর,গফুঁর,রশিদ,হাসান উল্লেখ যোগ্য। এ বাহিনীর মাধ্যমে সন্ত্রাসী,চাদাঁবাজি,জমিজমা দখল সহ নানান অপকর্ম করিয়ে থাকে রহিম হাজ্বী।

 

রহিম হাজ্বীর বিরুদ্ধে যত মামলাঃ

 

রহিম হাজ্বীর বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী,চাদাঁবাজি,লুটপাট,ভাংচুর,অগ্নিসংযোগসহ নানান অভিযোগে সিরাজ দিখান ও ফতুল্লা মডেল থানায় একাধিক মামলা রয়েছে যার কিছু তুলে ধরা হলো। জালাল মিয়া বাদী হয়ে গত ২০১৮ সালের ৮ জুলাই একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ৩১ ধারাঃ ১৪৩/৪৪৭/৪৪৮/৩২৩/৩৫৪/৩৮৫/১১৪/৫০৬ দঃবিঃ। ২০১৮ সালের ১০ জুলাই রাজিব বাদী হয়ে আরো একটি মামলা করেন মামলা নং-৪০ ধারাঃ ১৪৩/৪৪৭/৩২৩/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৪২৭/৫০৬ দঃবিঃ। ২০১৮ সালের ৯ আগষ্টের ঘটনাকে কেন্দ্র করে নাসিমা বেগম বাদী হয়ে মামলা নং-৫০ তারিখ ১২/৮/১৮ইং ধারাঃ ১৪৭/৪৪৮/২২৩/২২৪/২২৫/৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৩৮০/৪৪৬/৪২৭/৫০৬/১১৪ দঃবিঃ

 

এছাড়াও সেলিনা বেগম বাদী হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

 

রহিম হাজ্বীর রাজনৈতিক পরিচয়ঃ

 

রহিম হাজ্বী ও তার পরিবার বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী ও সামেদ আলীর অনুসারীরা। গত বিএনপির সময়ে রহিম হাজ্বী বাহিনী বক্তাবলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ সামেদ আলী পরিবার ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে লুটপাট, হামলাসহ নানান ভাবে হয়রানি করেছিল।

 

বিএনপি নেতাদের বক্তব্যঃ

 

বক্তাবলী ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি সুমন আকবরের কাছে মুঠোঁফোনে জানান রহিম হাজ্বী বিএনপি করে কিনা লিষ্টে নাম আছে কিনা? বলতে পারবোনা।

 

সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জুর আলী মন্জু বলেন,রহিম হাজ্বীর বিএনপির কোন পদ পদবী নাই। তারা কোন দলের সমর্থক হতে পারে সেটা তাদের মনের ব্যাপার।

 

রহিম হাজ্বী যা বললেনঃ

 

এ ব্যাপারে রহিম হাজ্বীর মুঠোঁফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমার বিরুদ্ধে করা সব অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট। আমি কারোর কাছ থেকে কোন টাকা পয়সা নেই নাই এবং কেউ আমার কাছে কোন টাকা-পয়সা পাবেনা।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» যশোরের বেনাপোলে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগে বার্ষিক ক্রীড়া কর্মসূচি ফুটবল প্রশিক্ষন

» আ’লীগ নেতা ভাড়াটে লাঠিয়াল দিয়ে জমি দখল দশমিনায় নারী-পুরুষসহ আহত-১৫

» গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর নির্বাচনী সভা

» গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় নদীর তীরে অবৈধ ভাবে মাটি কাটায় থানায় পাউবো,র অভিযোগ

» তাদের গন্তব্য ঢাকার ধানমন্ডি ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ভারতের ২১ সাইক্লিষ্টের শ্রদ্ধা নিবেদন

» রাণীনগরে রহিদুল আলমের উপর হামলাকারীদের বিচারের দাবিতে এলাকাবসীর মানববন্ধন

» গলাচিপা থেকে ছেড়ে যাওয়া বাসে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত-১ আহত ২৫

» মাশরাফি-মাহমুদউল্লাহর পারিশ্রমিক ৩৫ লাখ টাকা করে

» শৈলকুপায় নদী থেকে অবৈধভাবে মাটি ও বালু উত্তলোন করায় নদী ভাঙ্গনের কবলে বসতভিটা

» ঝিনাইদহ গোয়েন্দা পুলিশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান, গাঁজা ও ইয়াবাসহ চার জন গ্রেফতার

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৬ই ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বক্তাবলীর আকবরনগরের দুর্ধর্ষ রহিম হাজীর অজানা কাহিনী!

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

কুয়াকাটা নিউজ:- নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার বক্তাবলীর আকবর নগর গ্রামের সামেদ আলী হাজ্বীর প্রধান প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসী ও চাদাঁবাজ রহিম হাজ্বীর বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ ও একাধিক মামলা থাকা সত্বেও সব সময় রয়ে গেছে পুলিশী ধরা ছোয়াঁর বাইরে। বিএনপি – জামায়াতের রাজনীতির সাথে জড়িত রহিম হাজ্বীর উত্থান নিয়ে আজকের প্রতিবেদন।

 

কে এই রহিম হাজ্বীঃ

 

বক্তাবলীর আকবরনগর গ্রামের মৃত লতু খাঁর ৫ পুত্রের মধ্যে ৪র্থ রহিম খাঁ ওরফে হাজ্বী রহিম,লতু খাঁর অপর পুত্ররা হলেন লালু খাঁ,মৃত নুরুল ইসলাম,ফুলু মাদবর ও সুরুজ খা।

 

রহিম হাজ্বীর উত্থান যে ভাবেঃ

 

এক সময়ের কাচাঁ সব্জী বিক্রেতা ও ইটভাটার লেবার হতে অন্যের জমি জমা দখল করে রাতারাতি কয়েকটি ইটভাটা, একাধিক বাড়ি ও জমিজমার মালিক বনে যান। ফতুল্লার কোতালেরবাগে বহুতল ভবন,গ্রামের বাড়িতে ভবন ও ব্যাংকে কোটি কোটি টাকার মালিক বনে যান মাত্র ১৮/২০ বছরের ব্যবধানে।

 

রহিম হাজ্বীর সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্য যারাঃ

 

সুচতুর রহিম হাজ্বী তার ছেলে মামুন,মিলনকে শহরে রাখলেও তার আপন ভাতিজা নবী হোসেন ও তার মেয়ে কাকলীর স্বামী কবির হোসেনের নেতৃত্বে একটি সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তুলেছে। এ বাহিনীর সদস্যরা হলেন,কাদির,নজরুল,সানি,মান্না,সুরজা,সেরাজল,রিয়াজল,মজিবর,গফুঁর,রশিদ,হাসান উল্লেখ যোগ্য। এ বাহিনীর মাধ্যমে সন্ত্রাসী,চাদাঁবাজি,জমিজমা দখল সহ নানান অপকর্ম করিয়ে থাকে রহিম হাজ্বী।

 

রহিম হাজ্বীর বিরুদ্ধে যত মামলাঃ

 

রহিম হাজ্বীর বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী,চাদাঁবাজি,লুটপাট,ভাংচুর,অগ্নিসংযোগসহ নানান অভিযোগে সিরাজ দিখান ও ফতুল্লা মডেল থানায় একাধিক মামলা রয়েছে যার কিছু তুলে ধরা হলো। জালাল মিয়া বাদী হয়ে গত ২০১৮ সালের ৮ জুলাই একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ৩১ ধারাঃ ১৪৩/৪৪৭/৪৪৮/৩২৩/৩৫৪/৩৮৫/১১৪/৫০৬ দঃবিঃ। ২০১৮ সালের ১০ জুলাই রাজিব বাদী হয়ে আরো একটি মামলা করেন মামলা নং-৪০ ধারাঃ ১৪৩/৪৪৭/৩২৩/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৪২৭/৫০৬ দঃবিঃ। ২০১৮ সালের ৯ আগষ্টের ঘটনাকে কেন্দ্র করে নাসিমা বেগম বাদী হয়ে মামলা নং-৫০ তারিখ ১২/৮/১৮ইং ধারাঃ ১৪৭/৪৪৮/২২৩/২২৪/২২৫/৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৩৮০/৪৪৬/৪২৭/৫০৬/১১৪ দঃবিঃ

 

এছাড়াও সেলিনা বেগম বাদী হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

 

রহিম হাজ্বীর রাজনৈতিক পরিচয়ঃ

 

রহিম হাজ্বী ও তার পরিবার বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী ও সামেদ আলীর অনুসারীরা। গত বিএনপির সময়ে রহিম হাজ্বী বাহিনী বক্তাবলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ সামেদ আলী পরিবার ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে লুটপাট, হামলাসহ নানান ভাবে হয়রানি করেছিল।

 

বিএনপি নেতাদের বক্তব্যঃ

 

বক্তাবলী ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি সুমন আকবরের কাছে মুঠোঁফোনে জানান রহিম হাজ্বী বিএনপি করে কিনা লিষ্টে নাম আছে কিনা? বলতে পারবোনা।

 

সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জুর আলী মন্জু বলেন,রহিম হাজ্বীর বিএনপির কোন পদ পদবী নাই। তারা কোন দলের সমর্থক হতে পারে সেটা তাদের মনের ব্যাপার।

 

রহিম হাজ্বী যা বললেনঃ

 

এ ব্যাপারে রহিম হাজ্বীর মুঠোঁফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমার বিরুদ্ধে করা সব অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট। আমি কারোর কাছ থেকে কোন টাকা পয়সা নেই নাই এবং কেউ আমার কাছে কোন টাকা-পয়সা পাবেনা।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited