জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ন্যান্সির বিরুদ্ধে নেত্রকোনা থানায় মামলা

জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ন্যান্সি ও তার ছোট ভাই শাহরিয়ার আমান সানির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে নেত্রকোনায়। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন খান।বৃহস্পতিবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাতে ন্যান্সির ছোট ভাই সানির স্ত্রী সামিউন্নাহার শানু বাদী হয়ে নেত্রকোনা মডেল থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

 

এ ঘটনায় শুক্রবার (৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি’র ছোট ভাই স্বামী শাহারিয়ার আমান সানিকে সাতপাই পূর্বধলা রোডস্থ ন্যান্সি’র বাসা থেকে গ্রেফতার করেছে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ। শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাকে আদালতে সোপর্দ করা করা হয়েছে। নেত্রকোনা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন খান পূর্বপশ্চিমকে জানান, শাহারিয়ার আমান সানির বিরুদ্ধে গত ৬ সেপ্টেম্বর রাতে তার স্ত্রী সামিউন্নাহার শানু বাদী হয়ে যৌতুকের জন্য তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ এনে ১১ (খ) ধারায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। একই মামলায় ন্যান্সি ও তার স্বামী নাজিমুজ্জামান যায়েদকে নির্যাতনে উস্কানি দেয়ার অভিযোগ আনা করা হয়। তাদের ব্যাপারেও আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

 

মামলার বাদী সামিউন্নাহার শানু জানান, ২০১৫ সালে নেত্রকোনা সরকারি কলেজে পড়ার সময়ে সানির সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরই ধারাবাহিকতায় পারিবারিকভাবে সানির বোন ন্যান্সির প্রস্তাবে তার সাথে আমার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই সানি বেকারত্ব দেখিয়ে বোন ন্যান্সি ও বোন জামাই যায়েদের সহায়তায় ও উস্কানিতে বিভিন্ন সময়ে আমার পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকাসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র যৌতুক হিসেবে এনে দিতে বাধ্য করে। চলতি বছরের ২৬ আগষ্ট রাতে শানুকে তার পরিবারের কাছ থেকে আরও ৫ লক্ষ টাকা যৌতুক এনে দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে। শানু তাতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে নির্যাতন করা হয়।

 

শানু বলেন, আমি আর বাপের বাড়ী থেকে টাকা পয়সা এনে দিতে না পারার অপারগতা প্রকাশ করলে, সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার শিশুকন্যা সারাকে দুগ্ধ পান করানো অবস্থায় লাথি মেরে মেঝেতে ফেলে দেয়। আমাকে মারধর করে এক পর্যায়ে গলা টিপে শ্বাসরুদ্ধ হরে হত্যার চেষ্টা চালায়। এ সময় আমার চিৎকারে পাশের ঘরে থাকা সানির বন্ধুরা আমাকে উদ্ধার করে। বিষয়টি আমি তাৎক্ষনিক আমার পরিবারের লোকজনকে জানালে তারা পুলিশের সহায়তায় আমাকে উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদান করে।

 

শানু পূর্বপশ্চিমকে আরও বলেন, পুলিশের সহায়তায় পরিবারের লোকজন আমাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসার সময় সানি আমাকে তালাক দেওয়ারও হুমকি দেয়। আমি পাষণ্ড স্বামী সানির যৌতুকের দাবী ও অত্যাচার নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে নিরুপায় হয়ে মামলাটি দায়ের করেছি বলেও উল্লেখ করেছি। তবে এ ব্যাপারে ন্যান্সির সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» ঝিনাইদহে ‘জঙ্গি আস্তানায়’ র‌্যাবের অভিযান, রাইফেল উদ্ধার

» মিয়ানমারকে অবশ্যই রোহিঙ্গা নাগরিকদের নিজদেশে ফেরত নিতে হবে: ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত

» ১৩ ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাংক এ মুশফিকুর রহিম

» গণমাধ্যমে মন্তব্য করতে পারবেন না পর্যবেক্ষকরা

» পর্ন ওয়েবসাইট বন্ধ কি সম্ভব?

» ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার সামর্থ্য আমাদের আছে

» শিকাগোর হাসপাতালে বন্দুক হামলায় ৩ জন নিহত

» কুয়াকাটায় ২১ নভেম্বর থেকে তিনদিন ব্যাপী গঙ্গাস্নান ও রাসমেলা শুরু হবে

» কলাপাড়ায় বিপুল পরিমান জাটকা জব্দ

» বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবা ও চিকিৎসা খাতে উন্নয়ন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দ, ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ন্যান্সির বিরুদ্ধে নেত্রকোনা থানায় মামলা

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ন্যান্সি ও তার ছোট ভাই শাহরিয়ার আমান সানির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে নেত্রকোনায়। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন খান।বৃহস্পতিবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাতে ন্যান্সির ছোট ভাই সানির স্ত্রী সামিউন্নাহার শানু বাদী হয়ে নেত্রকোনা মডেল থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

 

এ ঘটনায় শুক্রবার (৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি’র ছোট ভাই স্বামী শাহারিয়ার আমান সানিকে সাতপাই পূর্বধলা রোডস্থ ন্যান্সি’র বাসা থেকে গ্রেফতার করেছে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশ। শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাকে আদালতে সোপর্দ করা করা হয়েছে। নেত্রকোনা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন খান পূর্বপশ্চিমকে জানান, শাহারিয়ার আমান সানির বিরুদ্ধে গত ৬ সেপ্টেম্বর রাতে তার স্ত্রী সামিউন্নাহার শানু বাদী হয়ে যৌতুকের জন্য তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ এনে ১১ (খ) ধারায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। একই মামলায় ন্যান্সি ও তার স্বামী নাজিমুজ্জামান যায়েদকে নির্যাতনে উস্কানি দেয়ার অভিযোগ আনা করা হয়। তাদের ব্যাপারেও আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

 

মামলার বাদী সামিউন্নাহার শানু জানান, ২০১৫ সালে নেত্রকোনা সরকারি কলেজে পড়ার সময়ে সানির সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরই ধারাবাহিকতায় পারিবারিকভাবে সানির বোন ন্যান্সির প্রস্তাবে তার সাথে আমার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই সানি বেকারত্ব দেখিয়ে বোন ন্যান্সি ও বোন জামাই যায়েদের সহায়তায় ও উস্কানিতে বিভিন্ন সময়ে আমার পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকাসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র যৌতুক হিসেবে এনে দিতে বাধ্য করে। চলতি বছরের ২৬ আগষ্ট রাতে শানুকে তার পরিবারের কাছ থেকে আরও ৫ লক্ষ টাকা যৌতুক এনে দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে। শানু তাতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে নির্যাতন করা হয়।

 

শানু বলেন, আমি আর বাপের বাড়ী থেকে টাকা পয়সা এনে দিতে না পারার অপারগতা প্রকাশ করলে, সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার শিশুকন্যা সারাকে দুগ্ধ পান করানো অবস্থায় লাথি মেরে মেঝেতে ফেলে দেয়। আমাকে মারধর করে এক পর্যায়ে গলা টিপে শ্বাসরুদ্ধ হরে হত্যার চেষ্টা চালায়। এ সময় আমার চিৎকারে পাশের ঘরে থাকা সানির বন্ধুরা আমাকে উদ্ধার করে। বিষয়টি আমি তাৎক্ষনিক আমার পরিবারের লোকজনকে জানালে তারা পুলিশের সহায়তায় আমাকে উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদান করে।

 

শানু পূর্বপশ্চিমকে আরও বলেন, পুলিশের সহায়তায় পরিবারের লোকজন আমাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসার সময় সানি আমাকে তালাক দেওয়ারও হুমকি দেয়। আমি পাষণ্ড স্বামী সানির যৌতুকের দাবী ও অত্যাচার নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে নিরুপায় হয়ে মামলাটি দায়ের করেছি বলেও উল্লেখ করেছি। তবে এ ব্যাপারে ন্যান্সির সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited