জাবির ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু

সাগর কর্মকার, জাবি প্রতিনিধি:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের প্রথমবর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু হয়েছে। যা চলবে ১৬ সেপ্টেম্বর রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।ইতোমধ্যে ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু হয়েছে। গতবারের মতো এবারও ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইআইটি) অনলাইন ভর্তি রেজিস্ট্রেশন পরিচালনা করবে।

আবেদন ফি পরিশোধের শেষ তারিখ :
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ রাত ১১:৫৯ মিনিট
প্রবেশপত্র সংগ্রহের শেষ তারিখ :
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ রাত ১১:৫৯ মিনিট
আবেদন করতে হবে অনলাইনে, ফি প্রদান করতে হবে Bkash অথবা Rocket এর মাধ্যমে।
আবেদন ফি :
A, B, C, D, E ইউনিট – ৫৫০ টাকা করে প্রতি ইউনিট ;
C1, F, G, I, H ইউনিট – ৩৫০ টাকা করে প্রতি ইউনিট।
* ২০১৫ সাল এবং তার পরবর্তী বছর সমূহে মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ন এবং ২০১৭ ও ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত উচ্চমাধ্যমিক/ সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ এবং উপরোক্ত যোগ্যতাসম্পন্ন ছাত্র- ছাত্রীগণ জাবিতে আবেদন করতে পারবে।
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে রেজাল্ট এর উপর মাত্র ২০ নাম্বার। SSC রেজাল্ট কে ১.৫ দ্বারা গুণ করা হয়। HSC রেজাল্ট কে ২.৫ দ্বারা গুণ করা হয়।
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা :
A Unit (গাণিতিক ও পদার্থবিষয়ক অনুষদ) : বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে। মোট জিপিএ কমপক্ষে ৭.৫০ হতে হবে উচ্চমাধ্যমিকে পরিসংখ্যান / গণিতে B গ্রেড
B Unit ( সমাজবিজ্ঞান অনুষদ ) :
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান / কৃষি শাখা :
মোট জিপিএ কমপক্ষে ৭.৫০ হতে হবে
উচ্চমাধ্যমিক ব্যবসায় শিক্ষা / মানবিক / অন্যান্য : মোট জিপিএ কমপক্ষে ৭.০০ হতে হবে । উচ্চমাধ্যমিকে বাংলা অথবা ইংরেজিতে B গ্রেড।
C Unit ( কলা ও মানবিকী অনুষদ ) :
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক মানবিক শাখা :
মোট জিপিএ : ৬.০০, উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান / ব্যবসায় শিক্ষা / অন্যান্য :
মোট জিপিএ : ৭.০০
উচ্চমাধ্যমিকে বাংলা এবং ইংরেজিতে বি গ্রেড। অথবা বাংলায় A- ( মাইনাস) গ্রেড থাকলে ইংরেজি তে D গ্রেড থাকলেও পরীক্ষা দিতে পারবে।
C1 ইউনিট ( নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ এবং চারুকলা বিভাগ )
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে। বিজ্ঞান / মানবিক / ব্যবসায় শিক্ষা / অন্যান্য শাখা :
মোট জিপিএ : ৬.০০
বাংলায় B গ্রেড ।
D Unit ( জীববিজ্ঞান অনুষদ ) :
বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে।মোট জিপিএ ৮.০০,উচ্চমাধ্যমিকে জীববিজ্ঞানে A- ( A মাইনাস )
E ইউনিট ( বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ ) :
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক ব্যবসায় শিক্ষা/ মানবিক ও অন্যান্য শাখাঃ মোট জিপিএ ৭.০০।উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান শাখাঃ মোট জিপিএ ৭.৫০,উচ্চমাধ্যমিকে ইংরেজি এবং গণিত/অর্থনীতি/ হিসাববিজ্ঞান/ ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনায় বি গ্রেড।

F ইউনিট ( আইন অনুষদ )
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান/মানবিক/
ব্যবসায় শিক্ষা/ অন্যান্য শাখাঃ মোট জিপিএ ৮.০০, উচ্চমাধ্যমিকে বাংলায় এবং ইংরেজিতে B গ্রেড।
G ইউনিট ( ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ( IBA – JU ) :
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৪.০০ পেতে হবে।
উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান শাখাঃ মোট জিপিএ ৮.৫০। উচ্চমাধ্যমিকে গণিত এবং ইংরেজিতে এ- (মাইনাস) গ্রেড।
উচ্চমাধ্যমিক মানবিক/ ব্যবসায় শিক্ষা/ অন্যান্য শাখাঃ মোট জিপিএ ৮.০০
* উচ্চমাধ্যমিকে ইংরেজিতে এবং হিসাববিজ্ঞান/অর্থনীতি/গণিত / ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনায় এ- (মাইনাস) গ্রেড।
H ইউনিটঃ ( ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি – IIT )
বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে।
মোট জিপিএ ৮.০০ থাকতে হবে
উচ্চমাধ্যমিকে গনিতে এবং পদার্থ বিজ্ঞানে A গ্রেড থাকতে হবে।
I ইউনিট ( বঙ্গবন্ধু তুলনামূলক সাহিত্য ও সংস্কৃতি ইনস্টিটিউট ) : SSC , HSC উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিন্ম জিপিএ ৩.০০ থাকতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক মানবিক শাখাঃ মোট জিপিএ ৭.০০। উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান/ব্যবসায় শিক্ষা/ অন্যান্য শাখাঃ মোট জিপিএ ৭.৫০ । উচ্চমাধ্যমিকে বাংলায় এবং ইংরেজিতে B গ্রেড।
বিঃদ্রঃ সকল ইউনিটের ক্ষেত্রেই ৪র্থ বিষয়সহ জিপিএ হিসাব করা হবে ।
উল্লেখ্য ,বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা সকল ইউনিটেই পরীক্ষা দিতে পারবে । মানবিক, ব্যবসায় শিক্ষা , মাদ্রাসা ও অন্যান্য শাখার শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারবে – B , C , C1 , E , F , G , I এই ৭ ইউনিটে ।
জাহাঙ্গীরনগর_বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার ইউনিট ভিত্তিক মানবণ্টন :
# A_Unit ( গাণিতিক ও পদার্থবিষয়ক অনুষদ ) : গণিত – ২২ , পদার্থবিজ্ঞান – ২২ , রসায়ন – ২২ , বাংলা – ৩ , ইংরেজি – ৩ , বুদ্ধিমত্তা ( IQ ) – ৮
B_Unit ( সমাজবিজ্ঞান অনুষদ ) :
বাংলা – ১০, ইংরেজি – ১৫ , গণিত – ১৫ , সাধারণ জ্ঞান – ২৫ , বুদ্ধিমত্তা ( IQ ) – ১৫
C_Unit ( কলা ও মানবিকী অনুষদ ) :
বাংলা – ১৫ , ইংরেজি – ১৫ , দর্শন বা IQ – ১০ , সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম ( মিডিয়া ) সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ১০ , ইতিহাস – ১০ , প্রত্নতত্ব সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ১০ , আন্তর্জাতিক সম্পর্ক সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ১০
C1_Unit ( নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ এবং চারুকলা বিভাগ) :
বাংলা – ১০ , ইংরেজি – ১০ , নাটক সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ৩০ , চারুকলা সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ৩০
D_Unit ( জীববিজ্ঞান অনুষদ ) :
বাংলা + ইংরেজি = ৮ , রসায়ন = ২৪ , উদ্ভিদবিজ্ঞান – ২২, প্রাণিবিদ্যা – ২২ এবং বুদ্ধিমত্তা ( IQ ) – ৪
E_Unit ( বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ ) :
বাংলা – ১৫, ইংরেজি – ৩০ , গণিত – ১৫ এবং হিসাববিজ্ঞান এবং ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা – ২০ নাম্বার
F_Unit ( আইন অনুষদ ) :
বাংলা – ২৫ , ইংরেজি – ২৫ , সাম্প্রতিক বিষয় ও বুদ্ধিমত্তা ( IQ) – ৩০
G_Unit ( ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ( IBA – JU ) :
বাংলা – ৫, ইংরেজি – ৩০ , Mathematical Aptitude & IQ – ৩০ , সাম্প্রতিক ও বিশ্লেষণমূলক বিষয় – ১০ এবং ভাইভা – ৫
H_Unit ( ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইআইটি) :
বাংলা – ৫ , ইংরেজি – ১৫ , গণিত – ৪০ , পদার্থবিজ্ঞান – ২০
I Unit (বঙ্গবন্ধু তুলনামূলক সাহিত্য ও সংস্কৃতি ইনস্টিটিউট) :
বাংলা – ১৫ , ইংরেজি – ১৫ , বিশ্বসাহিত্য – ১০, সাধারণ জ্ঞান – ১০, সংস্কৃতি – ৫ , নৃবিজ্ঞান – ৫ , প্রত্নতত্ত্ব – ৫ , বঙ্গবন্ধু-মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ – ১০ , ইতিহাস-ঐতিহ্য – ৫
আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য :
.
১। সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ডের শিক্ষার্থীরা জাবির সকল ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবে।
২। কমার্স এবং আর্টস ব্যাকগ্রাউন্ডের শিক্ষার্থীরা B, C, C1, E, F, G, I ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবে।
৩। C ইউনিট এবং C1 ইউনিট দুইটা সম্পুর্ন আলাদা ইউনিট হিসেবে বিবেচিত হবে। এবং দুইটা ইউনিটে পৃথক পৃথক ভাবে ফর্ম তুলতে হবে।
৪। F এবং G ইউনিটের বাংলা ব্যতীত অন্যান্য বিষয়ের প্রশ্নপত্র ইংরেজীতে হবে, Climax জাবি ভর্তি সহায়িকা থেকে প্রশ্ন সম্পর্কে ধারনা নিতে পারেন।
৫। A, B, C, C1, E, D এবং H ইউনিটের প্রশ্ন বাংলায় হবে।
৬। B ইউনিটে জেনারেল ম্যাথ এবং E+G ইউনিটে BBA ম্যাথ থেকে প্রশ্ন আসে।
৭। G ইউনিটে ৭৫ মার্কের MCQ পরীক্ষা হবে। পরীক্ষার সময় ৫৫ মিনিট। পরবর্তীতে ৫ মার্কের ভাইভা হবে।
৮। C1 ইউনিটে ৮০ মার্কের MCQ পরীক্ষা হবে। পরীক্ষার সময় ৫৫ মিনিট। পরবর্তীতে ২০ মার্কের ব্যবহারিক পরীক্ষা নেয়া হবে।
৯। অন্যান্য সকল ইউনিটে ৮০ মার্কের MCQ পরীক্ষা হবে। পরীক্ষার সময় ৫৫ মিনিট।
১০। সকল ইউনিটের MCQ পরীক্ষায় মোট পাশমার্ক ৩৩%। তবে C ইউনিটে ইংরেজি পেতে হলে ইংরেজি তে ১৫ এর মধ্যে কমপক্ষে ৭ পেতে হবে।
১১। সাবজেক্ট ভিত্তিক আলাদা পাশমার্ক নেই। তবে C ইউনিটে ইংরেজি পেতে হলে ইংরেজি তে ১৫ এর মধ্যে কমপক্ষে ৭ পেতে হবে।
১২। G ইউনিটের Viva তে পাশমার্ক ৩৫%।
১৩। C1 ইউনিটের ব্যবহারিক পরীক্ষায় পাশমার্ক ৪০%।
১৪) ভর্তি পরীক্ষা শুধুমাত্র ক্যাম্পাসেই হয়। প্রতিটা ইউনিটকে কয়েকটা শিফটে ভাগ করে পরীক্ষা নেয়া হবে। সকল শিফটে প্রশ্ন আলাদা হয়। তবে প্রশ্নের স্ট্যান্ডার্ড সেইম থাকে।
১৫। ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে না।
১৬। সাবজেক্ট চয়েজ, কোটা সংক্রান্ত সকল কাজ মেরিট/ওয়েটিং লিস্টে নাম আসার পর।
ভর্তি পরীক্ষার তারিখ :
৩০-০৯-২০১৮ থেকে ১১-১০-২০১৮ তারিখ পর্যন্ত (বিস্তারিত সময়সূচি ও আসনবন্টন পরবর্তীতে সংবাদপত্র এবং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানানো হবে)। A ইউনিট ও D ইউনিটের পরীক্ষা ( ৩০/৯/১৮ থেকে ২/১০/১৮ এর মধ্যে হবে ; বাকি ইউনিট গুলোর পরীক্ষা ( ৩/১০/১৮ থেকে ১১-১০-২০১৮ তারিখ এর মধ্যে হবে, (তবে ০৫ অক্টোবর,শুক্রবার এবং ০৬ অক্টোবর, শনিবার বাদে, কারণ জাবিতে কখনোই শুক্রবার ও শনিবার ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়না )কোনো ধরনের জটিলতা তৈরি না হলে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হতে যাচ্ছে। চলবে ১১ অক্টোবর পর্যন্ত। বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েবসাইটে- juniv.edu পাওয়া যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন:
image_print

সর্বশেষ আপডেট



» ফতুল্লায় সতীন ও স্বামী অত্যাচারে অতিষ্ঠ সীমা

» ফতুল্লায় ২৭১পিস ইয়াবা ১২০গ্রাম গাঁজাসহ- ৬

» মোনালিসা হত্যা মামলার আসামি দুবাই গ্রেফতার” আনা হলো ফতুল্লায়

» ফতুল্লা থানা ইসলামী ছাত্রসেনা কমিটির উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

» নওগাঁয় শীতকালিন আগাম শিম চাষে লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা দিন দিন বাড়ছে আবাদ

» স্বামীর অমানষিক নির্যাতনের শিকার গৃহবধু সেতু নওগাঁ হাসপাতালে

» রাজাপুরে নির্বাচনী সরগরমে আওয়ামী’র অবস্থান ভাল, নৌকার মাঝি হবে ৪ জনে ১ জন

» পাচার হয়ে আসা ভারতীয় কম মূল্যের নিম্নমানের চা-পাতি ছড়িয়ে পড়ছে

» ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার

» ঝিনাইদহে দুর্ঘটনা রোধে পরিবহন চালক ও হেলপারদের প্রশিক্ষন কর্মশালা অনুষ্ঠিত

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
Email: info@kuakatanews.com
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দ, ৮ই আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জাবির ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু

সাগর কর্মকার, জাবি প্রতিনিধি:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের প্রথমবর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু হয়েছে। যা চলবে ১৬ সেপ্টেম্বর রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।ইতোমধ্যে ভর্তি পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু হয়েছে। গতবারের মতো এবারও ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইআইটি) অনলাইন ভর্তি রেজিস্ট্রেশন পরিচালনা করবে।

আবেদন ফি পরিশোধের শেষ তারিখ :
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ রাত ১১:৫৯ মিনিট
প্রবেশপত্র সংগ্রহের শেষ তারিখ :
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ রাত ১১:৫৯ মিনিট
আবেদন করতে হবে অনলাইনে, ফি প্রদান করতে হবে Bkash অথবা Rocket এর মাধ্যমে।
আবেদন ফি :
A, B, C, D, E ইউনিট – ৫৫০ টাকা করে প্রতি ইউনিট ;
C1, F, G, I, H ইউনিট – ৩৫০ টাকা করে প্রতি ইউনিট।
* ২০১৫ সাল এবং তার পরবর্তী বছর সমূহে মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ন এবং ২০১৭ ও ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত উচ্চমাধ্যমিক/ সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ এবং উপরোক্ত যোগ্যতাসম্পন্ন ছাত্র- ছাত্রীগণ জাবিতে আবেদন করতে পারবে।
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে রেজাল্ট এর উপর মাত্র ২০ নাম্বার। SSC রেজাল্ট কে ১.৫ দ্বারা গুণ করা হয়। HSC রেজাল্ট কে ২.৫ দ্বারা গুণ করা হয়।
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা :
A Unit (গাণিতিক ও পদার্থবিষয়ক অনুষদ) : বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে। মোট জিপিএ কমপক্ষে ৭.৫০ হতে হবে উচ্চমাধ্যমিকে পরিসংখ্যান / গণিতে B গ্রেড
B Unit ( সমাজবিজ্ঞান অনুষদ ) :
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান / কৃষি শাখা :
মোট জিপিএ কমপক্ষে ৭.৫০ হতে হবে
উচ্চমাধ্যমিক ব্যবসায় শিক্ষা / মানবিক / অন্যান্য : মোট জিপিএ কমপক্ষে ৭.০০ হতে হবে । উচ্চমাধ্যমিকে বাংলা অথবা ইংরেজিতে B গ্রেড।
C Unit ( কলা ও মানবিকী অনুষদ ) :
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক মানবিক শাখা :
মোট জিপিএ : ৬.০০, উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান / ব্যবসায় শিক্ষা / অন্যান্য :
মোট জিপিএ : ৭.০০
উচ্চমাধ্যমিকে বাংলা এবং ইংরেজিতে বি গ্রেড। অথবা বাংলায় A- ( মাইনাস) গ্রেড থাকলে ইংরেজি তে D গ্রেড থাকলেও পরীক্ষা দিতে পারবে।
C1 ইউনিট ( নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ এবং চারুকলা বিভাগ )
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে। বিজ্ঞান / মানবিক / ব্যবসায় শিক্ষা / অন্যান্য শাখা :
মোট জিপিএ : ৬.০০
বাংলায় B গ্রেড ।
D Unit ( জীববিজ্ঞান অনুষদ ) :
বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে।মোট জিপিএ ৮.০০,উচ্চমাধ্যমিকে জীববিজ্ঞানে A- ( A মাইনাস )
E ইউনিট ( বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ ) :
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক ব্যবসায় শিক্ষা/ মানবিক ও অন্যান্য শাখাঃ মোট জিপিএ ৭.০০।উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান শাখাঃ মোট জিপিএ ৭.৫০,উচ্চমাধ্যমিকে ইংরেজি এবং গণিত/অর্থনীতি/ হিসাববিজ্ঞান/ ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনায় বি গ্রেড।

F ইউনিট ( আইন অনুষদ )
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান/মানবিক/
ব্যবসায় শিক্ষা/ অন্যান্য শাখাঃ মোট জিপিএ ৮.০০, উচ্চমাধ্যমিকে বাংলায় এবং ইংরেজিতে B গ্রেড।
G ইউনিট ( ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ( IBA – JU ) :
মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৪.০০ পেতে হবে।
উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান শাখাঃ মোট জিপিএ ৮.৫০। উচ্চমাধ্যমিকে গণিত এবং ইংরেজিতে এ- (মাইনাস) গ্রেড।
উচ্চমাধ্যমিক মানবিক/ ব্যবসায় শিক্ষা/ অন্যান্য শাখাঃ মোট জিপিএ ৮.০০
* উচ্চমাধ্যমিকে ইংরেজিতে এবং হিসাববিজ্ঞান/অর্থনীতি/গণিত / ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনায় এ- (মাইনাস) গ্রেড।
H ইউনিটঃ ( ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি – IIT )
বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিম্ন জিপিএ ৩.৫০ পেতে হবে।
মোট জিপিএ ৮.০০ থাকতে হবে
উচ্চমাধ্যমিকে গনিতে এবং পদার্থ বিজ্ঞানে A গ্রেড থাকতে হবে।
I ইউনিট ( বঙ্গবন্ধু তুলনামূলক সাহিত্য ও সংস্কৃতি ইনস্টিটিউট ) : SSC , HSC উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে সর্বনিন্ম জিপিএ ৩.০০ থাকতে হবে। উচ্চমাধ্যমিক মানবিক শাখাঃ মোট জিপিএ ৭.০০। উচ্চমাধ্যমিক বিজ্ঞান/ব্যবসায় শিক্ষা/ অন্যান্য শাখাঃ মোট জিপিএ ৭.৫০ । উচ্চমাধ্যমিকে বাংলায় এবং ইংরেজিতে B গ্রেড।
বিঃদ্রঃ সকল ইউনিটের ক্ষেত্রেই ৪র্থ বিষয়সহ জিপিএ হিসাব করা হবে ।
উল্লেখ্য ,বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা সকল ইউনিটেই পরীক্ষা দিতে পারবে । মানবিক, ব্যবসায় শিক্ষা , মাদ্রাসা ও অন্যান্য শাখার শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারবে – B , C , C1 , E , F , G , I এই ৭ ইউনিটে ।
জাহাঙ্গীরনগর_বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার ইউনিট ভিত্তিক মানবণ্টন :
# A_Unit ( গাণিতিক ও পদার্থবিষয়ক অনুষদ ) : গণিত – ২২ , পদার্থবিজ্ঞান – ২২ , রসায়ন – ২২ , বাংলা – ৩ , ইংরেজি – ৩ , বুদ্ধিমত্তা ( IQ ) – ৮
B_Unit ( সমাজবিজ্ঞান অনুষদ ) :
বাংলা – ১০, ইংরেজি – ১৫ , গণিত – ১৫ , সাধারণ জ্ঞান – ২৫ , বুদ্ধিমত্তা ( IQ ) – ১৫
C_Unit ( কলা ও মানবিকী অনুষদ ) :
বাংলা – ১৫ , ইংরেজি – ১৫ , দর্শন বা IQ – ১০ , সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম ( মিডিয়া ) সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ১০ , ইতিহাস – ১০ , প্রত্নতত্ব সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ১০ , আন্তর্জাতিক সম্পর্ক সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ১০
C1_Unit ( নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ এবং চারুকলা বিভাগ) :
বাংলা – ১০ , ইংরেজি – ১০ , নাটক সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ৩০ , চারুকলা সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান – ৩০
D_Unit ( জীববিজ্ঞান অনুষদ ) :
বাংলা + ইংরেজি = ৮ , রসায়ন = ২৪ , উদ্ভিদবিজ্ঞান – ২২, প্রাণিবিদ্যা – ২২ এবং বুদ্ধিমত্তা ( IQ ) – ৪
E_Unit ( বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ ) :
বাংলা – ১৫, ইংরেজি – ৩০ , গণিত – ১৫ এবং হিসাববিজ্ঞান এবং ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা – ২০ নাম্বার
F_Unit ( আইন অনুষদ ) :
বাংলা – ২৫ , ইংরেজি – ২৫ , সাম্প্রতিক বিষয় ও বুদ্ধিমত্তা ( IQ) – ৩০
G_Unit ( ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ( IBA – JU ) :
বাংলা – ৫, ইংরেজি – ৩০ , Mathematical Aptitude & IQ – ৩০ , সাম্প্রতিক ও বিশ্লেষণমূলক বিষয় – ১০ এবং ভাইভা – ৫
H_Unit ( ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইআইটি) :
বাংলা – ৫ , ইংরেজি – ১৫ , গণিত – ৪০ , পদার্থবিজ্ঞান – ২০
I Unit (বঙ্গবন্ধু তুলনামূলক সাহিত্য ও সংস্কৃতি ইনস্টিটিউট) :
বাংলা – ১৫ , ইংরেজি – ১৫ , বিশ্বসাহিত্য – ১০, সাধারণ জ্ঞান – ১০, সংস্কৃতি – ৫ , নৃবিজ্ঞান – ৫ , প্রত্নতত্ত্ব – ৫ , বঙ্গবন্ধু-মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ – ১০ , ইতিহাস-ঐতিহ্য – ৫
আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য :
.
১। সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ডের শিক্ষার্থীরা জাবির সকল ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবে।
২। কমার্স এবং আর্টস ব্যাকগ্রাউন্ডের শিক্ষার্থীরা B, C, C1, E, F, G, I ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবে।
৩। C ইউনিট এবং C1 ইউনিট দুইটা সম্পুর্ন আলাদা ইউনিট হিসেবে বিবেচিত হবে। এবং দুইটা ইউনিটে পৃথক পৃথক ভাবে ফর্ম তুলতে হবে।
৪। F এবং G ইউনিটের বাংলা ব্যতীত অন্যান্য বিষয়ের প্রশ্নপত্র ইংরেজীতে হবে, Climax জাবি ভর্তি সহায়িকা থেকে প্রশ্ন সম্পর্কে ধারনা নিতে পারেন।
৫। A, B, C, C1, E, D এবং H ইউনিটের প্রশ্ন বাংলায় হবে।
৬। B ইউনিটে জেনারেল ম্যাথ এবং E+G ইউনিটে BBA ম্যাথ থেকে প্রশ্ন আসে।
৭। G ইউনিটে ৭৫ মার্কের MCQ পরীক্ষা হবে। পরীক্ষার সময় ৫৫ মিনিট। পরবর্তীতে ৫ মার্কের ভাইভা হবে।
৮। C1 ইউনিটে ৮০ মার্কের MCQ পরীক্ষা হবে। পরীক্ষার সময় ৫৫ মিনিট। পরবর্তীতে ২০ মার্কের ব্যবহারিক পরীক্ষা নেয়া হবে।
৯। অন্যান্য সকল ইউনিটে ৮০ মার্কের MCQ পরীক্ষা হবে। পরীক্ষার সময় ৫৫ মিনিট।
১০। সকল ইউনিটের MCQ পরীক্ষায় মোট পাশমার্ক ৩৩%। তবে C ইউনিটে ইংরেজি পেতে হলে ইংরেজি তে ১৫ এর মধ্যে কমপক্ষে ৭ পেতে হবে।
১১। সাবজেক্ট ভিত্তিক আলাদা পাশমার্ক নেই। তবে C ইউনিটে ইংরেজি পেতে হলে ইংরেজি তে ১৫ এর মধ্যে কমপক্ষে ৭ পেতে হবে।
১২। G ইউনিটের Viva তে পাশমার্ক ৩৫%।
১৩। C1 ইউনিটের ব্যবহারিক পরীক্ষায় পাশমার্ক ৪০%।
১৪) ভর্তি পরীক্ষা শুধুমাত্র ক্যাম্পাসেই হয়। প্রতিটা ইউনিটকে কয়েকটা শিফটে ভাগ করে পরীক্ষা নেয়া হবে। সকল শিফটে প্রশ্ন আলাদা হয়। তবে প্রশ্নের স্ট্যান্ডার্ড সেইম থাকে।
১৫। ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে না।
১৬। সাবজেক্ট চয়েজ, কোটা সংক্রান্ত সকল কাজ মেরিট/ওয়েটিং লিস্টে নাম আসার পর।
ভর্তি পরীক্ষার তারিখ :
৩০-০৯-২০১৮ থেকে ১১-১০-২০১৮ তারিখ পর্যন্ত (বিস্তারিত সময়সূচি ও আসনবন্টন পরবর্তীতে সংবাদপত্র এবং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানানো হবে)। A ইউনিট ও D ইউনিটের পরীক্ষা ( ৩০/৯/১৮ থেকে ২/১০/১৮ এর মধ্যে হবে ; বাকি ইউনিট গুলোর পরীক্ষা ( ৩/১০/১৮ থেকে ১১-১০-২০১৮ তারিখ এর মধ্যে হবে, (তবে ০৫ অক্টোবর,শুক্রবার এবং ০৬ অক্টোবর, শনিবার বাদে, কারণ জাবিতে কখনোই শুক্রবার ও শনিবার ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়না )কোনো ধরনের জটিলতা তৈরি না হলে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হতে যাচ্ছে। চলবে ১১ অক্টোবর পর্যন্ত। বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েবসাইটে- juniv.edu পাওয়া যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন:
image_print

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
Email: info@kuakatanews.com
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited