রাজাপুরে শিশু রাকিব হত্যা মামলা: আসামীরা বাদী ও সাক্ষীদের বিভিন্ন সময় প্রান নাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: শিশু রাকিব (৯) হত্যা মামলার আসাসিদের বিরুদ্ধে বাদী ও সাক্ষীদের প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের (বিএমএসএফ) ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ জানানো হয়।

 

রাকিবের বাবা ও মামলাটির বাদী বাবুল হাওলাদার অভিযোগ করেন, গত বছরের ১৩ জুলাই বৃহস্পতিবার আমার নাবালক ছেলে মো. রাকিব নিখোঁজ হওয়ার একদিন পর প্রতিপক্ষ মীর নূরুল ইসলামের বাড়ির দক্ষিণ পাশ থেকে রাকিবের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। তার শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন ছিল।

 

এ ঘটনায় আমি রাজাপুর থানায় বাদি হয়ে নিজ গালুয়া গ্রামের মৃত মীর আহম্মেদ আলীর ছেলে মীর নুরুল ইসলাম (৪৫) কে প্রধান আসামি করে ৪ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক ও তিন জনকে অজ্ঞাত করে ২২ জুলাই ২০১৭ তারিখ মামলা দায়ের করি।মামলার অন্যান্য আসামিরা হলো একই এলাকার মীর নূরুল ইসলামের ছেলে মীর রিয়াদ হোসেন (২৪), মীর মেহেদী হাসান রাব্বী (২৭) , মীর নূরুল ইসলামের স্ত্রী মোসা. নিরু বেগম (৪৫)। উক্ত মামলা হওয়ার পর থেকেই মামলার বিবাদী মো. মীর নূরুল ইসলাম আমাদেরকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছে।

 

তারা হুমকি দিয়ে বলে, সুরাতহাল রিপোর্ট আমরা আসতেই দিবো না, কিভাবে তোরা আমাদের সাথে পারবি এবং মামলা কিভাবে চালাবি দেখে নিব। এরই ধারাবাহিকতায় মামলার সাক্ষীদের বিভিন্ন সময় প্রাণনাশের হুমকি, এমনকি পথ রোধ করে মারধরও করে। আসামিদের হুমকিধামকি থেকে বাঁচার জন্য ঝালকাঠির আদালতে সাত ধারায় মামলা দায়ের করি। আমাদেরকে মামলা তুলে নিতে বললেও আমরা মামলা তুলে না নেয়া কারণে আসামিরা ভিন্ন পন্থায় আমাদেরকে মিথ্যা দুইটি মামলা দিয়ে হয়রানি করে যাচ্ছে।

 

এ অবস্থায় আমি প্রশাসনের উর্দ্ধতন মহলের কাছে আমার ছেলে রাকিব হোসেনের হত্যার ঘটনার পুনরায় সুষ্ঠ তদন্ত করে অপরাধীদের বিরুদ্ধে অইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি।একই সাথে, আমারা যেন মামলা ও হামলা থেকে রক্ষা পেতে পারি তার জন্য প্রশাসনের উর্দ্ধতন মহলের কাছে আমার আকুল আবেদন জানাচ্ছি।