দেশে চিরতরে প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধ করতে হবে-দুদক চেয়ারম্যান

মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম: দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, দেশে চিরতরে প্রশ্নপত্র ফাঁস ও কোচিং সেন্টার বন্ধের জন্য সরকারের প্রতি তাগিদ দিয়েছেন।

 

আজ শনিবার(৩১ মার্চ ২০১৮) ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ‘সততা সংঘের সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান’ শিরোনামের এক আয়োজনে এ আহ্বান জানান তিনি। ‘বন্ধ হলে দুর্নীতি, উন্নয়নে আসবে গতি’-এ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে শুরু হওয়া দুর্নীতি প্রতিরোধ সপ্তাহ ২০১৮-এর ষষ্ঠ দিন ছিল আজ।

 

তরুণ প্রজন্মের মধ্যে সততা, নিষ্ঠাবোধ ও চারিত্রিক দৃঢ়তা সৃষ্টি, দুর্নীতির বিরুদ্ধে তীব্র ঘৃণা সৃষ্টি সর্বোপরি গণসচেতনতা গড়ে তোলার কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করার উদ্দেশ্যে দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি দেশের স্কুল,  মাদ্রাসা, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রাবাস এবং প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ইত্যাদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রায় ২৫ হাজার সততা সংঘ গঠন করেছে। দেশের কোচিং সেন্টরগুলো অবৈধ ও দুর্নীতির আখড়া বলে মন্তব্য করে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে এসব কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধ করতে হবে।

কোচিং সেন্টারের দুর্নীতি বন্ধ করতে দুদক বদ্ধপরিকর বলেও জানান তিনি। সরকারের উদ্দেশে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমরা সরকারের কাছে আহ্বান জানাই আগামী প্রজন্মের জন্য সর্বশক্তি দিয়ে যেকোনো মূল্যে সম্মিলিতভাবে বাংলাদেশে প্রশ্নপত্র ফাঁস এবং কোচিং বাণিজ্য চিরতরে বন্ধ করতে হবে। আমাদের সন্তানরা সারা দিন কোচিং সেন্টারে সেন্টারে ঘুরে বেড়াবে তা হতে পারে না।’সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন ‘বাংলাদেশের সব কোচিং সেন্টার অবৈধ’। মন্ত্রীর এই বক্তব্যের সঙ্গে সহমত পোষণ করে দুদক-প্রধান বলেন, ‘আমরা বলতে চাই সব কোচিং সেন্টর শুধু অবৈধ নয় দুর্নীতির আখড়াও।

 

আমরা সরকার, ছাত্র-শিক্ষক, অভিভাবক সবাইকে অনুরোধ জানাই- আসুন, এই অবৈধ ও দুর্নীতিগ্রস্ত কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধ করার উদ্যোগ নিই।’ শিক্ষিত জাতি গঠনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা শিক্ষকদের এ ক্ষেত্রে প্রথমে এগিয়ে আসতে হবে বলে মনে করেন ইকবাল মাহমুদ। তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের সুযোগ-সুবিধা, সামাজিক মর্যাদা, বেতন বৃদ্ধিসহ সব ধরনের উন্নয়নে দুদক পাশে থাকবে। তবে আপনারা শ্রেণিকক্ষে এমন শিক্ষার ব্যবস্থা করুন যাতে আমাদের সন্তানদের কোচিং সেন্টারে যেতে না হয়।’ শিক্ষকদের কোচিং-বাণিজ্য থেকে বেরিয়ে আসার অনুরোধ জানানোর পাশাপাশি দুদক চেয়ারম্যান সরকারের উদ্দেশে শিক্ষকদের বেতন-ভাতা, মর্যাদা আরও বাড়ানোর পক্ষে জোর দেন।

 

দেশের প্রতিটি উপজেলায় কারিগরি ও ভোকেশনাল শিক্ষা বিস্তারে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে সরকারকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও পরামর্শ দেন মন্ত্রণালয়ের সাবেক এই সচিব। এক রিপোর্টের উদ্ধৃতি দিয়ে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘একবিংশ শতাব্দীতে যে ১১টি দেশ বিশ্ব অর্থনীতিতে নেতৃত্ব দেবে, তাদের মধ্যে বাংলাদেশের থাকার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি দায়িত্ব তরুণ প্রজন্মের। প্রকৃত শিক্ষার মাধ্যমে জ্ঞানার্জনের মাধ্যমে তাদের শক্তি, সক্ষমতা ও সামর্থ্য অর্জন করতে হবে।’ ‘এ+ প্লাস’ কিংবা ফলাফলের পেছনে না ছুটে পরিপূর্ণ ও নির্মোহভাবে জ্ঞান অর্জনে মনোনিবেশ করার জন্য সব শিক্ষার্থীকে পরামর্শ দেন দুদক চেয়ারম্যান।

 

সততা সংঘের সদস্যদের শপথবাক্য পাঠ করিয়ে দুদক চেয়ারম্যান জানান, ভবিষ্যতে দুদকের কার্যক্রম সততা সংঘের সদস্যদের মাধ্যমে পরিচালিত হবে। দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সংস্থাটির কমিশনার নাসিরউদ্দীন আহমেদ, এএফএম আমিনুল ইসলাম, সচিব মো. শামসুল আরেফিন, মহাপরিচালক (প্রতিরোধ) মো. জাফর ইকবাল।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» কুয়াকাটায় যথাযথ মর্যাদায় মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে

» দশমিনায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

» দশমিনায় প্রানী সম্পদ অধিদপ্তরে ভাষা দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন হয়নি

» যশোরের বেনাপোলে ফেন্সিডিলসহ মহিলা ব্যবসায়ী আটক

» আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবসে বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে দুই বাংলার মিলন মেলা

» বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে ভাষা শহীদদেও প্রতি শ্রদ্ধা

» বান্দরবানের রুমায় বিষ পানে পাড়া প্রধানের আত্মহত্যা

» গলাচিপায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস পালিত

» পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা সৈকতে পতাকা বিক্রেতা মো.গিয়াস উদ্দিন

» আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস উপলক্ষ্যে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন ও আলোচনা সভা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৯ই ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

দেশে চিরতরে প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধ করতে হবে-দুদক চেয়ারম্যান

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম: দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, দেশে চিরতরে প্রশ্নপত্র ফাঁস ও কোচিং সেন্টার বন্ধের জন্য সরকারের প্রতি তাগিদ দিয়েছেন।

 

আজ শনিবার(৩১ মার্চ ২০১৮) ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ‘সততা সংঘের সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান’ শিরোনামের এক আয়োজনে এ আহ্বান জানান তিনি। ‘বন্ধ হলে দুর্নীতি, উন্নয়নে আসবে গতি’-এ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে শুরু হওয়া দুর্নীতি প্রতিরোধ সপ্তাহ ২০১৮-এর ষষ্ঠ দিন ছিল আজ।

 

তরুণ প্রজন্মের মধ্যে সততা, নিষ্ঠাবোধ ও চারিত্রিক দৃঢ়তা সৃষ্টি, দুর্নীতির বিরুদ্ধে তীব্র ঘৃণা সৃষ্টি সর্বোপরি গণসচেতনতা গড়ে তোলার কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করার উদ্দেশ্যে দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি দেশের স্কুল,  মাদ্রাসা, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রাবাস এবং প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ইত্যাদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রায় ২৫ হাজার সততা সংঘ গঠন করেছে। দেশের কোচিং সেন্টরগুলো অবৈধ ও দুর্নীতির আখড়া বলে মন্তব্য করে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে এসব কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধ করতে হবে।

কোচিং সেন্টারের দুর্নীতি বন্ধ করতে দুদক বদ্ধপরিকর বলেও জানান তিনি। সরকারের উদ্দেশে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমরা সরকারের কাছে আহ্বান জানাই আগামী প্রজন্মের জন্য সর্বশক্তি দিয়ে যেকোনো মূল্যে সম্মিলিতভাবে বাংলাদেশে প্রশ্নপত্র ফাঁস এবং কোচিং বাণিজ্য চিরতরে বন্ধ করতে হবে। আমাদের সন্তানরা সারা দিন কোচিং সেন্টারে সেন্টারে ঘুরে বেড়াবে তা হতে পারে না।’সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন ‘বাংলাদেশের সব কোচিং সেন্টার অবৈধ’। মন্ত্রীর এই বক্তব্যের সঙ্গে সহমত পোষণ করে দুদক-প্রধান বলেন, ‘আমরা বলতে চাই সব কোচিং সেন্টর শুধু অবৈধ নয় দুর্নীতির আখড়াও।

 

আমরা সরকার, ছাত্র-শিক্ষক, অভিভাবক সবাইকে অনুরোধ জানাই- আসুন, এই অবৈধ ও দুর্নীতিগ্রস্ত কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধ করার উদ্যোগ নিই।’ শিক্ষিত জাতি গঠনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা শিক্ষকদের এ ক্ষেত্রে প্রথমে এগিয়ে আসতে হবে বলে মনে করেন ইকবাল মাহমুদ। তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের সুযোগ-সুবিধা, সামাজিক মর্যাদা, বেতন বৃদ্ধিসহ সব ধরনের উন্নয়নে দুদক পাশে থাকবে। তবে আপনারা শ্রেণিকক্ষে এমন শিক্ষার ব্যবস্থা করুন যাতে আমাদের সন্তানদের কোচিং সেন্টারে যেতে না হয়।’ শিক্ষকদের কোচিং-বাণিজ্য থেকে বেরিয়ে আসার অনুরোধ জানানোর পাশাপাশি দুদক চেয়ারম্যান সরকারের উদ্দেশে শিক্ষকদের বেতন-ভাতা, মর্যাদা আরও বাড়ানোর পক্ষে জোর দেন।

 

দেশের প্রতিটি উপজেলায় কারিগরি ও ভোকেশনাল শিক্ষা বিস্তারে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে সরকারকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও পরামর্শ দেন মন্ত্রণালয়ের সাবেক এই সচিব। এক রিপোর্টের উদ্ধৃতি দিয়ে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘একবিংশ শতাব্দীতে যে ১১টি দেশ বিশ্ব অর্থনীতিতে নেতৃত্ব দেবে, তাদের মধ্যে বাংলাদেশের থাকার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি দায়িত্ব তরুণ প্রজন্মের। প্রকৃত শিক্ষার মাধ্যমে জ্ঞানার্জনের মাধ্যমে তাদের শক্তি, সক্ষমতা ও সামর্থ্য অর্জন করতে হবে।’ ‘এ+ প্লাস’ কিংবা ফলাফলের পেছনে না ছুটে পরিপূর্ণ ও নির্মোহভাবে জ্ঞান অর্জনে মনোনিবেশ করার জন্য সব শিক্ষার্থীকে পরামর্শ দেন দুদক চেয়ারম্যান।

 

সততা সংঘের সদস্যদের শপথবাক্য পাঠ করিয়ে দুদক চেয়ারম্যান জানান, ভবিষ্যতে দুদকের কার্যক্রম সততা সংঘের সদস্যদের মাধ্যমে পরিচালিত হবে। দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সংস্থাটির কমিশনার নাসিরউদ্দীন আহমেদ, এএফএম আমিনুল ইসলাম, সচিব মো. শামসুল আরেফিন, মহাপরিচালক (প্রতিরোধ) মো. জাফর ইকবাল।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited