চট্টগ্রামে পটিয়ায় ৮০ ফুট দৈর্ঘ্যের নৌকায় বিকালে উঠবেন প্রধানমন্ত্রী

প্রায় দেড় যুগ পর চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলায় আসছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (২১ মার্চ) বিকালে নৌকার আদলে নির্মিত মঞ্চে উঠে পটিয়ার জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি। এরই মধ্যে সকালে তিনি পৌঁছেছেন চট্টগ্রামে। এই সফরকে ঘিরে পটিয়াসহ গোটা চট্টগ্রাম নগরীতেই এখন উৎসবের আমেজ। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে সেজে উঠেছে গোটা চট্টগ্রাম।

 

বুধবার সকালে চট্টগ্রাম পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসেই তিনি উপস্থিত হন ঈশা খাঁ প্যারেড গ্রাউন্ডে। এ সময় বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু ভবন কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন তিনি। নৌকার আদলে গড়া মঞ্চ প্রস্তুত প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে প্রায় দেড় যুগ পর চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলায় আসছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বুধবার (২১ মার্চ) বিকালে নৌকার আদলে নির্মিত মঞ্চে উঠে পটিয়ার জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি। এরই মধ্যে সকালে তিনি পৌঁছেছেন চট্টগ্রামে। এই সফরকে ঘিরে পটিয়াসহ গোটা চট্টগ্রাম নগরীতেই এখন উৎসবের আমেজ। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে সেজে উঠেছে গোটা চট্টগ্রাম।

 

বুধবার সকালে চট্টগ্রাম পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসেই তিনি উপস্থিত হন ঈশা খাঁ প্যারেড গ্রাউন্ডে। এ সময় বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু ভবন কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন তিনি। বিকালে পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জনসভা আয়োজন করেছে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ। তার সফর ও এই জনসভাকে ঘিরে বিপুলসংখ্যক জনসমাগমের প্রস্তুতি নিয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। ব্যানার-ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে নগরীর অলিগলি। পাশাপাশি রাস্তার দুই ধারে লাগানো হয়েছে বড় বড় বিলবোর্ড, স্থাপন করা হয়েছে তোরণ। এসবের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের চিত্র।

 

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনার এটাই প্রথম পটিয়া সফর। বর্তমান সরকারের শেষ মুহূর্তের এই সফরে চট্টগ্রামবাসীকে ৪২টি উন্নয়ন প্রকল্প উপহার দেবেন তিনি। এর মধ্যে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনযোগ্য প্রকল্প ২৮টি, উদ্বোধনযোগ্য প্রকল্প ১৪টি। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে পটিয়ার জনসভার মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে বিশালাকৃতির নৌকার আদলে। প্রায় ১২ লাখ টাকা ব্যয়ে পটিয়ার ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ও ব্যায়বহুল নৌকা এটি। এর দৈর্ঘ্য ৮০ ফুট, প্রস্থ ৩২ ফুট। প্রধানমন্ত্রীর জনসমাবেশে তিনটি প্রবেশপথ রাখা হয়েছে। জনসভার প্রস্তুতি হিসেবে মঙ্গলবারও দিনব্যাপী মাইকিং করা হয়েছে।প্রধানমন্ত্রীর আগমনের উৎসবে পিছিয়ে নেই আগামী সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশীরাও। বিভিন্ন সড়কের মোড়ে মোড়ে ঝুলছে বিলবোর্ড, ব্যানার; তৈরি হয়েছে তোরণ। এগুলোতে লেখা- ‘…কে এমপি হিসেবে দেখতে চাই’।

 

এদিকে, বুধবার সকাল থেকেই খণ্ড খণ্ড মিছিল আসতে শুরু করেছে পটিয়ার জনসভাস্থলে। ‘শেখ হাসিনার আগমণ, শুভেচ্ছা স্বাগতম’ স্লোগানে ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে জনসভায় যোগ দিতে আসছেন দলটির নেতাকর্মীরা। জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর এই আগমনকে কেন্দ্র করে পটিয়ার ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জমায়েত করার লক্ষ্য নিয়েছে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ। এরই মধ্যে জনসভার সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া শেষ হয়েছে, এখন শুধু অপেক্ষা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতির। তিনি আসবেন, উপহার দেবেন। নৌকার পক্ষে ভোট চাইবেন- তার জন্যই পথ চেয়ে বসে রয়েছেন নেতাকর্মীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» বাতিল হচ্ছে এমসিকিউ? বিপদে শিক্ষার্থীরা

» রাজধানীর চকবাজারে আগুন: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬৯

» আগুন নেভাতে বিমান বাহিনীর দুই হেলিকপ্টার

» আজ অমর একুশে ভাষা শহীদদের প্রতি জাতির বিনম্র শ্রদ্ধা

» রাজধানীর চকবাজার এলাকায় ভয়াবহ আগুন

» নিজ পরিচয়ে সারাবিশ্বে ও স্বদেশের উজ্জ্বল নক্ষত্র, শ্রেষ্ঠ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা

» একুশে স্মৃতি সংসদ সম্মাননা পেলেন: লায়ন গনি মিয়া বাবুল

» কলাপাড়ায় ছুরিকাঘাতে কলেজ শিক্ষিকা গুরুতর জখম

» চাঁদপুরে গ্রাম আদালতের অগ্রগতি ও চ্যালেন্জসমূহ নিয়ে জেলা প্রশাসকের ভিডিও কনফারেন্স

» গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে ছয় কোচিং সেন্টার সিলগালা : বেঞ্চ ধ্বংস

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৯ই ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে পটিয়ায় ৮০ ফুট দৈর্ঘ্যের নৌকায় বিকালে উঠবেন প্রধানমন্ত্রী

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

প্রায় দেড় যুগ পর চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলায় আসছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (২১ মার্চ) বিকালে নৌকার আদলে নির্মিত মঞ্চে উঠে পটিয়ার জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি। এরই মধ্যে সকালে তিনি পৌঁছেছেন চট্টগ্রামে। এই সফরকে ঘিরে পটিয়াসহ গোটা চট্টগ্রাম নগরীতেই এখন উৎসবের আমেজ। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে সেজে উঠেছে গোটা চট্টগ্রাম।

 

বুধবার সকালে চট্টগ্রাম পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসেই তিনি উপস্থিত হন ঈশা খাঁ প্যারেড গ্রাউন্ডে। এ সময় বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু ভবন কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন তিনি। নৌকার আদলে গড়া মঞ্চ প্রস্তুত প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে প্রায় দেড় যুগ পর চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলায় আসছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বুধবার (২১ মার্চ) বিকালে নৌকার আদলে নির্মিত মঞ্চে উঠে পটিয়ার জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি। এরই মধ্যে সকালে তিনি পৌঁছেছেন চট্টগ্রামে। এই সফরকে ঘিরে পটিয়াসহ গোটা চট্টগ্রাম নগরীতেই এখন উৎসবের আমেজ। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে সেজে উঠেছে গোটা চট্টগ্রাম।

 

বুধবার সকালে চট্টগ্রাম পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসেই তিনি উপস্থিত হন ঈশা খাঁ প্যারেড গ্রাউন্ডে। এ সময় বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে বঙ্গবন্ধু ভবন কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন তিনি। বিকালে পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জনসভা আয়োজন করেছে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ। তার সফর ও এই জনসভাকে ঘিরে বিপুলসংখ্যক জনসমাগমের প্রস্তুতি নিয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। ব্যানার-ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে নগরীর অলিগলি। পাশাপাশি রাস্তার দুই ধারে লাগানো হয়েছে বড় বড় বিলবোর্ড, স্থাপন করা হয়েছে তোরণ। এসবের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের চিত্র।

 

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনার এটাই প্রথম পটিয়া সফর। বর্তমান সরকারের শেষ মুহূর্তের এই সফরে চট্টগ্রামবাসীকে ৪২টি উন্নয়ন প্রকল্প উপহার দেবেন তিনি। এর মধ্যে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনযোগ্য প্রকল্প ২৮টি, উদ্বোধনযোগ্য প্রকল্প ১৪টি। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে পটিয়ার জনসভার মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে বিশালাকৃতির নৌকার আদলে। প্রায় ১২ লাখ টাকা ব্যয়ে পটিয়ার ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ও ব্যায়বহুল নৌকা এটি। এর দৈর্ঘ্য ৮০ ফুট, প্রস্থ ৩২ ফুট। প্রধানমন্ত্রীর জনসমাবেশে তিনটি প্রবেশপথ রাখা হয়েছে। জনসভার প্রস্তুতি হিসেবে মঙ্গলবারও দিনব্যাপী মাইকিং করা হয়েছে।প্রধানমন্ত্রীর আগমনের উৎসবে পিছিয়ে নেই আগামী সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশীরাও। বিভিন্ন সড়কের মোড়ে মোড়ে ঝুলছে বিলবোর্ড, ব্যানার; তৈরি হয়েছে তোরণ। এগুলোতে লেখা- ‘…কে এমপি হিসেবে দেখতে চাই’।

 

এদিকে, বুধবার সকাল থেকেই খণ্ড খণ্ড মিছিল আসতে শুরু করেছে পটিয়ার জনসভাস্থলে। ‘শেখ হাসিনার আগমণ, শুভেচ্ছা স্বাগতম’ স্লোগানে ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে জনসভায় যোগ দিতে আসছেন দলটির নেতাকর্মীরা। জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর এই আগমনকে কেন্দ্র করে পটিয়ার ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জমায়েত করার লক্ষ্য নিয়েছে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ। এরই মধ্যে জনসভার সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া শেষ হয়েছে, এখন শুধু অপেক্ষা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতির। তিনি আসবেন, উপহার দেবেন। নৌকার পক্ষে ভোট চাইবেন- তার জন্যই পথ চেয়ে বসে রয়েছেন নেতাকর্মীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited