কুষ্টিয়ার মিরপুরে মামার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের অপবাদ দিয়ে গৃহবধূকে নির্যাতন

Spread the love

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় ধর্ম মামার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের অপবাদ দিয়ে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে গ্রাম্য সালিশে এক গৃহবধূকে বেধড়ক মারপিট করে নির্যাতন করা হয়েছে। নির্যাতিত ওই গৃহবধূকে হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণে বাধা সৃষ্টি করে বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়।

 

খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে মিরপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নেতৃত্বে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। সালিশের নামে গৃহবধূকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে নির্যাতনের ঘটনায় কুষ্টিয়াজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় সূত্র জানায়, মিরপুর উপজেলার বারুইপাড়া ইউনিয়নের বলিদাপাড়া গ্রামের রিপন আলীর স্ত্রী সালমা খাতুনের সঙ্গে ধর্ম মামা সুবলের অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগে সোমবার সন্ধ্যায় বাড়িতে ভাত খাওয়ার সময় স্থানীয় জনগণ ধরে নিয়ে যায়।

 

বিষয়টি নিয়ে গভীর রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুলের উপস্থিতি সালিশি বৈঠক বসে। সালিশে ওই গৃহবধূ ও ধর্ম মামাকে বেধড়ক মারপিট করা হয়। সেই সঙ্গে ধর্ম মামার ২০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে সালিশে ধার্য হওয়া ২০ হাজার টাকা দিতে না পারায় তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি সালিশের প্রধান ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুল তার জিম্মায় রেখে দেন। নির্যাতনের কারণে ওই গৃহবধূ মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়লেও সালিশদাররা তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করতে বাধা দেয়। তারা নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূকে নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখে।

 

ঘটনার চার দিন পর সংবাদ পেয়ে শুক্রবার দুপুরে মিরপুর থানা পুলিশ নির্যাতিত অসুস্থ ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই গৃহবধূ সালমা খাতুন পূর্বপশ্চিমকে জানান, তার শ্বাশুড়ি রুপজান নেছার সঙ্গে ধর্মের ভাই পাতিয়েছেন সুবল। সম্পর্কের কারণে গত ৩ বছর ধরে তাদের পরিবারের সঙ্গে সুবলের উঠা বসা চলছে। ঘটনার দিন আমার অসুস্থ স্বামীর সুস্থতা কামনা করে বাড়িতে ধর্মীয় গানের আয়োজন করা হয়। এতে তার ধর্ম মামাও উপস্থিত থেকে গানের অনুষ্ঠান সম্পন্ন করেন।

 

অনুষ্ঠানের কারণে ব্যস্ত থাকায় সারাদিন পরিবারের সকল সদস্য না খেয়ে ছিল। যে কারণে সন্ধ্যায় ধর্ম মামাসহ পরিবারের সবাই একত্রে খেতে বসলে স্থানীয় জনগণ সুবল ও তাকে ধরে নিয়ে যায়। পরে গভীর রাতে অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগ এনে গ্রাম্য সালিশে তাদের ওপর নির্যাতন করা হয়। সালিশের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মাহাবুল, মিন্টু ও আশারুল ইসলাম কালু তাদের দুইজনকে ধরে বেধড়ক মারপিট করে। নির্যাতনের একপর্যায়ে ওই গৃহবধূ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। সালিশে মারপিটের পাশাপাশি ধর্ম মামা সুবলকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তাৎক্ষণিক জরিমানার টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হলে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুল তার (সুবলের) মোটরসাইকেলটি নিজের জিম্মায় রেখে দেন।

 

নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ অভিয়োগ করেন, নির্যাতনের ফলে আমি মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়লেও সালিশদাররা আমাকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে বাধা সৃষ্টি করে এবং বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখে। তবে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুল সালিশ বৈঠক ডাকা এবং ওই গৃহবধূকে নির্যাতনের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। এ ব্যাপারে কুষ্টিয়ার মিরপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, তিনি নিজে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন। ওসি জানান, নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ ও তার পরিবারের সদস্যরা এ বিষয়ে মামলা করতে আগ্রহী নয়। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের আশ্বস্ত করে এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের চেষ্টা করা হচ্ছে।



নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» প্রশ্নপত্রে পর্নো তারকার নাম বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে: শিক্ষামন্ত্রী

» হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) দুনিয়ার সর্বকালের সেরা মানব : রানী মুখার্জি

» ছাত্রীদেড় প্রস্তাব দেন বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের, ফোনালাপ ফাঁস! (অডিও)

» আমরা বিপদে, বাঁচান! এবার আশ্রয় চেয়ে আর্তি দুই তরুণীর

» আযানের সাথে সাথে শুরু হতো ওসি মোয়াজ্জেমের জন্য চাঁদা আদায়

» নুসরাত হত্যাকাণ্ড: ‘অনেক তথ্য’ দিয়েছেন আসামি কাদের

» তোরা যদি সাফাকে গালি দিস তবে আবার আমি একই কাজ করবো: সেফাতউল্লাহ

» সেফুদাকে ধরিয়ে দিলেই ২ লাখ পুরস্কার!

» নুসরাতকে নিয়ে ছোট ভাই রায়হানের আবেগঘন স্ট্যাটাস!

» নবম শ্রেণির বাংলা প্রশ্নে দুই পর্নো তারকার নাম!

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

x

আজ শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৬ই বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কুষ্টিয়ার মিরপুরে মামার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের অপবাদ দিয়ে গৃহবধূকে নির্যাতন

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় ধর্ম মামার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের অপবাদ দিয়ে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে গ্রাম্য সালিশে এক গৃহবধূকে বেধড়ক মারপিট করে নির্যাতন করা হয়েছে। নির্যাতিত ওই গৃহবধূকে হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণে বাধা সৃষ্টি করে বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়।

 

খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে মিরপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নেতৃত্বে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। সালিশের নামে গৃহবধূকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে নির্যাতনের ঘটনায় কুষ্টিয়াজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় সূত্র জানায়, মিরপুর উপজেলার বারুইপাড়া ইউনিয়নের বলিদাপাড়া গ্রামের রিপন আলীর স্ত্রী সালমা খাতুনের সঙ্গে ধর্ম মামা সুবলের অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগে সোমবার সন্ধ্যায় বাড়িতে ভাত খাওয়ার সময় স্থানীয় জনগণ ধরে নিয়ে যায়।

 

বিষয়টি নিয়ে গভীর রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুলের উপস্থিতি সালিশি বৈঠক বসে। সালিশে ওই গৃহবধূ ও ধর্ম মামাকে বেধড়ক মারপিট করা হয়। সেই সঙ্গে ধর্ম মামার ২০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে সালিশে ধার্য হওয়া ২০ হাজার টাকা দিতে না পারায় তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি সালিশের প্রধান ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুল তার জিম্মায় রেখে দেন। নির্যাতনের কারণে ওই গৃহবধূ মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়লেও সালিশদাররা তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করতে বাধা দেয়। তারা নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূকে নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখে।

 

ঘটনার চার দিন পর সংবাদ পেয়ে শুক্রবার দুপুরে মিরপুর থানা পুলিশ নির্যাতিত অসুস্থ ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই গৃহবধূ সালমা খাতুন পূর্বপশ্চিমকে জানান, তার শ্বাশুড়ি রুপজান নেছার সঙ্গে ধর্মের ভাই পাতিয়েছেন সুবল। সম্পর্কের কারণে গত ৩ বছর ধরে তাদের পরিবারের সঙ্গে সুবলের উঠা বসা চলছে। ঘটনার দিন আমার অসুস্থ স্বামীর সুস্থতা কামনা করে বাড়িতে ধর্মীয় গানের আয়োজন করা হয়। এতে তার ধর্ম মামাও উপস্থিত থেকে গানের অনুষ্ঠান সম্পন্ন করেন।

 

অনুষ্ঠানের কারণে ব্যস্ত থাকায় সারাদিন পরিবারের সকল সদস্য না খেয়ে ছিল। যে কারণে সন্ধ্যায় ধর্ম মামাসহ পরিবারের সবাই একত্রে খেতে বসলে স্থানীয় জনগণ সুবল ও তাকে ধরে নিয়ে যায়। পরে গভীর রাতে অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগ এনে গ্রাম্য সালিশে তাদের ওপর নির্যাতন করা হয়। সালিশের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মাহাবুল, মিন্টু ও আশারুল ইসলাম কালু তাদের দুইজনকে ধরে বেধড়ক মারপিট করে। নির্যাতনের একপর্যায়ে ওই গৃহবধূ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। সালিশে মারপিটের পাশাপাশি ধর্ম মামা সুবলকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তাৎক্ষণিক জরিমানার টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হলে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুল তার (সুবলের) মোটরসাইকেলটি নিজের জিম্মায় রেখে দেন।

 

নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ অভিয়োগ করেন, নির্যাতনের ফলে আমি মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়লেও সালিশদাররা আমাকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে বাধা সৃষ্টি করে এবং বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখে। তবে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক বকুল সালিশ বৈঠক ডাকা এবং ওই গৃহবধূকে নির্যাতনের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। এ ব্যাপারে কুষ্টিয়ার মিরপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, তিনি নিজে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন। ওসি জানান, নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ ও তার পরিবারের সদস্যরা এ বিষয়ে মামলা করতে আগ্রহী নয়। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের আশ্বস্ত করে এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের চেষ্টা করা হচ্ছে।



নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited