কটারকোনা-নছিরগঞ্জ সড়কে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার:  শমশেরনগর থেকে কুলাউড়া উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার সড়কের দীর্ঘ ২৩ কিলোমিটারের অধিকাংশ স্থানের পিচ ঢালা উটে ছোট বড় অসংখ্য গর্তের সৃস্টি হয়েছে। গর্তে ভরা এই সড়ক দিয়ে সকার প্রকার যানবাহন চলাচল এখন অসহনীয় হয়ে পড়েছে।

 

সড়কটির বেহাল অবস্থায় ২৫ মিনিটের পথে সময় লাগছে ১ ঘন্টা। কমলগঞ্জ-কুলাউড়া সড়কের বাইপাস এই সড়ক দিয়ে যানবাহনগুলো প্রতিদিন অত্যন্ত  ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। সড়কে যাতায়াতকারী যাত্রীদের পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ। দেখা যায়- মনু নদী ঘেষা কটারকোনা হইতে নছিরগঞ্জ ভায়া পীরেরবাজার হয়ে শমশেরনগর পর্যন্ত প্রায় ১২ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য এই সড়কটি হাজীপুর ও শরিফপুর ইউনিয়নের বাসিন্দাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একমাত্র সড়ক।

 

হাজীপুর, মনু, পাইকপাড়া, নছিরগঞ্জ এলাকার জনগন এবং মালামাল পরিবহনের কুলাউড়ার সাথে যোগাযোগের একমাত্র এ সড়ক। এই সড়ক দিয়ে বর্তমানে প্রতিদিন শত শত ছোট যানবাহন চলাচল করছে। ব্যাপক সংখ্যক যানবাহন চলাচললে এবং গত বৃষ্টির কারনে ইট, বালু, খোয়া  উঠে গিয়ে সড়কে খানাখন্দকে পরিনত হয়েছে। কোথাও কোথাও বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। ফলে বিপুল সংখ্যক সিএনজিসহ অনেক ছোট যানবাহন দুর্ঘটনায় কবলিত হচ্ছে। মুনদীর পাশ দিয়ে রাস্তা থাকায় অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে যানবাহনসহ লোকজন যাতায়াত করছে। নছিরগঞ্জ ও পীরেরবাজার হইতে কটারকোনা যেথে যেখানে বড়জোড় ১৫/২০ মিনিট সময় লাগার কথা, সেখানে সড়কটির বেহাল অবস্থার কারণে সময় লাগছে এক থেকে দেড়ঘন্টা।

 

রাস্তার এই বেহাল অবস্থার কারণে এই সড়কে চালিত সিএনজির বিভিন্ন যন্ত্রাংশ বিকল হয়ে পড়ছে বলে সিএনজির চালকরা জানান। তাছাড়া এই সড়কে ছোট বড় দুর্ঘটনা নিত্যদিন ঘটছে। বৃষ্টিপাতে গর্তে পানি জমে সড়কটিতে কাঁদার সৃষ্টি হওয়ায় সড়কটিতে যান চলাচলের উপযোগী করতে এবং অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা ঘটেই যাচ্ছে। দেখার যেন কেউ নেই। তাই এই সড়কটি ইট ও বালি দিয়ে সংস্থার করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন্ স্থানীয় এলাকার সচেতন মহল। এই সড়কে চলাচলকারী সিএনজির চালক ফারুক আহমেদ, সুমন আহমদ, নূর মিয়া, ইউকে প্রবাসী আহমদুর রহমান নোমান, মনু বাজারের বিশিষ্ট ডা: মঈন উদ্দিন আহমদ বলেন, প্রতিদিন এই পথে তারা যাতায়ত করতে হয়।

 

সড়কের বর্তমান অবস্থায় চলাচলে অনুপযোগি হয়ে উঠেছে। তারা আরও বলেন, যে ভাবে গর্তের সৃস্টি হয়েছে যাওয়ার পথে ঝাঁকুনিতে সুস্থ্য যাত্রীরা সহ্য করে যানবাহনে যাতায়ত করলেও কোন রোগীকে নিয়ে এই সড়কে যাতায়াত করা যাচ্ছে না। মনু এলাকার বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ইউকে প্রবাসী আহমদুর রহমান নোমান বলেন, সংস্কারের ১ বছরের মাথায় সড়কটি চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়ছে।

 

তিনি আরও বলেন, কুলাউড়া উপজেলার সড়ক ও জনপথ প্রকৌশলীর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি। এ সড়কটি সংস্কারের জন্য মৌলভীবাজার-২ আসনের এমপি আব্দুল মতিন সাহেবকে অবগত করা হয়েছে বলে প্রবাসী জানান। তবে এ ব্যাপারে ১১ মে উপজেলা মাসিক সভায় এ সড়কটির কথা উপস্থাপন করেন হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্ছু।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» কানাডায় নারীরা অন্যের বাচ্চা জন্ম দিচ্ছেন

» বেনাপোল স্থল বন্দর শ্রমিক ধর্মঘট, অসহায় ব্যবসায়ীরা

» একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটবদ্ধ ২৯ ছাড়াও জাপা ১৪৩ প্রার্থী

» আওয়ামী লীগের এবারের ইশতেহার হবে ঐতিহাসিক : বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ

» ঢাকাটাইমস, প্রিয়ডটকমসহ ৫৮ নিউজ সাইট বন্ধের নির্দেশ

» চিকিৎসা শেষে মঙ্গলবার দেশে ফিরবেন চামেলী

» মনোনয়ন ফিরে পেতে এখনও আশাবাদী হিরো আলম

» হাওলাদারকে এরশাদের বিশেষ সহকারী হিসেবে নিয়োগ

» গুলশানে বিএনপির বঞ্চিতদের হামলা, নয়াপল্টনে তালা

» বিজয়ের মাসে সাত বীরশ্রেস্ট’র নামে কলাপাড়ায় সাতটি পাঠাগার

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দ, ২৭শে অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

কটারকোনা-নছিরগঞ্জ সড়কে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার:  শমশেরনগর থেকে কুলাউড়া উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার সড়কের দীর্ঘ ২৩ কিলোমিটারের অধিকাংশ স্থানের পিচ ঢালা উটে ছোট বড় অসংখ্য গর্তের সৃস্টি হয়েছে। গর্তে ভরা এই সড়ক দিয়ে সকার প্রকার যানবাহন চলাচল এখন অসহনীয় হয়ে পড়েছে।

 

সড়কটির বেহাল অবস্থায় ২৫ মিনিটের পথে সময় লাগছে ১ ঘন্টা। কমলগঞ্জ-কুলাউড়া সড়কের বাইপাস এই সড়ক দিয়ে যানবাহনগুলো প্রতিদিন অত্যন্ত  ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। সড়কে যাতায়াতকারী যাত্রীদের পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ। দেখা যায়- মনু নদী ঘেষা কটারকোনা হইতে নছিরগঞ্জ ভায়া পীরেরবাজার হয়ে শমশেরনগর পর্যন্ত প্রায় ১২ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য এই সড়কটি হাজীপুর ও শরিফপুর ইউনিয়নের বাসিন্দাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একমাত্র সড়ক।

 

হাজীপুর, মনু, পাইকপাড়া, নছিরগঞ্জ এলাকার জনগন এবং মালামাল পরিবহনের কুলাউড়ার সাথে যোগাযোগের একমাত্র এ সড়ক। এই সড়ক দিয়ে বর্তমানে প্রতিদিন শত শত ছোট যানবাহন চলাচল করছে। ব্যাপক সংখ্যক যানবাহন চলাচললে এবং গত বৃষ্টির কারনে ইট, বালু, খোয়া  উঠে গিয়ে সড়কে খানাখন্দকে পরিনত হয়েছে। কোথাও কোথাও বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। ফলে বিপুল সংখ্যক সিএনজিসহ অনেক ছোট যানবাহন দুর্ঘটনায় কবলিত হচ্ছে। মুনদীর পাশ দিয়ে রাস্তা থাকায় অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে যানবাহনসহ লোকজন যাতায়াত করছে। নছিরগঞ্জ ও পীরেরবাজার হইতে কটারকোনা যেথে যেখানে বড়জোড় ১৫/২০ মিনিট সময় লাগার কথা, সেখানে সড়কটির বেহাল অবস্থার কারণে সময় লাগছে এক থেকে দেড়ঘন্টা।

 

রাস্তার এই বেহাল অবস্থার কারণে এই সড়কে চালিত সিএনজির বিভিন্ন যন্ত্রাংশ বিকল হয়ে পড়ছে বলে সিএনজির চালকরা জানান। তাছাড়া এই সড়কে ছোট বড় দুর্ঘটনা নিত্যদিন ঘটছে। বৃষ্টিপাতে গর্তে পানি জমে সড়কটিতে কাঁদার সৃষ্টি হওয়ায় সড়কটিতে যান চলাচলের উপযোগী করতে এবং অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা ঘটেই যাচ্ছে। দেখার যেন কেউ নেই। তাই এই সড়কটি ইট ও বালি দিয়ে সংস্থার করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন্ স্থানীয় এলাকার সচেতন মহল। এই সড়কে চলাচলকারী সিএনজির চালক ফারুক আহমেদ, সুমন আহমদ, নূর মিয়া, ইউকে প্রবাসী আহমদুর রহমান নোমান, মনু বাজারের বিশিষ্ট ডা: মঈন উদ্দিন আহমদ বলেন, প্রতিদিন এই পথে তারা যাতায়ত করতে হয়।

 

সড়কের বর্তমান অবস্থায় চলাচলে অনুপযোগি হয়ে উঠেছে। তারা আরও বলেন, যে ভাবে গর্তের সৃস্টি হয়েছে যাওয়ার পথে ঝাঁকুনিতে সুস্থ্য যাত্রীরা সহ্য করে যানবাহনে যাতায়ত করলেও কোন রোগীকে নিয়ে এই সড়কে যাতায়াত করা যাচ্ছে না। মনু এলাকার বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ইউকে প্রবাসী আহমদুর রহমান নোমান বলেন, সংস্কারের ১ বছরের মাথায় সড়কটি চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়ছে।

 

তিনি আরও বলেন, কুলাউড়া উপজেলার সড়ক ও জনপথ প্রকৌশলীর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি। এ সড়কটি সংস্কারের জন্য মৌলভীবাজার-২ আসনের এমপি আব্দুল মতিন সাহেবকে অবগত করা হয়েছে বলে প্রবাসী জানান। তবে এ ব্যাপারে ১১ মে উপজেলা মাসিক সভায় এ সড়কটির কথা উপস্থাপন করেন হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্ছু।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited