​​​​”শেবাচিম শিক্ষক ডা. দিদারের বিদায় সংবর্ধনা ও বার্ষিক পিকনিক”

Spread the love

শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজের শিক্ষক ডা. মুজাহিদ উদ্দিন আহমদ (দিদার) এর বিদায় সংবর্ধনা ও এনাটমি বিভাগের পিকনিক অনুষ্ঠিত হয় সম্প্রতি। সকাল থেকে  শুরু করে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে সারাদিন ভর চলে এই অনুষ্ঠান। দীর্ঘ তিরিশ বছর ধরে শিক্ষকতা করা ডা. দিদারের অনেক ছাত্র ই বর্তমানে সুপ্রতিষ্ঠিত।

 

তাই শিক্ষকের প্রতি সম্মান দেখাতে এবং দৈনন্দিন কাজের একঘেয়েমি কাটাতে কুয়াকাটাতে এ আয়োজন করা হয়। তাছাড়া নৈসার্গিক কুয়াকাটা বৃহত্তর বরিশালবাসীর জন্য বিশেষ একটি আকর্ষণ। শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজের এনাটমি বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ সপরিবারে এতে অংশ নেন। তবে, বরাবর পিকনিক গুলোতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হলেও এবার করা হয়নি। স্মৃতিচারণে শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজের বিভিন্ন কথা বিশেষ করে ডা. দিদারের শিক্ষকতা জীবন, আদর্শ,  জনপ্রিয়তা, ন্যায় পরায়নতা সহ বিভিন্ন দিক ফুটে ওঠে।শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজে কর্মরত একজন শিক্ষক বলেন, মেডিকেল কলেজে ভর্তি হয়েই শিক্ষার্থীরা ডা. দিদার স্যারের আদর্শের সংস্পর্শে আসে। লেখা পড়ার পাপাশাপাশি অনেক কিছু শেখার আছে তার কাছ থেকে।

 

উল্লেখ্য বরিশাল জেলা স্কুলের সাবেক সহকারী প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন আহমদ ও কলকাতার বেগম রোকেয়া শাখাওয়াত মেমরিয়ালের সাবেক শিক্ষার্থী সুফিয়া বেগমের কনিষ্ঠ সন্তান ডা. দিদার। তিনি 1972 সালে বরিশাল জেলা স্কুল থেকে প্রথম বিভাগে এসএসসি, 1974 সালে বিএম কলেজ থেকে এইচএসসি ও 1982 সালে শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাশ করেন। তিনি কর্মজীবন শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজে সহকারী সার্জন হিসেবে শুরু করেন। পরে কিছু দিন নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ছিলেন।

 

এরপর পুনরায় শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজে যোগদান করেন এবং এখান থেকে অবসর গ্রহণ করেন। তিনি এনাটমি বিভাগের শিক্ষক হিসেবে বেশ প্রমথযশা। তিনি গিয়াস উদ্দিন আহমদ কল্যাণ ট্রাস্টের সাথে জড়িত এবং গরিব দূ:খী শিক্ষার্থীদের এই ট্রাস্টের মাধ্যম সহায়তা করা হয়। তিনি একটি সনামধন্য বিদ্যা পিঠের বিদ্যা উৎসাহী ব্যক্তি ছিলেন। গত তিরিশ বছর ধরে একটানা বরিশালের মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন। অবসর জীবনে লেখালেখি ও গরিব অসহায় মানুষের জন্য কাজ করার ইচ্ছা রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে বস্তির আগুনে ৩ হাজার পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত

» কবুতর পালন করে স্বাবলম্বী হওয়ার চেষ্টা দশম শ্রেণীর ছাত্র রূপঙ্কর চৌধুরী

» সেভ দ্য রোড ও অনলাইন প্রেস ইউনিটির উদ্যেগে বন্যাদূর্গত পরিবারকে ত্রাণ প্রদান

» কলাপাড়া প্রেসক্লাবের ১৭তম দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন

» রাজধানীর মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে ভয়াবহ আগুন

» বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দশমিনায় শোক দিবস পালিত

» রাজনগরে তারাপাশা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল

» বাউফলে জাতীয় শোক দিবস পালিত

» যথাযোগ্য মর্যাদায় পবিপ্রবিতে জাতীয় শোক দিবস পালিত

» কলাপাড়ায় জাতীয় শোক দিবস পালিত

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ২রা ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

​​​​”শেবাচিম শিক্ষক ডা. দিদারের বিদায় সংবর্ধনা ও বার্ষিক পিকনিক”

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজের শিক্ষক ডা. মুজাহিদ উদ্দিন আহমদ (দিদার) এর বিদায় সংবর্ধনা ও এনাটমি বিভাগের পিকনিক অনুষ্ঠিত হয় সম্প্রতি। সকাল থেকে  শুরু করে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে সারাদিন ভর চলে এই অনুষ্ঠান। দীর্ঘ তিরিশ বছর ধরে শিক্ষকতা করা ডা. দিদারের অনেক ছাত্র ই বর্তমানে সুপ্রতিষ্ঠিত।

 

তাই শিক্ষকের প্রতি সম্মান দেখাতে এবং দৈনন্দিন কাজের একঘেয়েমি কাটাতে কুয়াকাটাতে এ আয়োজন করা হয়। তাছাড়া নৈসার্গিক কুয়াকাটা বৃহত্তর বরিশালবাসীর জন্য বিশেষ একটি আকর্ষণ। শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজের এনাটমি বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ সপরিবারে এতে অংশ নেন। তবে, বরাবর পিকনিক গুলোতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হলেও এবার করা হয়নি। স্মৃতিচারণে শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজের বিভিন্ন কথা বিশেষ করে ডা. দিদারের শিক্ষকতা জীবন, আদর্শ,  জনপ্রিয়তা, ন্যায় পরায়নতা সহ বিভিন্ন দিক ফুটে ওঠে।শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজে কর্মরত একজন শিক্ষক বলেন, মেডিকেল কলেজে ভর্তি হয়েই শিক্ষার্থীরা ডা. দিদার স্যারের আদর্শের সংস্পর্শে আসে। লেখা পড়ার পাপাশাপাশি অনেক কিছু শেখার আছে তার কাছ থেকে।

 

উল্লেখ্য বরিশাল জেলা স্কুলের সাবেক সহকারী প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন আহমদ ও কলকাতার বেগম রোকেয়া শাখাওয়াত মেমরিয়ালের সাবেক শিক্ষার্থী সুফিয়া বেগমের কনিষ্ঠ সন্তান ডা. দিদার। তিনি 1972 সালে বরিশাল জেলা স্কুল থেকে প্রথম বিভাগে এসএসসি, 1974 সালে বিএম কলেজ থেকে এইচএসসি ও 1982 সালে শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাশ করেন। তিনি কর্মজীবন শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজে সহকারী সার্জন হিসেবে শুরু করেন। পরে কিছু দিন নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ছিলেন।

 

এরপর পুনরায় শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজে যোগদান করেন এবং এখান থেকে অবসর গ্রহণ করেন। তিনি এনাটমি বিভাগের শিক্ষক হিসেবে বেশ প্রমথযশা। তিনি গিয়াস উদ্দিন আহমদ কল্যাণ ট্রাস্টের সাথে জড়িত এবং গরিব দূ:খী শিক্ষার্থীদের এই ট্রাস্টের মাধ্যম সহায়তা করা হয়। তিনি একটি সনামধন্য বিদ্যা পিঠের বিদ্যা উৎসাহী ব্যক্তি ছিলেন। গত তিরিশ বছর ধরে একটানা বরিশালের মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন। অবসর জীবনে লেখালেখি ও গরিব অসহায় মানুষের জন্য কাজ করার ইচ্ছা রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited