দ্বিতীয় দিনের ধর্মঘটে চরম ভোগান্তিতে সাধারণ মানুষ, গাবতলীতে সংঘর্ষ, অচল দেশ

গণপরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন দেশের সাধারণ মানুষ। ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন বুধবার রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের জনজীবনে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। ঢাকার সঙ্গে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে পুরো দেশ। ঢাকায় সকাল থেকেই তীব্র পরিবহন সংকট দেখা দিয়েছে। সকালে বাসা থেকে বের হয়ে কর্মক্ষেত্রে যেতে অসহনীয় যন্ত্রণায় পড়তে হয়েছে রাজধানীবাসীকে। অনেকে অটোরিকশা, রিকশায় তিন-চার গুণ বেশি ভাড়া দিয়ে গন্তব্যে যেতে বাধ্য হয়েছেন। এ ছাড়া অসংখ্য মানুষকে হেঁটে চলাচল করতে দেখা গেছে। পণ্য পরিবহন করতে পারছেন না ব্যবসায়ীরা।

 

বুধবার (১ মার্চ) সকালে রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনাল এলাকায় র‌্যাব-পুলিশের সঙ্গে পরিবহন শ্রমিকদের ফের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাত থেকেই কোন পরিবহনকেই ওই এলাকা দিয়ে যেতে দিচ্ছে না শ্রমিকরা। বুধবার (১ মার্চ) সকালেও রাস্তায় অবস্থান নিয়ে পরিবহন চলাচলে বাধা প্রদান করে তারা। এমনকি অ্যাম্বুলেন্স ও লাশবাহী গাড়িও পরিবহন শ্রমিকদের বাধার মুখে পড়ে। গাবতলী এলাকার এ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে র‌্যাব-পুলিশ। এ সময় শ্রমিকরা র‌্যাব-পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোঁড়ে। র‌্যাব-পুলিশও পাল্টা জবাবে টিয়ার শেল ছুঁড়ছে। ঘটনাস্থলে পুলিশের জলকামান ও সাজোয়াযান (এপিসি) প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

 

সংঘর্ষের পর ওই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। যে সব সাধারণ মানুষ রাস্তায় ছিলেন সংঘর্ষের পর তারাও সে স্থান ত্যাগ করে গেছেন। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি, দারুস সালাম) সৈয়দ মামুন মোস্তফা জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য মোতায়েন রাখা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোন শ্রমিককে আটক করা হয়নি। ঢাকা ও মানিকগঞ্জের পৃথক আদালতের রায়ে এক চালকের মৃত্যুদণ্ড ও আরেক চালকের যাবজ্জীবন সাজায় ক্ষুব্ধ হয়ে মঙ্গলবার থেকে সারা দেশে এ কর্মবিরতি পালন করছেন শ্রমিকরা। এদিকে আকস্মিক পরিবহন ধর্মঘটে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিভিন্ন সংগঠন ও সাধারণ মানুষ। তারা বলছেন, বিচারিক প্রক্রিয়ায় আদালত দু’জন চালকের সাজা দিয়েছেন। ওই সাজা বাতিলের জন্য যাত্রী ও ব্যবসায়ীদের জিম্মি করতেই গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন শ্রমিক নামধারীরা। এর আগেও বিভিন্ন দাবিতে এভাবেই গাড়ি চলাচল বন্ধ করেছেন শ্রমিকরা। অযৌক্তিক এ পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহারেরও দাবি জানিয়েছেন তারা।

 

দাবি না মানা পর্যন্ত ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনরত পরিবহন শ্রমিক নেতারা। মঙ্গলবার বিকালে গাবতলীতে এক সমাবেশে আন্তঃজেলা ট্রাক চালক শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি তাজুল ইসলাম এ ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের নেতা শাজাহান খান। তিনি চাইলে দুই মিনিটের মধ্যে এর সমাধান করতে পারেন।’ বিষয়টি নিয়ে নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার উদ্যোগ নিতে আহ্বান জানান তিনি।

 

মানিকগঞ্জে তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন নিহতের ঘটনায় জামির হোসেন নামের এক বাসচালকের যাবজ্জীবন সাজা হওয়ায় খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় দু’দিন পরিবহন ধর্মঘট চলার পর সোমবার প্রশাসনের আশ্বাসে কর্মসূচি প্রত্যাহারের ঘোষণা এলেও পরে শ্রমিক নেতারা কর্মসূচি বহাল রাখার কথা বলেন। এর মধ্যে ঢাকার সাভারে ট্রাকচাপা দিয়ে এক নারীকে হত্যার দায়ে সোমবার ঢাকার আদালতে ট্রাকচালক মীর হোসেনের ফাঁসির রায় হলে ওই দিন রাতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন সারা দেশে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে চলে যায়। মঙ্গলবার সকাল থেকে সারা দেশে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ আপডেট



» আগাম জামিন পেলেন ফখরুলসহ বিএনপির ১২ নেতা

» দেশে ফেরার পর সু চিকে রাজসিক অভ্যর্থনা

» কুয়াকাটায় ৫ লিটার চোলাই মদ সহ যুবক গ্রেফতার

» শৈলকুপায় আফতাব উদ্দিন স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উদ্বোধন ও শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ

» শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষ্যে ঝিনাইদহে আলো’র মিছিল

» খাদ্য অধিকার আইনের দাবীতে ঝিনাইদহে মানববন্ধন

» শিশুদের খেলা করাকে কেন্দ্র করে ঝিনাইদহে গৃহবধুকে পিটিয়ে আহত

» জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে ফতুল্লায় সাড়াশী অভিযানে গ্রেপ্তার -১৪

» বক্তাবলীতে মেম্বার মতিনের বিএনপি ছেড়ে আ’লীগে যোগদান

» শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে মহানগর বিএনপির দোয়া

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১লা পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দ্বিতীয় দিনের ধর্মঘটে চরম ভোগান্তিতে সাধারণ মানুষ, গাবতলীতে সংঘর্ষ, অচল দেশ

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

গণপরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন দেশের সাধারণ মানুষ। ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন বুধবার রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের জনজীবনে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। ঢাকার সঙ্গে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে পুরো দেশ। ঢাকায় সকাল থেকেই তীব্র পরিবহন সংকট দেখা দিয়েছে। সকালে বাসা থেকে বের হয়ে কর্মক্ষেত্রে যেতে অসহনীয় যন্ত্রণায় পড়তে হয়েছে রাজধানীবাসীকে। অনেকে অটোরিকশা, রিকশায় তিন-চার গুণ বেশি ভাড়া দিয়ে গন্তব্যে যেতে বাধ্য হয়েছেন। এ ছাড়া অসংখ্য মানুষকে হেঁটে চলাচল করতে দেখা গেছে। পণ্য পরিবহন করতে পারছেন না ব্যবসায়ীরা।

 

বুধবার (১ মার্চ) সকালে রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনাল এলাকায় র‌্যাব-পুলিশের সঙ্গে পরিবহন শ্রমিকদের ফের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাত থেকেই কোন পরিবহনকেই ওই এলাকা দিয়ে যেতে দিচ্ছে না শ্রমিকরা। বুধবার (১ মার্চ) সকালেও রাস্তায় অবস্থান নিয়ে পরিবহন চলাচলে বাধা প্রদান করে তারা। এমনকি অ্যাম্বুলেন্স ও লাশবাহী গাড়িও পরিবহন শ্রমিকদের বাধার মুখে পড়ে। গাবতলী এলাকার এ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে র‌্যাব-পুলিশ। এ সময় শ্রমিকরা র‌্যাব-পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোঁড়ে। র‌্যাব-পুলিশও পাল্টা জবাবে টিয়ার শেল ছুঁড়ছে। ঘটনাস্থলে পুলিশের জলকামান ও সাজোয়াযান (এপিসি) প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

 

সংঘর্ষের পর ওই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। যে সব সাধারণ মানুষ রাস্তায় ছিলেন সংঘর্ষের পর তারাও সে স্থান ত্যাগ করে গেছেন। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি, দারুস সালাম) সৈয়দ মামুন মোস্তফা জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য মোতায়েন রাখা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোন শ্রমিককে আটক করা হয়নি। ঢাকা ও মানিকগঞ্জের পৃথক আদালতের রায়ে এক চালকের মৃত্যুদণ্ড ও আরেক চালকের যাবজ্জীবন সাজায় ক্ষুব্ধ হয়ে মঙ্গলবার থেকে সারা দেশে এ কর্মবিরতি পালন করছেন শ্রমিকরা। এদিকে আকস্মিক পরিবহন ধর্মঘটে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিভিন্ন সংগঠন ও সাধারণ মানুষ। তারা বলছেন, বিচারিক প্রক্রিয়ায় আদালত দু’জন চালকের সাজা দিয়েছেন। ওই সাজা বাতিলের জন্য যাত্রী ও ব্যবসায়ীদের জিম্মি করতেই গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন শ্রমিক নামধারীরা। এর আগেও বিভিন্ন দাবিতে এভাবেই গাড়ি চলাচল বন্ধ করেছেন শ্রমিকরা। অযৌক্তিক এ পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহারেরও দাবি জানিয়েছেন তারা।

 

দাবি না মানা পর্যন্ত ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনরত পরিবহন শ্রমিক নেতারা। মঙ্গলবার বিকালে গাবতলীতে এক সমাবেশে আন্তঃজেলা ট্রাক চালক শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি তাজুল ইসলাম এ ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের নেতা শাজাহান খান। তিনি চাইলে দুই মিনিটের মধ্যে এর সমাধান করতে পারেন।’ বিষয়টি নিয়ে নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার উদ্যোগ নিতে আহ্বান জানান তিনি।

 

মানিকগঞ্জে তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন নিহতের ঘটনায় জামির হোসেন নামের এক বাসচালকের যাবজ্জীবন সাজা হওয়ায় খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় দু’দিন পরিবহন ধর্মঘট চলার পর সোমবার প্রশাসনের আশ্বাসে কর্মসূচি প্রত্যাহারের ঘোষণা এলেও পরে শ্রমিক নেতারা কর্মসূচি বহাল রাখার কথা বলেন। এর মধ্যে ঢাকার সাভারে ট্রাকচাপা দিয়ে এক নারীকে হত্যার দায়ে সোমবার ঢাকার আদালতে ট্রাকচালক মীর হোসেনের ফাঁসির রায় হলে ওই দিন রাতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন সারা দেশে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে চলে যায়। মঙ্গলবার সকাল থেকে সারা দেশে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited