গোপলা নদীর উন্মুক্ত জলাধার বন্ধ: শ্রীমঙ্গলে হাওর জুড়ে কচুরিপানা

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার: শ্রীমঙ্গলে গোপলা নদীর উপর দিয়ে প্রবাহিত বৌলারদারা থেকে বড়ছড়া, চেংড়া বিলসহ আশ-পাশের এলাকার ফসলি জমি এখন কচুরিপানার রাজত্ব। প্রভাবশালীরা গোপলা নদীর উন্মুক্ত জলাধার বন্ধ করে অবৈধ ভাবে মাছ শিকারের জন্য নদীর স্থানে স্থানে ব্যারিকেট দেওয়ায় দীর্ঘ জলবদ্ধতায় কচুরিপানার এমন দখলদারিত্বের কারন হিসেবে স্থানীয় দূর্ভোগগ্রস্তরা জানালেন। বোরো, আউশ, আমন, আর সবজি ক্ষেতের মাঠ এখন কচুরিপানার দখলে। কচুরিপানার এমন অযাচিত রাজত্ব দূর্ভোগের নতুন উপদ্রব হিসেবে দেখছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

 

এখন কচুরিপানার কারনে বিভিন্ন বিলে নৌকা চলাচলে তাদের অনেকটা ব্যঘাত ঘঠছে। বানের পানিতে সড়ক পথ তলিয়ে যাওয়া চলাচলের একমাত্র সম্বল ছোট বড় নৌকা। বর্ষায় বন্যায় স্থায়ী জলাবদ্ধতা আর শুস্ক মৌসুমে হাওর জুড়ে ধূ ধূ মরুভূমি। দীর্ঘদিন থেকে এমন দৃশ্য চলমান থাকায় অস্থিত্ব সংকটে পড়ে স্থানীয় হাওর গুলো এখন একেবারেই ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে। ক্ষতিগ্রস্থ হাওর পাড়ের বাসিন্দাদের দাবী মৃত্যু পথ যাত্রী হাওর গুলো বাচাঁতে দ্রুত উদ্যোগী হওয়ার দাবী জানিয়েছেন। মাছের রাজ্যখ্যাত ঐতিহ্যবাহী গোপলা নদীসহ আশে পাশের খাল-বিল চলছে দখলের মহোৎসব। এ যেন এক জলাভূমি দখল করে মৎস্য খামার খননের প্রতিযোগীতা শুরু হয়েছে। প্রভাবশালী মহলের আর্শীবাদপুষ্ট কিছু মহল অবৈধভাবে হাওরে এক্সিভেটর মেশিন লাগিয়ে চালিয়ে যাচ্ছে ফিশারি ও পুকুর খননে কাজ। ইতিমধ্যেই দখল হয়ে গেছে বিশাল এই হাওরের অনেক ভূমি। সরকারের বিপুল পরিমাণ রাজস্ব ক্ষতি ছাড়াও বিপুল প্রাণী বৈচিত্র্যের আধার এই হাওর অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে। হাওরটিকে রক্ষার জন্য সভা সমাবেশ মানববন্ধনসহ প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেও কোন কাজ হচ্ছে না উদ্ধারে।

 

স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত সংশি¬ষ্ট কর্মকর্তারা মুখে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বললেও বাস্তবে তারা কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। যেনো অনেকটা জেগে ঘুমিয়ে থাকা। অভয়াশ্রম সংলগ্ন হাইল হাওরের মৎস্য ও জলাভূমি সংকটাপন্ন হয়ে পড়ায় পরিবেশ ও প্রতিবেশ হুমকির মূখে পড়েছে। এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল উপজেলার ১নং মির্জাপুর ইউনিয়নের স্থানীয় এলাকাবাসীর পক্ষে ননী গোপাল রায় গোপলা নদী বেআইনীভাবে কতিপয় ব্যক্তি কর্তৃক সরকারী রাজস্ব ফাঁকি লক্ষ লক্ষ টাকা আতœসাতের প্রতিকার প্রার্থনা করে নৌপরিবহন মন্ত্রনালয়ের সচিব, মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, র‌্যাব-৯, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশি¬স্ট দপ্তরে আবেদন নিবেদন করেও সুফল আসছেনা। বড়ছড়া থেকে চেংড়া বিলসহ আশ-পাশের এলাকার একাধিক লোকজন জানালেন- এসময় আমন (কাতারি) ধানের ক্ষেত দেখে মন জুড়াত। ধান ক্ষেতের খালি অংশে মাছ শিকার করা যেত। কিন্তু এবছর ভিন্ন দৃশ্য।

 

আমনসহ অনান্য ক্ষেতের জমিতে এখন শুধু কচুরিপানা আর কচুরিপানা। সরজমিনে হাওরের তীরবর্তী এলাকা গুলোতে দেখা গেল দীর্ঘ দিন থেকে পানিতে তলিয়ে থাকা কৃষিজমিতে কচুরিপানার একক রাজত্ব। আর হাওরের বিল তীরবর্তী এলাকায় অধিকাংশ জমিতে শাপলা,শালুকসহ নানা জাতের জলজ ঘাস। কচুরিপানা আর ঘাসের এমন একক আধিপত্য। সর্বশেষ প্রাপ্ত সংবাদে জানা গেছে- গোপলা নদীর উপর দিয়ে প্রবাহিত বৌলারদারা থেকে বড়ছড়া, চেংড়া বিলসহ আশ-পাশের এলাকা সরজমিন পরিদর্শন করেছে পুলিশ।

 

 

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ আপডেট



» ঝিনাইদহের স্থানীয় সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধ, চরম ভোগান্তীতে যাত্রীরা

» ঝিনাইদহে আলোচিত স্কুলছাত্র সিফাত হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন

» হরিণাকুন্ডুতে ৯মামলার আসামি পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে সন্ত্রাসী নিহত

» ইভটিজিংয়ের সাথে আমার পুত্র জড়িত নয় এমনটাই দাবী কওে পিতার সংবাদ সম্মেলন

» গলাচিপায় ৪ জন আহত হওয়ায়! থানায় ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

» সাপাহারে তিলনা ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসাবে সাংবাদিক হাফিজুলকে দেখতে চায় তিলনাবাসী

» আগৈলঝাড়া থানার উদ্যোগে বাল্য বিয়ে ও ইভটিজিং প্রতিরোধে সচেতনতা বিষয়ক আলোচনা সভা

» ঘুমের ওষুধ খেয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে আইসিইউতে ভর্তি এমপি নুসরাত

» ইজিবাইকে দিনরাত কাটানো বাবা-মেয়েকে ঘর দিলেন ডিসি

» মাত্র ১৯ বছরেই ৩ হাজার ৩২৩ জন পুরুষের সঙ্গে

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৪ঠা অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গোপলা নদীর উন্মুক্ত জলাধার বন্ধ: শ্রীমঙ্গলে হাওর জুড়ে কচুরিপানা

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার: শ্রীমঙ্গলে গোপলা নদীর উপর দিয়ে প্রবাহিত বৌলারদারা থেকে বড়ছড়া, চেংড়া বিলসহ আশ-পাশের এলাকার ফসলি জমি এখন কচুরিপানার রাজত্ব। প্রভাবশালীরা গোপলা নদীর উন্মুক্ত জলাধার বন্ধ করে অবৈধ ভাবে মাছ শিকারের জন্য নদীর স্থানে স্থানে ব্যারিকেট দেওয়ায় দীর্ঘ জলবদ্ধতায় কচুরিপানার এমন দখলদারিত্বের কারন হিসেবে স্থানীয় দূর্ভোগগ্রস্তরা জানালেন। বোরো, আউশ, আমন, আর সবজি ক্ষেতের মাঠ এখন কচুরিপানার দখলে। কচুরিপানার এমন অযাচিত রাজত্ব দূর্ভোগের নতুন উপদ্রব হিসেবে দেখছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

 

এখন কচুরিপানার কারনে বিভিন্ন বিলে নৌকা চলাচলে তাদের অনেকটা ব্যঘাত ঘঠছে। বানের পানিতে সড়ক পথ তলিয়ে যাওয়া চলাচলের একমাত্র সম্বল ছোট বড় নৌকা। বর্ষায় বন্যায় স্থায়ী জলাবদ্ধতা আর শুস্ক মৌসুমে হাওর জুড়ে ধূ ধূ মরুভূমি। দীর্ঘদিন থেকে এমন দৃশ্য চলমান থাকায় অস্থিত্ব সংকটে পড়ে স্থানীয় হাওর গুলো এখন একেবারেই ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে। ক্ষতিগ্রস্থ হাওর পাড়ের বাসিন্দাদের দাবী মৃত্যু পথ যাত্রী হাওর গুলো বাচাঁতে দ্রুত উদ্যোগী হওয়ার দাবী জানিয়েছেন। মাছের রাজ্যখ্যাত ঐতিহ্যবাহী গোপলা নদীসহ আশে পাশের খাল-বিল চলছে দখলের মহোৎসব। এ যেন এক জলাভূমি দখল করে মৎস্য খামার খননের প্রতিযোগীতা শুরু হয়েছে। প্রভাবশালী মহলের আর্শীবাদপুষ্ট কিছু মহল অবৈধভাবে হাওরে এক্সিভেটর মেশিন লাগিয়ে চালিয়ে যাচ্ছে ফিশারি ও পুকুর খননে কাজ। ইতিমধ্যেই দখল হয়ে গেছে বিশাল এই হাওরের অনেক ভূমি। সরকারের বিপুল পরিমাণ রাজস্ব ক্ষতি ছাড়াও বিপুল প্রাণী বৈচিত্র্যের আধার এই হাওর অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে। হাওরটিকে রক্ষার জন্য সভা সমাবেশ মানববন্ধনসহ প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেও কোন কাজ হচ্ছে না উদ্ধারে।

 

স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত সংশি¬ষ্ট কর্মকর্তারা মুখে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বললেও বাস্তবে তারা কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। যেনো অনেকটা জেগে ঘুমিয়ে থাকা। অভয়াশ্রম সংলগ্ন হাইল হাওরের মৎস্য ও জলাভূমি সংকটাপন্ন হয়ে পড়ায় পরিবেশ ও প্রতিবেশ হুমকির মূখে পড়েছে। এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল উপজেলার ১নং মির্জাপুর ইউনিয়নের স্থানীয় এলাকাবাসীর পক্ষে ননী গোপাল রায় গোপলা নদী বেআইনীভাবে কতিপয় ব্যক্তি কর্তৃক সরকারী রাজস্ব ফাঁকি লক্ষ লক্ষ টাকা আতœসাতের প্রতিকার প্রার্থনা করে নৌপরিবহন মন্ত্রনালয়ের সচিব, মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, র‌্যাব-৯, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশি¬স্ট দপ্তরে আবেদন নিবেদন করেও সুফল আসছেনা। বড়ছড়া থেকে চেংড়া বিলসহ আশ-পাশের এলাকার একাধিক লোকজন জানালেন- এসময় আমন (কাতারি) ধানের ক্ষেত দেখে মন জুড়াত। ধান ক্ষেতের খালি অংশে মাছ শিকার করা যেত। কিন্তু এবছর ভিন্ন দৃশ্য।

 

আমনসহ অনান্য ক্ষেতের জমিতে এখন শুধু কচুরিপানা আর কচুরিপানা। সরজমিনে হাওরের তীরবর্তী এলাকা গুলোতে দেখা গেল দীর্ঘ দিন থেকে পানিতে তলিয়ে থাকা কৃষিজমিতে কচুরিপানার একক রাজত্ব। আর হাওরের বিল তীরবর্তী এলাকায় অধিকাংশ জমিতে শাপলা,শালুকসহ নানা জাতের জলজ ঘাস। কচুরিপানা আর ঘাসের এমন একক আধিপত্য। সর্বশেষ প্রাপ্ত সংবাদে জানা গেছে- গোপলা নদীর উপর দিয়ে প্রবাহিত বৌলারদারা থেকে বড়ছড়া, চেংড়া বিলসহ আশ-পাশের এলাকা সরজমিন পরিদর্শন করেছে পুলিশ।

 

 

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited