ক্ষতিগ্রস্থ সাধারণ রোগী দশমিনা হাসপাতালের এক্স-রে অকেজো

Spread the love

সঞ্জয় ব্যানার্জী, দশমিনা(পটুয়াখালী) সংবাদদাতা।। পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে মেশিন বিগত বছর থেকে অকেজো হয়ে পড়ে রয়েছে। প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে হাসপাতালে আসা হতদরিদ্র রোগীরা এক্স-রে মেশিন অকেজো থাকায় সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অতিরিক্ত অর্থ দিয়ে প্রাইভেট ক্লিনিকে গিয়ে এক্স-রে করতে হচ্ছে। উপজেলার প্রাইভেট ক্লিনিকগুলো আর্থিকভাবে লাভবান হলেও ক্ষতিগ্রস্থের শিকার হচ্ছে সাধারণ রোগীরা।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গত শনিবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এক্স-রে রুম তালা বদ্ধ হয়ে আছে। অনেক চিকিৎসক রোগীদের জানিয়ে দিচ্ছেন হাসপাতালের এক্স-রে মেশিনটি কয়েক বছর ধরে নষ্ট হয়ে রয়েছে। বাঁশবাড়িয়া গ্রাম থেকে চিকিৎসার জন্য মোসাঃ আসমা আক্তার হাতে ব্যথা পেয়ে কিচিৎসা সেবা নিতে এলে চিকিৎসক ব্যবস্থাপত্রে এক্স-রে করার জন্য লিখে দিলে সে বাধ্য হয়ে প্রাইভেট ক্লিনিক থেকে এক্স- রে করে নিয়ে আসে। হাসপাতালের এক্স-রে অকেজো হওয়ায় প্রাইভেট ক্লিনিকগুলো লাভবান হচ্ছে। রোগীরা হাসপাতাল থেকে অল্প টাকায় এক্স-রে করতে পারলেও প্রাইভেট ক্লিনিকগুলো দ্বিগুণ টাকা নিচ্ছে । হাসপাতালের মেশিন ভালো থাকলে প্রতিদিন ২০-২৫ জন রোগী এক্স-রের সেবা পেতো। পাশাপাশি হাসপাতাল আর্থিকভাবে লাভবান হতো। এক্স-রে নষ্ট থাকার ফলে রোগীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্তের শিকার হচ্ছে রোগীরা ।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোঃ গোলাম মস্তফা এ প্রতিনিধিকে বলেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে। পুরোনো এক্স-রে মেশিনটি মেরামত করা হবে। আর যত তারাতারি সম্ভব নতুন এক্স-রে মেশিনের জন্য উপর মহলে তদারোকি চলছে। বর্তমানে রোগীরা এক্স-রের সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» তেজগাঁওয়ের ফু-ওয়াং ক্লাবে চলছে অভিযান

» কপাল খুলে গেল ১২শ’ বেসরকারি শিক্ষকের

» সংস্কার হতেনা হতেই দশমিনায় গুরুত্বপূর্ন সড়কের বেহাল দশা

» মাদক সেবন কারিদেরকে দশমিনায় পূর্নবাসন

» ভিসি নাসিরের পদত্যাগ দাবিতে ৬ষ্ঠ দিনেও আন্দোলনে শিক্ষার্থীরা: উত্তাল বশেমুরবিপ্রবি ক্যাম্পাস

» বড়লেখায় ভোক্তা অধিকার আইনে  ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

» ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের উদ্যোগে গোল টেবিল বৈঠক

» ঝালকাঠিতে নারীকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে ২ ডাকাতের ফাঁসি, ৩ জনের যাবজ্জীবন

» জলবায়ু পরিবর্তন জনিত কারন: দখল ও দূষনের কারনে অস্তিত্ব হারাচ্ছে শিববাড়িয়া নদী

» মৌলভীবাজারের মেয়ে আলেয়া মান্নান পিংকি বাংলাদেশ বিমানের প্রধান ক্যাপ্টেন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৮ই আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ক্ষতিগ্রস্থ সাধারণ রোগী দশমিনা হাসপাতালের এক্স-রে অকেজো

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

সঞ্জয় ব্যানার্জী, দশমিনা(পটুয়াখালী) সংবাদদাতা।। পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে মেশিন বিগত বছর থেকে অকেজো হয়ে পড়ে রয়েছে। প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে হাসপাতালে আসা হতদরিদ্র রোগীরা এক্স-রে মেশিন অকেজো থাকায় সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অতিরিক্ত অর্থ দিয়ে প্রাইভেট ক্লিনিকে গিয়ে এক্স-রে করতে হচ্ছে। উপজেলার প্রাইভেট ক্লিনিকগুলো আর্থিকভাবে লাভবান হলেও ক্ষতিগ্রস্থের শিকার হচ্ছে সাধারণ রোগীরা।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গত শনিবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এক্স-রে রুম তালা বদ্ধ হয়ে আছে। অনেক চিকিৎসক রোগীদের জানিয়ে দিচ্ছেন হাসপাতালের এক্স-রে মেশিনটি কয়েক বছর ধরে নষ্ট হয়ে রয়েছে। বাঁশবাড়িয়া গ্রাম থেকে চিকিৎসার জন্য মোসাঃ আসমা আক্তার হাতে ব্যথা পেয়ে কিচিৎসা সেবা নিতে এলে চিকিৎসক ব্যবস্থাপত্রে এক্স-রে করার জন্য লিখে দিলে সে বাধ্য হয়ে প্রাইভেট ক্লিনিক থেকে এক্স- রে করে নিয়ে আসে। হাসপাতালের এক্স-রে অকেজো হওয়ায় প্রাইভেট ক্লিনিকগুলো লাভবান হচ্ছে। রোগীরা হাসপাতাল থেকে অল্প টাকায় এক্স-রে করতে পারলেও প্রাইভেট ক্লিনিকগুলো দ্বিগুণ টাকা নিচ্ছে । হাসপাতালের মেশিন ভালো থাকলে প্রতিদিন ২০-২৫ জন রোগী এক্স-রের সেবা পেতো। পাশাপাশি হাসপাতাল আর্থিকভাবে লাভবান হতো। এক্স-রে নষ্ট থাকার ফলে রোগীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্তের শিকার হচ্ছে রোগীরা ।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোঃ গোলাম মস্তফা এ প্রতিনিধিকে বলেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে। পুরোনো এক্স-রে মেশিনটি মেরামত করা হবে। আর যত তারাতারি সম্ভব নতুন এক্স-রে মেশিনের জন্য উপর মহলে তদারোকি চলছে। বর্তমানে রোগীরা এক্স-রের সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited