ক্ষোভে ফুঁসছে কাশ্মীরবাসী, যে কোন সময় বিস্ফোরণ

Spread the love

ভারতের জাতীয় সংসদের মাধ্যমে কাশ্মীরবাসীর ‘বিশেষ মর্যাদা’ বাতিলের পর স্বভাবতই মুসলিম বিশ্বসহ শান্তিকামী বিশ্বে বইছে সমালোচনা ঝড়। সেইসঙ্গে স্বাধীনতার স্বপ্ন মলিন হওয়ায় কাশ্মীরের জনগণও ক্ষোভে ফুঁসছে বলে বিবিসিকে জানিয়েছে বিক্ষুব্ধ এক কাশ্মীরি যুবক। বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্য ভিত্তিক গণমাধ্যমকে অসীম নামে কাশ্মীরি যুবক বলেন, ‘মানুষ এখন আগ্নেয়গিরির মতো ফুঁসছে, যে কোন সময় বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।

 

কাশ্মীরের ওই বাসিন্দা হুঁশিয়ারি দিয়ে বিবিসিকে বলেন, যদি আমাদের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করা হয়, তবে তার পরিণতি হবে ভয়াবহ। এদিকে গত সোমবার ৩৭০ ধারা বাতিলের পর থকে কাশ্মীরজুড়ে চলমান কারফিউ অব্যাহত ছিল এদিনও। হাজার হাজার মানুষ বন্দী ছিলেন নিজ নিজ বাড়িতে। তাদের চলাচলের ক্ষেত্রেও নিয়ন্ত্রণ আরোপ করেছে ভারত। ইন্টারনেটসহ সব ধরণের নাগরিক সেবা থেকেও বিচ্ছিন্ন ছিল এখানকার বাসিন্দারা। ধারণা করা হচ্ছে, জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা অবলুপ্তি এবং এটিকে দুটি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করার কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের কয়েকদিন পরে বড় ধরণের প্রতিবাদ হতে পারে আশঙ্কা থেকেই এমন সব ব্যবস্থা নিয়েছে ভারত সরকার।

 

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ভারত অধিকৃত অঞ্চলটিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। বিক্ষোভকারীরা পুলিশ ও সেনা সদস্যদের ওপর ইট, পাটকেল ও পাথর নিক্ষেপ করেছে। পুলিশ ও সেনা সদস্যরাও তাদের ছত্রভঙ্গ করতে সবধরনের চেষ্টা অব্যহত রেখেছে। এর আগে গত মঙ্গলবার ভারতীয় সংসদে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদ করে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলুপ্ত করার একটি প্রস্তাব পাস করেছে মোদি সরকার। ওই বিলে রাজ্যটিকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল- জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ নামে বিভক্ত করার একটি বিলও পাস করানো হয়েছে।

 

এদিকে কাশ্মীরিদের ওই ‘বিশেষ মর্যাদা’ বাতিলের মাধ্যমে হিন্দু জাতীয়তাবাদী বিজেপি সরকার কাশ্মীরের বাইরের মানুষদের সেখানে জমি কেনার অধিকার দিয়ে সেখানকার মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ জনসংখ্যার বৈশিষ্ট্যকেই পাল্টে দিতে চায় বলেই মনে করছে কাশ্মীরিরা।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে দু-দেশের মধ্যে আমদানি রপ্তানি বানিজ্য বন্ধ

» প্রতিরক্ষা বাঁধ মেরামত না করায় জনভোগান্তি

» স্বাস্থ্য সচিবের নিজ জেলার সদর হাসপাতালের বেহাল দশা’ রোগী আছে জায়গা নেই

» জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যকে পদত্যাগের আল্টিমেটাম

» রাব্বানীকে সরাতে প্রয়োজনে আদালতে যাব: ভিপি নুরুল হক নুর

» দীর্ঘ ২৮ বছর পর ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্ব : সভাপতি খোকন, সম্পাদক শ্যামল

» আলীরটেক ব্রীজের গাইডওয়ালের করুন হাল! মেরামতের আশ্বাস চেয়ারম্যানের

» ওসমান আকন স্মৃতি সংসদের পারিবারিক কমিটি গঠন

» জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

» রাজধানীর ফকিরাপুলে যুবলীগ নেতার ক্যাসিনোতে অভিযান, ১৪২ নারী-পুরুষ আটক

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ক্ষোভে ফুঁসছে কাশ্মীরবাসী, যে কোন সময় বিস্ফোরণ

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

ভারতের জাতীয় সংসদের মাধ্যমে কাশ্মীরবাসীর ‘বিশেষ মর্যাদা’ বাতিলের পর স্বভাবতই মুসলিম বিশ্বসহ শান্তিকামী বিশ্বে বইছে সমালোচনা ঝড়। সেইসঙ্গে স্বাধীনতার স্বপ্ন মলিন হওয়ায় কাশ্মীরের জনগণও ক্ষোভে ফুঁসছে বলে বিবিসিকে জানিয়েছে বিক্ষুব্ধ এক কাশ্মীরি যুবক। বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্য ভিত্তিক গণমাধ্যমকে অসীম নামে কাশ্মীরি যুবক বলেন, ‘মানুষ এখন আগ্নেয়গিরির মতো ফুঁসছে, যে কোন সময় বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।

 

কাশ্মীরের ওই বাসিন্দা হুঁশিয়ারি দিয়ে বিবিসিকে বলেন, যদি আমাদের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করা হয়, তবে তার পরিণতি হবে ভয়াবহ। এদিকে গত সোমবার ৩৭০ ধারা বাতিলের পর থকে কাশ্মীরজুড়ে চলমান কারফিউ অব্যাহত ছিল এদিনও। হাজার হাজার মানুষ বন্দী ছিলেন নিজ নিজ বাড়িতে। তাদের চলাচলের ক্ষেত্রেও নিয়ন্ত্রণ আরোপ করেছে ভারত। ইন্টারনেটসহ সব ধরণের নাগরিক সেবা থেকেও বিচ্ছিন্ন ছিল এখানকার বাসিন্দারা। ধারণা করা হচ্ছে, জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা অবলুপ্তি এবং এটিকে দুটি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করার কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের কয়েকদিন পরে বড় ধরণের প্রতিবাদ হতে পারে আশঙ্কা থেকেই এমন সব ব্যবস্থা নিয়েছে ভারত সরকার।

 

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ভারত অধিকৃত অঞ্চলটিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। বিক্ষোভকারীরা পুলিশ ও সেনা সদস্যদের ওপর ইট, পাটকেল ও পাথর নিক্ষেপ করেছে। পুলিশ ও সেনা সদস্যরাও তাদের ছত্রভঙ্গ করতে সবধরনের চেষ্টা অব্যহত রেখেছে। এর আগে গত মঙ্গলবার ভারতীয় সংসদে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদ করে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলুপ্ত করার একটি প্রস্তাব পাস করেছে মোদি সরকার। ওই বিলে রাজ্যটিকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল- জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ নামে বিভক্ত করার একটি বিলও পাস করানো হয়েছে।

 

এদিকে কাশ্মীরিদের ওই ‘বিশেষ মর্যাদা’ বাতিলের মাধ্যমে হিন্দু জাতীয়তাবাদী বিজেপি সরকার কাশ্মীরের বাইরের মানুষদের সেখানে জমি কেনার অধিকার দিয়ে সেখানকার মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ জনসংখ্যার বৈশিষ্ট্যকেই পাল্টে দিতে চায় বলেই মনে করছে কাশ্মীরিরা।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited