বরগুনায় রিফাত হত্যার বিচার চেয়ে মুশফিক ও রুবেলের ফেসবুক স্ট্যাটাস

Spread the love

বরগুনায় রাস্তায় ফেলে প্রকাশ্য দিবালোকে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরিফকে হত্যার ঘটনায় নাড়া দিয়েছে বিশ্ববিবেক। এ নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে সব মহলে। সব শ্রেণী-পেশার মানুষ এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। ক্রিকেটাররাও এ ঘটনার নিন্দা ও খুনিদের বিচার দাবি করেছেন। বরগুনার নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি ছাড়া কেউ রিফাতকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেনি। এ নিয়ে হাইকোর্ট পর্যন্ত বিস্ময় প্রকাশ করেছে। সামাজিক যোগাযোগা মাধ্যম ফেসবুক টুইটারে স্ট্যাটাস দিয়ে অনেকেই এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।

 

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের দুই তারকা মুশফিকুর রহীম এবং রুবেল হোসেনও এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন। নিজেদের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ ঘটনায় দায়ীদের বিচার চেয়ে স্ট্যাটাস দিয়েছেন মুশি ও রুবেল। ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া মুশফিকুর রহীম তার ফেসবুক পেজে লিখেন, ‘আমি মুশফিকুর রহীম এবং আমি রিফাত হত্যার ন্যায়বিচার চাই। তিনি রিফাত হত্যার ন্যায়বিচার নিশ্চিত চেয়ে একটি হ্যাশট্যাগও (#জাস্টিসফররিফাত) দেন। একই ভাবে মুশফিকের সতীর্থ পেসার রুবেল হোসেন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আমি রুবেল হোসেন এবং আমি রিফাত হত্যার ন্যায়বিচার চাই। তিনিও হ্যাশট্যাগ দেন।নিহত শাহনেয়াজ রিফাত শরীফের বাড়ি বরগুনা সদর উপজেলার ৬নং বুড়িরচর ইউনিয়নের বড় লবণগোলা গ্রামে। তার বাবার নাম আ. হালিম দুলাল শরীফ। মা-বাবার একমাত্র সন্তান ছিলেন রিফাত।

 

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রী মিন্নিকে বরগুনা সরকারি কলেজে নিয়ে যান রিফাত। কলেজ থেকে ফেরার পথে মূল ফটকে নয়ন, রিফাত ফরাজীসহ আরও দুই যুবক রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিফাত শরীফকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে তারা। রিফাত শরীফের স্ত্রী মিন্নি দুর্বৃত্তদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু কিছুতেই হামলাকারীদের থামানো যায়নি। তারা রিফাত শরীফকে উপর্যুপরি কুপিয়ে রক্তাক্ত করে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন রিফাত শরীফকে গুরুতর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে রিফাত শরীফের মৃত্যু হয়।

 

নিহতের পরিবার জানায়, রিফাতকে কুপিয়ে হত্যায় অংশ নেয় নয়ন বন্ডসহ ৪-৫ জন। রিফাতের সঙ্গে দুই মাস আগে পুলিশলাইন সড়কের আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির বিয়ে হয়। বিয়ের পর নয়ন মিন্নিকে তার প্রেমিকা দাবি করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দিতে থাকে। রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বলেন, নয়ন প্রতিনিয়ত আমার পুত্রবধূকে উত্ত্যক্ত করত এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দিত। এর প্রতিবাদ করায় আমার ছেলেকে নয়ন তার দলবল নিয়ে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। -যুগান্তর

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» বান্দরবানের শিক্ষার্থীদের মাঝে বই ও শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ

» ৩৩৩ এর সেবা নিয়ে বান্দরবানে সাংবাদিকেদর সাথে জেলা প্রশাসনের সংবাদ সম্মেলন

» মহিপুরে গৃহবধু গণধর্ষণ মামলার বাদীকে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে শ্রমিকলীগ নেতা

» মোদির জন্মদিনের শুভেচ্ছায় ‘ফাদার অব আওয়ার কান্ট্রি’ বলায় ভারতে ব্যাপক বিতর্ক

» ভারতে থানায় নিয়ে তিন বোনকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন, একজনের গর্ভপাত

» মৌলভীবাজার সড়কে সীমাহীন ভুগান্তি: দ্রুত সংস্কারের দাবীতে মানববন্ধন

» আজব এক ব্যক্তি কাঁচা মাছ, মাংস ও লতাপাতা খেয়ে স্বাভাবিক চলে

» যশোরের শার্শায় ২বছরের শিশু পানিতে ডুবে মৃত্যু

» ‘সাপাহারে অর্থনৈতিক অঞ্চলের অনুমোদন’ প্রয়োজন বাস-ট্রাক টারমিনাল

» ঝিনাইদহে ৪ দিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন, অবশেষে বিয়ে

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৩রা আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বরগুনায় রিফাত হত্যার বিচার চেয়ে মুশফিক ও রুবেলের ফেসবুক স্ট্যাটাস

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

বরগুনায় রাস্তায় ফেলে প্রকাশ্য দিবালোকে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরিফকে হত্যার ঘটনায় নাড়া দিয়েছে বিশ্ববিবেক। এ নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে সব মহলে। সব শ্রেণী-পেশার মানুষ এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। ক্রিকেটাররাও এ ঘটনার নিন্দা ও খুনিদের বিচার দাবি করেছেন। বরগুনার নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি ছাড়া কেউ রিফাতকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেনি। এ নিয়ে হাইকোর্ট পর্যন্ত বিস্ময় প্রকাশ করেছে। সামাজিক যোগাযোগা মাধ্যম ফেসবুক টুইটারে স্ট্যাটাস দিয়ে অনেকেই এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।

 

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের দুই তারকা মুশফিকুর রহীম এবং রুবেল হোসেনও এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন। নিজেদের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ ঘটনায় দায়ীদের বিচার চেয়ে স্ট্যাটাস দিয়েছেন মুশি ও রুবেল। ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া মুশফিকুর রহীম তার ফেসবুক পেজে লিখেন, ‘আমি মুশফিকুর রহীম এবং আমি রিফাত হত্যার ন্যায়বিচার চাই। তিনি রিফাত হত্যার ন্যায়বিচার নিশ্চিত চেয়ে একটি হ্যাশট্যাগও (#জাস্টিসফররিফাত) দেন। একই ভাবে মুশফিকের সতীর্থ পেসার রুবেল হোসেন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আমি রুবেল হোসেন এবং আমি রিফাত হত্যার ন্যায়বিচার চাই। তিনিও হ্যাশট্যাগ দেন।নিহত শাহনেয়াজ রিফাত শরীফের বাড়ি বরগুনা সদর উপজেলার ৬নং বুড়িরচর ইউনিয়নের বড় লবণগোলা গ্রামে। তার বাবার নাম আ. হালিম দুলাল শরীফ। মা-বাবার একমাত্র সন্তান ছিলেন রিফাত।

 

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রী মিন্নিকে বরগুনা সরকারি কলেজে নিয়ে যান রিফাত। কলেজ থেকে ফেরার পথে মূল ফটকে নয়ন, রিফাত ফরাজীসহ আরও দুই যুবক রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিফাত শরীফকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে তারা। রিফাত শরীফের স্ত্রী মিন্নি দুর্বৃত্তদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু কিছুতেই হামলাকারীদের থামানো যায়নি। তারা রিফাত শরীফকে উপর্যুপরি কুপিয়ে রক্তাক্ত করে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন রিফাত শরীফকে গুরুতর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে রিফাত শরীফের মৃত্যু হয়।

 

নিহতের পরিবার জানায়, রিফাতকে কুপিয়ে হত্যায় অংশ নেয় নয়ন বন্ডসহ ৪-৫ জন। রিফাতের সঙ্গে দুই মাস আগে পুলিশলাইন সড়কের আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির বিয়ে হয়। বিয়ের পর নয়ন মিন্নিকে তার প্রেমিকা দাবি করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দিতে থাকে। রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বলেন, নয়ন প্রতিনিয়ত আমার পুত্রবধূকে উত্ত্যক্ত করত এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দিত। এর প্রতিবাদ করায় আমার ছেলেকে নয়ন তার দলবল নিয়ে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। -যুগান্তর

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited