পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও হত্যার অভিযোগে পৃথক দুইটি মামলায় গ্রেফতার ১৬

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,২১ জুন।। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় নির্মাণাধীন পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিক অসন্তোষে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও হত্যার অভিযোগে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিরাপত্তা পরিচালক ওয়াং লিবিং বাদী হয়ে অজ্ঞাত এক হাজার জনকে আসামী করে এ দুইটি মামলা দায়ের করেন।

 

এছাড়া পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিরাপত্তার জন্য আট শতাধিক পুলিশসহ বিজিবি, র‌্যাব ও আর্মড পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ ইতোমধ্যে সুজন তালুকদার, মামুন তালুকদার, সজিব, জলিল ফকিরকে এবং ঢাকার কেরানিগঞ্জ এলাকা থেকে নাসির, সুজন, আবদুল লতিফ, আতিকুর রহমান, ইমাম হাসান, মেহেদী হাসান, রাসেল আলী, শামিম মিয়া, মামুন, আইয়ুব, ফারুক ও বেল্লালকে আটক করেছে। এদের সবার বাড়ি দেশের বিভিন্ন জেলায় বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

 

কলাপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক মো.শাখাওয়াত জানান, চায়না শ্রমিক মি. জাং ইয়ান ফেং হত্যার ঘটনা তদন্ত শুরু করা হয়েছে। আরও বেশ কয়েকজন আহত শ্রমিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ মামলায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। কলাপাড়া থানার ওসি মো.মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, পুলিশ ইতোমধ্যে পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র সংলগ্ন গ্রামে অভিযান চালিয়ে লুট হওয়া ল্যাপটপ, সিপিইউ, মনিটর ও লাগেজসহ চার জন এবং ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকা থেকে ১২ জনকে গ্রেফতার করেছে। এছাড়া নিহত বাংলাদেশী শ্রমিক সাবিন্দ্র দাসের মৃহদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সাবিন্দ্র’র দুর্ঘটনা জনিত মৃত্যুর ঘটনায় ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মতিউল ইসলাম চৌধুরী জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে আহবায়ক করে একটি তদন্ত কমিটি, পুলিশের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি এবং পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কর্তৃপক্ষের নেতৃত্বে পৃথক তিনটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে, যারা আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

 

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (১৮জুন) বিকেলে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ব্রয়লার থেকে পড়ে নিহত বাঙ্গালী শ্রমিক সাবিন্দ্র দাস (৩৩) এর লাশ গুম করার গুজবে মঙ্গলবার বিকেল থেকে মধ্যরাত অবধি বাঙ্গালী ও চায়না শ্রমিকদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে চায়না শ্রমিক জাং ইয়ান ফেং (২৬) নিহত হয়। এসময় চায়না ও বাংলাদেশী শ্রমিক অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। এ সংঘর্ষের ছবি তুলতে গিয়ে সাংবাদিকের মোটর সাইকেল ভাঙচুর করাসহ ভিডিও ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটে।

 

এরপর মঙ্গলবার রাতে জেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে পুলিশ, র‌্যাব ও আর্মড পুলিশ যৌথভাবে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। বুধবার সকালে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, সচিব, এমডি, বরিশাল ডিআইজি সহ সরকারের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল পায়রা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনসহ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠক শেষে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের দাবী মেনে নেয়ার আশ্বাস প্রদান করেন তারা। কিন্তু ঘটনার পর থেকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। মামলা ও গ্রেফতার আতংকে অনেক বাঙ্গালী শ্রমিকরা বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকা ত্যাগ করছেন।

 

 

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ আপডেট



» বিলুপ্ত এক সময়ের ঐহিত্যবাহী বাহন পালকি

» মাদারীপুরের কাঠাল বাড়ি-শিমুলিয়া পদ্মা নদীর নৌ-রুটে তীব্র নাব্যতা সংকটে

» ভাষার মিনার গড়ছে অস্ট্রেলিয়ার সিডনির পাঁচ তরুন ভাষাযোদ্ধা

» রাতের আকাশে রং উড়িয়েছে বে-রংয়ের ফানুস বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের প্রবারণা উৎসব শুরু

» পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় বীমা দাবীর টাকা ফেরৎ দিল মেঘনা লাইফ ইনসুরেন্স কোম্পানি

» গভীর ষড়যন্ত্র এবং মিথ্যা ও ভিত্তিহীন ফেসবুকে তথ্য প্রকাশের প্রতিবাদে দশমিনায় সংবাদ সম্মেলন

» হরিণাকুন্ডুতে একই পরিবারের সবাই প্রতিবন্ধী, নেই থাকার ঘর

» ৬৬,০০০ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্ম বিরতি পালন

» প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আবরারের বাবা-মা গণভবনে

» শুধু ছেলেরাই কেন সংসার চালাবে

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ২৯শে আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও হত্যার অভিযোগে পৃথক দুইটি মামলায় গ্রেফতার ১৬

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,২১ জুন।। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় নির্মাণাধীন পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিক অসন্তোষে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও হত্যার অভিযোগে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিরাপত্তা পরিচালক ওয়াং লিবিং বাদী হয়ে অজ্ঞাত এক হাজার জনকে আসামী করে এ দুইটি মামলা দায়ের করেন।

 

এছাড়া পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিরাপত্তার জন্য আট শতাধিক পুলিশসহ বিজিবি, র‌্যাব ও আর্মড পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ ইতোমধ্যে সুজন তালুকদার, মামুন তালুকদার, সজিব, জলিল ফকিরকে এবং ঢাকার কেরানিগঞ্জ এলাকা থেকে নাসির, সুজন, আবদুল লতিফ, আতিকুর রহমান, ইমাম হাসান, মেহেদী হাসান, রাসেল আলী, শামিম মিয়া, মামুন, আইয়ুব, ফারুক ও বেল্লালকে আটক করেছে। এদের সবার বাড়ি দেশের বিভিন্ন জেলায় বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

 

কলাপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক মো.শাখাওয়াত জানান, চায়না শ্রমিক মি. জাং ইয়ান ফেং হত্যার ঘটনা তদন্ত শুরু করা হয়েছে। আরও বেশ কয়েকজন আহত শ্রমিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ মামলায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। কলাপাড়া থানার ওসি মো.মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, পুলিশ ইতোমধ্যে পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র সংলগ্ন গ্রামে অভিযান চালিয়ে লুট হওয়া ল্যাপটপ, সিপিইউ, মনিটর ও লাগেজসহ চার জন এবং ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকা থেকে ১২ জনকে গ্রেফতার করেছে। এছাড়া নিহত বাংলাদেশী শ্রমিক সাবিন্দ্র দাসের মৃহদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সাবিন্দ্র’র দুর্ঘটনা জনিত মৃত্যুর ঘটনায় ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মতিউল ইসলাম চৌধুরী জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে আহবায়ক করে একটি তদন্ত কমিটি, পুলিশের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি এবং পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কর্তৃপক্ষের নেতৃত্বে পৃথক তিনটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে, যারা আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

 

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (১৮জুন) বিকেলে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ব্রয়লার থেকে পড়ে নিহত বাঙ্গালী শ্রমিক সাবিন্দ্র দাস (৩৩) এর লাশ গুম করার গুজবে মঙ্গলবার বিকেল থেকে মধ্যরাত অবধি বাঙ্গালী ও চায়না শ্রমিকদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে চায়না শ্রমিক জাং ইয়ান ফেং (২৬) নিহত হয়। এসময় চায়না ও বাংলাদেশী শ্রমিক অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। এ সংঘর্ষের ছবি তুলতে গিয়ে সাংবাদিকের মোটর সাইকেল ভাঙচুর করাসহ ভিডিও ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটে।

 

এরপর মঙ্গলবার রাতে জেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে পুলিশ, র‌্যাব ও আর্মড পুলিশ যৌথভাবে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। বুধবার সকালে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, সচিব, এমডি, বরিশাল ডিআইজি সহ সরকারের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল পায়রা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনসহ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠক শেষে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের দাবী মেনে নেয়ার আশ্বাস প্রদান করেন তারা। কিন্তু ঘটনার পর থেকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। মামলা ও গ্রেফতার আতংকে অনেক বাঙ্গালী শ্রমিকরা বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকা ত্যাগ করছেন।

 

 

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited