বান্দরবানে মানবাধিকার কর্মীর বিরুদ্ধে চাঁদা দাবির অভিযোগ বৌদ্ধ ভিক্ষুর

রিমন পালিতঃ বান্দরবান প্রতিনিধিঃ বান্দরবানে এক সাধারন বুদ্ধ ভিক্ষু কে হুমকি দিয়ে চাঁদা আদায়ের চেষ্টা করছেন সাংবাদিক পরিচয় ধরে এক মানবাধিকার কর্মী। বিভিন্ন কাদায় অনেক লোক থেকে নানা কৌশলে টাকা চাঁদা করে আসছেন মহিবুল্লাহ মহিব চৌধুরী নামে এই ব্যক্তি। সম্প্রতি এক সাধারন বৌদ্ধ ভিক্ষুকে নানাভাবে হয়রানি করে ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার ভয় দেখিয়ে তার থেকে বড় অংকের একটা টাকা দাবি করে মহিবুল্লাহ মহিব নামে এই ভুয়া প্রতারক সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী।যিনি তার কার্য হাসিল করার জন্য কোন সময় মানবাধিকার কর্মী কোন সময় সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্নজন থেকে এইভাবে টাকা আত্মসাত করেছে বলে সবাই বলেন।

 

১৮ ই জুন এই ধরনের একটি সমস্যার মুখোমুখি হন সাধারণ এক সাধারন এক বৌদ্ধ ভিক্ষু যাকে বিভিন্ন প্রশাসনিক ভয় গোয়েন্দা সংস্থার বিভিন্ন তৎপরতা কথা বলে তিনি বড় অঙ্কের টাকা দাবি করেন। আর তার দাবিকৃত টাকা দিতে না পারলে তিনি ফেসবুক গণমাধ্যম ও অন্যান্য জায়গায় তার তার ভিডিও অথবা খারাপ কিছু ছেড়ে দিবেন বলে হুমকি দেন। তিনি বৌদ্ধ ভিক্ষুকে বলেন ১৮ তারিখের মধ্যে তার দাবিকৃত বড় অঙ্কের টাকা নিয়ে বান্দরবান জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ভিতরে একা গোপনে একা হাজির হওয়ার জন্য।

 

সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, ভান্তে কদঞেঞ থের অভিযোগ করেন গত (২১ মে) মাহ্লা উ চৌধুরীসহ আরো দুইজন বান্দরবান শহরের পাসপোর্ট অফিস না চেনার কারনে পাসপোর্ট অফিসে যাওয়ার জন্য আমার কাছে সহযোগিতা কামনা করে। আমি তাদের পাসপোর্ট অফিসে নিয়ে কাজ শেষে শহরের বনফুল ফাস্ট ফুড দোকানে নাস্তা খাওয়ার সময় বিবাদী আমাদের কয়েকটি ছবি তুলে। কৌশলে আমার ফোন নাম্বার সংগ্রহ করে আমার কাছে চাঁদা দাবী করে। এই সময় সে আমাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বলেন, আপনি নারী পাচারকারী। আমাকে দেড় লক্ষ টাকা না দিলে আমার ছবি ফেসবুকে আপলোড করে দিবে। এক পর্যায়ে সে তাকে ডিজিএফআইয়ের লোক দাবি করেন। মুহিবুল্লা বলেন চাঁদা দিতে না পারলে তোমার ছবি ফেসবুকে ছেড়ে দিব এবং সে আমাকে ডিজিএফআই এর লোকসহ বিভিন্ন পরিচয় দিয়ে দফায় দফায় আমার কাছে টাকা দাবি করেন এবং টাকা না দিলে আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করেন তার কারণেই আমি থানায় অভিযোগ করেছি।

 

বৌদ্ধ ভিক্ষু বলেন আমি এক সাধারন ভান্তে। মানুষের সেবা মূলক কাজ ও ধর্মের পথে আমি সারাটা দিন ব্যয় করি ও মানুষ কি ধর্ম বিষয়ে জ্ঞান দান করি। আমার মত সাধারন এক বৌদ্ধ ভিক্ষুকে হুমকি দিয়ে তিনি টাকা আদায়ের জন্য নানাভাবে চেষ্টা করছেন।তাই আমি সকল মিডিয়া কর্মী এবং প্রশাসনিক সকল ব্যক্তিবর্গের কাছে এই প্রতারক চাঁদাবাজ মহিবুল্লার হাত থেকে বাঁচার জন্য সকলের সহযোগিতা ও সাহায্য কামনা করছি। সে আমার মতো নিরহ আর আর কোন মানুষকে এই ধরনের হয়রানি করতে না পারে সেজন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি এবং সকল মিডিয়াকর্মীদের আমার পাশে থাকার জন্য আকুল আহ্বান জানাচ্ছি।

 

এই বিষয়ে বান্দরবান সদর থানার পুলিশ কর্মকতা (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, এইছ এম মহিবুল্লাহ চৌধুরী শহরের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি করে আসছে। আমরা নিশ্চিত হয়েছি তার নাম্বার থেকে ফোন করে চাঁদাবাদী করেছে।আমরাও এই ধরনের কথা শুনেছি তবে আমরা ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছি আশা করছি খুব দ্রুত সত্য উদঘাটন করে আমরা অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করব।

 

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ আপডেট



» বিলুপ্ত এক সময়ের ঐহিত্যবাহী বাহন পালকি

» মাদারীপুরের কাঠাল বাড়ি-শিমুলিয়া পদ্মা নদীর নৌ-রুটে তীব্র নাব্যতা সংকটে

» ভাষার মিনার গড়ছে অস্ট্রেলিয়ার সিডনির পাঁচ তরুন ভাষাযোদ্ধা

» রাতের আকাশে রং উড়িয়েছে বে-রংয়ের ফানুস বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের প্রবারণা উৎসব শুরু

» পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় বীমা দাবীর টাকা ফেরৎ দিল মেঘনা লাইফ ইনসুরেন্স কোম্পানি

» গভীর ষড়যন্ত্র এবং মিথ্যা ও ভিত্তিহীন ফেসবুকে তথ্য প্রকাশের প্রতিবাদে দশমিনায় সংবাদ সম্মেলন

» হরিণাকুন্ডুতে একই পরিবারের সবাই প্রতিবন্ধী, নেই থাকার ঘর

» ৬৬,০০০ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্ম বিরতি পালন

» প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আবরারের বাবা-মা গণভবনে

» শুধু ছেলেরাই কেন সংসার চালাবে

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ২৯শে আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বান্দরবানে মানবাধিকার কর্মীর বিরুদ্ধে চাঁদা দাবির অভিযোগ বৌদ্ধ ভিক্ষুর

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

রিমন পালিতঃ বান্দরবান প্রতিনিধিঃ বান্দরবানে এক সাধারন বুদ্ধ ভিক্ষু কে হুমকি দিয়ে চাঁদা আদায়ের চেষ্টা করছেন সাংবাদিক পরিচয় ধরে এক মানবাধিকার কর্মী। বিভিন্ন কাদায় অনেক লোক থেকে নানা কৌশলে টাকা চাঁদা করে আসছেন মহিবুল্লাহ মহিব চৌধুরী নামে এই ব্যক্তি। সম্প্রতি এক সাধারন বৌদ্ধ ভিক্ষুকে নানাভাবে হয়রানি করে ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার ভয় দেখিয়ে তার থেকে বড় অংকের একটা টাকা দাবি করে মহিবুল্লাহ মহিব নামে এই ভুয়া প্রতারক সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী।যিনি তার কার্য হাসিল করার জন্য কোন সময় মানবাধিকার কর্মী কোন সময় সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্নজন থেকে এইভাবে টাকা আত্মসাত করেছে বলে সবাই বলেন।

 

১৮ ই জুন এই ধরনের একটি সমস্যার মুখোমুখি হন সাধারণ এক সাধারন এক বৌদ্ধ ভিক্ষু যাকে বিভিন্ন প্রশাসনিক ভয় গোয়েন্দা সংস্থার বিভিন্ন তৎপরতা কথা বলে তিনি বড় অঙ্কের টাকা দাবি করেন। আর তার দাবিকৃত টাকা দিতে না পারলে তিনি ফেসবুক গণমাধ্যম ও অন্যান্য জায়গায় তার তার ভিডিও অথবা খারাপ কিছু ছেড়ে দিবেন বলে হুমকি দেন। তিনি বৌদ্ধ ভিক্ষুকে বলেন ১৮ তারিখের মধ্যে তার দাবিকৃত বড় অঙ্কের টাকা নিয়ে বান্দরবান জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের ভিতরে একা গোপনে একা হাজির হওয়ার জন্য।

 

সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, ভান্তে কদঞেঞ থের অভিযোগ করেন গত (২১ মে) মাহ্লা উ চৌধুরীসহ আরো দুইজন বান্দরবান শহরের পাসপোর্ট অফিস না চেনার কারনে পাসপোর্ট অফিসে যাওয়ার জন্য আমার কাছে সহযোগিতা কামনা করে। আমি তাদের পাসপোর্ট অফিসে নিয়ে কাজ শেষে শহরের বনফুল ফাস্ট ফুড দোকানে নাস্তা খাওয়ার সময় বিবাদী আমাদের কয়েকটি ছবি তুলে। কৌশলে আমার ফোন নাম্বার সংগ্রহ করে আমার কাছে চাঁদা দাবী করে। এই সময় সে আমাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বলেন, আপনি নারী পাচারকারী। আমাকে দেড় লক্ষ টাকা না দিলে আমার ছবি ফেসবুকে আপলোড করে দিবে। এক পর্যায়ে সে তাকে ডিজিএফআইয়ের লোক দাবি করেন। মুহিবুল্লা বলেন চাঁদা দিতে না পারলে তোমার ছবি ফেসবুকে ছেড়ে দিব এবং সে আমাকে ডিজিএফআই এর লোকসহ বিভিন্ন পরিচয় দিয়ে দফায় দফায় আমার কাছে টাকা দাবি করেন এবং টাকা না দিলে আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করেন তার কারণেই আমি থানায় অভিযোগ করেছি।

 

বৌদ্ধ ভিক্ষু বলেন আমি এক সাধারন ভান্তে। মানুষের সেবা মূলক কাজ ও ধর্মের পথে আমি সারাটা দিন ব্যয় করি ও মানুষ কি ধর্ম বিষয়ে জ্ঞান দান করি। আমার মত সাধারন এক বৌদ্ধ ভিক্ষুকে হুমকি দিয়ে তিনি টাকা আদায়ের জন্য নানাভাবে চেষ্টা করছেন।তাই আমি সকল মিডিয়া কর্মী এবং প্রশাসনিক সকল ব্যক্তিবর্গের কাছে এই প্রতারক চাঁদাবাজ মহিবুল্লার হাত থেকে বাঁচার জন্য সকলের সহযোগিতা ও সাহায্য কামনা করছি। সে আমার মতো নিরহ আর আর কোন মানুষকে এই ধরনের হয়রানি করতে না পারে সেজন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি এবং সকল মিডিয়াকর্মীদের আমার পাশে থাকার জন্য আকুল আহ্বান জানাচ্ছি।

 

এই বিষয়ে বান্দরবান সদর থানার পুলিশ কর্মকতা (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, এইছ এম মহিবুল্লাহ চৌধুরী শহরের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি করে আসছে। আমরা নিশ্চিত হয়েছি তার নাম্বার থেকে ফোন করে চাঁদাবাদী করেছে।আমরাও এই ধরনের কথা শুনেছি তবে আমরা ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছি আশা করছি খুব দ্রুত সত্য উদঘাটন করে আমরা অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করব।

 

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited