ফুলবাড়ী সরকারী কলেজ২০ বছরেও কাটেনি শিক্ষক ও আবাসীক সংকট!

Spread the love

মোঃ রজব আলী ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের ফুলবাড়ী সরকারী কলেজটি জাতীয় করনের ২০ বছর পেরিয়ে গেলেও, এখনো সমাধান হয়নি শিক্ষক ও আবাসীক সংকটের। ২০ বছর পুর্বে জাতীয় করনের সময় যে ভবন ছিল আজও সেই ভবনেই চলছে ক্লাস । শ্রেনী কক্ষের অভাবে নিয়মিত ক্লাস করতে পারছেনা শিক্সার্থীরা। কলেজের প্রতিষ্টালগ্নে নির্মিত পুরাতন ভবনটি ছাত্রদের আবাসীক হিসেবে ব্যবহার করলেও, ছাত্রীদের নাই কোন হোসটেল। এছাড়া কলেজের শিক্ষকদের আবাসীক কোয়াটার না থাকায় তারাও পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করতে পারছেনা, ফলে বাহীর থেকে চাকুরী করতে আসা শিক্ষকরা তদ্বির করে অন্যাত্র বদরী হয়ে চলে যাচ্ছে।

 

ফুলবাড়ী সরকারী কলেটিতে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কলেজটির একাডেমিক ভবনের উত্তর দিকে তিন তলা বিশিষ্ট একটি মাত্র ভবনে চলছে এদাদশ শেনী থেকে সম্মান শ্রেনী প্রর্যন্ত শিক্ষার্থীর ক্লাস , কলেজটিতে নেই কোন পৃথক ল্যাব ভবন। কলেজটি প্রতিষ্ঠা লগ্নে নির্মিত পুরাতুন ভবনটি এখন ছাত্র হোস্টেল হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে। ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নজমুল হক বলেন, ফুলবাড়ী কলেজটি গত ১৯৮৯ সালের ৫ নভেম্বর জাতীয় করণ হলেও এখন প্রর্যন্ত কোন নতুন ভবন নির্মান হয়নি। গত ২০১১ সাল থেকে কলেজটিতে ৬টি বিষয়ে অনার্স চালু করার পর শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়ছে, বাহির থেকে এসে অনেক শিক্ষার্থী ভর্তি হলেও তাদের থাকার কোন ব্যবস্থা নাই। এজন্য তারা নিয়মিত ক্লাসে উপস্থিত হতে পারছেনা।

 

অধ্যক্ষ্য নজমুল হক বলেন বর্তমানে এই কলেজটি ১৫টি বিভাগের মধ্যে বাংলা, ইংরাজি, রসায়ন, গনিত, রাষ্ট্রবিজ্ঞান ও দর্শন বিষয়ে অর্নাস চালু রয়েছে, বর্তমানে এই করেজটিতে চার হাজারের অধিক শিক্ষঅর্থী রয়েছে। তিনি বলেন কলেজটিতে ১৫ বিভাগের ৫৭জন শিক্ষকের পদ থাকলেও বর্তমানে কর্মরত আছে মাত্র ৩৭জন। ৫জন সহযোগী অধ্যাপক, ৩জন সহকারী অধ্যাপকসহ ২০জন শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে।

 

জানাগেছে ফুলবাড়ীসহ আশপাশের শিক্ষার্থীরা যাতে উচ্চ শিক্ষা গ্রহন করতে পারে, সেই লক্ষে এই এলাকার তৎকালিন শিক্ষানুরাগী, সমাজ সচেতন ও রাজনৈতিক ব্যাক্তিরা ১৯৬৩ সালে ফুলবাড়ী পৌর শহরের পশ্চিম পার্শে শাখা যমুনা নদি ও ফুলবাড়ী দিনাজপুর সড়ক যা বর্তমানে দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়েরে পাশে প্রায় ২১ একর জায়গার উপর ফুলবাড়ী ডিগ্রী কলেজটি প্রতিষ্ঠা করে। কলেজটি প্রতিষ্টার পর থেকে, ফুলবাড়ী, নবাবগঞ্জ, পার্বতীপুর ও বিরামপুর উপজেলার শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষা গ্রহনের একমাত্র মাধ্যম হয়ে দাড়ায় এই কলেজটি। সুধু তাই নয় এই কলেজটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে এই অঞ্চলে উচ্চ শিক্ষার হার বৃদ্ধি পায়, এই কলেজটি এই অঞ্চলের রাজনৈতিক কেন্দ্রবিন্দুতে পরিনত হয়, ১৯৬৯ এর গণআন্দোলন, ১৯৭০ সালের নির্বাচন, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ এই কলেজ থেকে এই অঞ্চলের নেতৃত্ব দেয়া হয়। পারবর্তিতে সৈরাচার বিরোধী আন্দোলনসহ বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রাম এই কলেজ থেকে সুচনা করা হয়েছিল।

 

ফুলবাড়ী কলেজের গুরুত্ব বিবেচনা করে ১৯৮৯ সালের ৫ নভেম্বর এই কলেজটিকে জাতীয় করন করা হয়। কিন্তু কলেজটি জাতীয় করনের পর থেকে আজ প্রর্যন্ত কোন উন্নায়নের ছোয়া লাগেনি। পক্ষান্তরে কতিপয় প্রভাবশালী ব্যাক্তিরা রাজনৈতিক ক্ষমতার ব্যবহার করে সরকারী কলেজের জায়গা দখল করার অপচেষ্ঠা করে যাচ্ছে। ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন এই কলেটিতে কোন উন্নায়নের ছোয়া পায়নি এতে করে কলেজটি পিিেছয়ে পড়েছে, সেই সাথে এই অঞ্চলের শিক্ষাও পিছিয়েছে, সেই কারনে তারা কলেজটিতে শ্রেনী কক্ষ ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আবাসীক সংকট সমাধান করার জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» কমলগঞ্জে ভোক্তা অধিকার আইনে ২ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

» পর্যটকদের নতুন আকর্ষণ লংলা সিমেট্টি

» মোমিন মেহেদীর নেতৃত্বে মশার কয়েল ও স্প্রে প্রদান কর্মসূচী

» ঝিনাইদহ কালিচরনপুর ইউনিয়নে ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিশাল র‌্যালী ও লিফলেট বিতরণ

» ঝিনাইদহে বিজিবি’র মাদক বিরোধী সমাবেশ ও সনাক্তকরণ মহড়া

» কালীগঞ্জে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার-২

» ঝিনাইদহে ফেন্সিডিলসহ মাটর সাইকেলের গ্যারেজের মালিক বাইক মিস্ত্রি জনি গ্রেফতার

» বেনাপোল তালশারী মডেল স্কুলে ছাত্র-ছাত্রীদের ভোটাভুটিতে সেরা শিক্ষক নির্বাচন অনুষ্ঠিত

» “পদ্মা সেতুর রেল লাইনের মাধ্যমে শরীয়তপুর জেলাকেও সংযুক্ত করা হবে”

» আলীকদমে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ কর্মসূচি

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৮ই ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ফুলবাড়ী সরকারী কলেজ২০ বছরেও কাটেনি শিক্ষক ও আবাসীক সংকট!

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

মোঃ রজব আলী ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের ফুলবাড়ী সরকারী কলেজটি জাতীয় করনের ২০ বছর পেরিয়ে গেলেও, এখনো সমাধান হয়নি শিক্ষক ও আবাসীক সংকটের। ২০ বছর পুর্বে জাতীয় করনের সময় যে ভবন ছিল আজও সেই ভবনেই চলছে ক্লাস । শ্রেনী কক্ষের অভাবে নিয়মিত ক্লাস করতে পারছেনা শিক্সার্থীরা। কলেজের প্রতিষ্টালগ্নে নির্মিত পুরাতন ভবনটি ছাত্রদের আবাসীক হিসেবে ব্যবহার করলেও, ছাত্রীদের নাই কোন হোসটেল। এছাড়া কলেজের শিক্ষকদের আবাসীক কোয়াটার না থাকায় তারাও পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করতে পারছেনা, ফলে বাহীর থেকে চাকুরী করতে আসা শিক্ষকরা তদ্বির করে অন্যাত্র বদরী হয়ে চলে যাচ্ছে।

 

ফুলবাড়ী সরকারী কলেটিতে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কলেজটির একাডেমিক ভবনের উত্তর দিকে তিন তলা বিশিষ্ট একটি মাত্র ভবনে চলছে এদাদশ শেনী থেকে সম্মান শ্রেনী প্রর্যন্ত শিক্ষার্থীর ক্লাস , কলেজটিতে নেই কোন পৃথক ল্যাব ভবন। কলেজটি প্রতিষ্ঠা লগ্নে নির্মিত পুরাতুন ভবনটি এখন ছাত্র হোস্টেল হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে। ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নজমুল হক বলেন, ফুলবাড়ী কলেজটি গত ১৯৮৯ সালের ৫ নভেম্বর জাতীয় করণ হলেও এখন প্রর্যন্ত কোন নতুন ভবন নির্মান হয়নি। গত ২০১১ সাল থেকে কলেজটিতে ৬টি বিষয়ে অনার্স চালু করার পর শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়ছে, বাহির থেকে এসে অনেক শিক্ষার্থী ভর্তি হলেও তাদের থাকার কোন ব্যবস্থা নাই। এজন্য তারা নিয়মিত ক্লাসে উপস্থিত হতে পারছেনা।

 

অধ্যক্ষ্য নজমুল হক বলেন বর্তমানে এই কলেজটি ১৫টি বিভাগের মধ্যে বাংলা, ইংরাজি, রসায়ন, গনিত, রাষ্ট্রবিজ্ঞান ও দর্শন বিষয়ে অর্নাস চালু রয়েছে, বর্তমানে এই করেজটিতে চার হাজারের অধিক শিক্ষঅর্থী রয়েছে। তিনি বলেন কলেজটিতে ১৫ বিভাগের ৫৭জন শিক্ষকের পদ থাকলেও বর্তমানে কর্মরত আছে মাত্র ৩৭জন। ৫জন সহযোগী অধ্যাপক, ৩জন সহকারী অধ্যাপকসহ ২০জন শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে।

 

জানাগেছে ফুলবাড়ীসহ আশপাশের শিক্ষার্থীরা যাতে উচ্চ শিক্ষা গ্রহন করতে পারে, সেই লক্ষে এই এলাকার তৎকালিন শিক্ষানুরাগী, সমাজ সচেতন ও রাজনৈতিক ব্যাক্তিরা ১৯৬৩ সালে ফুলবাড়ী পৌর শহরের পশ্চিম পার্শে শাখা যমুনা নদি ও ফুলবাড়ী দিনাজপুর সড়ক যা বর্তমানে দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়েরে পাশে প্রায় ২১ একর জায়গার উপর ফুলবাড়ী ডিগ্রী কলেজটি প্রতিষ্ঠা করে। কলেজটি প্রতিষ্টার পর থেকে, ফুলবাড়ী, নবাবগঞ্জ, পার্বতীপুর ও বিরামপুর উপজেলার শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষা গ্রহনের একমাত্র মাধ্যম হয়ে দাড়ায় এই কলেজটি। সুধু তাই নয় এই কলেজটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে এই অঞ্চলে উচ্চ শিক্ষার হার বৃদ্ধি পায়, এই কলেজটি এই অঞ্চলের রাজনৈতিক কেন্দ্রবিন্দুতে পরিনত হয়, ১৯৬৯ এর গণআন্দোলন, ১৯৭০ সালের নির্বাচন, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ এই কলেজ থেকে এই অঞ্চলের নেতৃত্ব দেয়া হয়। পারবর্তিতে সৈরাচার বিরোধী আন্দোলনসহ বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রাম এই কলেজ থেকে সুচনা করা হয়েছিল।

 

ফুলবাড়ী কলেজের গুরুত্ব বিবেচনা করে ১৯৮৯ সালের ৫ নভেম্বর এই কলেজটিকে জাতীয় করন করা হয়। কিন্তু কলেজটি জাতীয় করনের পর থেকে আজ প্রর্যন্ত কোন উন্নায়নের ছোয়া লাগেনি। পক্ষান্তরে কতিপয় প্রভাবশালী ব্যাক্তিরা রাজনৈতিক ক্ষমতার ব্যবহার করে সরকারী কলেজের জায়গা দখল করার অপচেষ্ঠা করে যাচ্ছে। ফুলবাড়ী সরকারী কলেজের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন এই কলেটিতে কোন উন্নায়নের ছোয়া পায়নি এতে করে কলেজটি পিিেছয়ে পড়েছে, সেই সাথে এই অঞ্চলের শিক্ষাও পিছিয়েছে, সেই কারনে তারা কলেজটিতে শ্রেনী কক্ষ ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আবাসীক সংকট সমাধান করার জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited