দুই হাজার পঞ্চাশ সালে বাংলা সাহিত্য-রীনা তালুকদার

Spread the love

পৃথিবীর একটি ল্যান্ডমার্ক হিসাবে এক সময় পৃথিবীতে জনসংখ্যা ১ হাজার কোটি ছাড়িয়ে যাবে। বিজ্ঞানী, গবেষকরা এখনই ভাবতে শুরু করেছেন কেমন হতে পারে ৩৪ বছর পরের পৃথিবী। কোনদিকেযাচ্ছে পৃথিবীর ভবিষ্যৎ। ২০১৮  থেকে বত্রিশ বছর পর অর্র্থাৎ ২০৫০ সালে গল্প, কবিতা, মুক্ত গদ্য কেমন হবে সে আলোচনার আগে বলতে হয় লেখার জন্য যে সব উপকরণ রয়েছে প্রকৃতিতে,  মানুষেরব্যবহৃত ও অব্যবহৃত এবং স্বয়ং মানুষের মন ও মেধা কি অবস্থায় পৌঁছাবে। সেটি মুখ্য বিষয় মনে হচ্ছে। কেননা সাহিত্য নিরেট শুধু অভিধানগত শব্দ বসালেই হয়ে যায় না। নানা উপকরণে সমৃদ্ধকরেই সাহিত্য গড়তে হয়। বলা যায় পৃথিবী যতই এগিয়ে যাচ্ছে ততই আশা ও আশংকা দুই-ই এগিয়ে যাচ্ছে মানুষের মন ও মেধার তালে তাল সামলিয়ে। নি:সন্দেহে বলা যায় সাহিত্যের জায়গাটি হবেব্যাপক প্রতিযোগিতামূলক। একটা সময় ছিল যখন কম্পিউটারের কথা চিন্তাতেই আসেনি। ক্ষুদ্র ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের মাধ্যমে লিখতে পারবে, লেখা ষ্টোর করে রাখতে পারবে বা লেখা পড়তে পারবেএটাও মানুষের চিন্তায় ছিল না। অথচ বর্তমানে কম্পিউটার কত আপডেট হয়েছে কাজের ক্ষেত্রে। মোবাইলের ছোট ডিভাইসে কত হাজার হাজার তথ্য ধারণ করে। যা প্রয়োজন মত কাজে লাগানো যাচ্ছে।জানা ও পড়া যাচ্ছে বিশ্ব সাহিত্যের নানান তথ্য ও উপাত্ত। প্রযুক্তিগত উন্নয়নে সাথে সাথে মানুষের দৈনন্দিত চাহিদা বৃদ্ধি ও আরাম আয়েশে উন্নততর ভাবনা বেড়ে গেছে এবং যাবে। মানুষ আরো সহজসরল ও কম সময়ে কাজ করার চেষ্টা করছে। সেখানে রোবট গুরুত্ব পূর্ণ ভূমিকা পালন করছে এবং করবে। এমনও হতে পারে মানুষের পাশাপাশি রোবটের আবেগের লিম্বিক সিস্টেম তৈরীর মাধ্যমেলেখালেখির আবেগ তৈরীর করে কবিতা, গল্প, নাটক ইত্যাদি লেখানোর চেষ্টা চলবে। বর্তমানে রোবট নিজে থেকে অনেকটা কথা বলা, প্রশ্নের উত্তর এবং দৈনন্দিন বাসা বাড়ির কাজ ও রেস্টুরেস্ট সার্ভিসদিচ্ছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানেও রোবটকে দিয়ে এক বিস্ময়কর অবদান রাখার চেষ্টা অব্যাহত ভাবে চলছে। চিকিৎসাজগতের বিস্ময়কর পরিবর্তন সুচিত হবে। কলকারখানায় রোবট কাজ উপযোগী হয়েউঠবে। এতে মানুষের কাজের গতি বেড়ে যাবে। মানুষের অসাধ্য রোবটের মাধ্যমে সাধন করাবে। ফলে মানুষের পরিশ্রম কম হবে। এতে মানুষের মানসিকতার পরিবর্তন হবে। কবিতা, গল্প, নাটক,সিনেমার দৃশ্য পট আমূল বদলে যাবে। কবিতা ও গল্পে উপমার বিষয় বদলে যাবে। অলংকার বিন্যাসে নতুন বৈজ্ঞানিক শব্দ যুক্ত হবে। যা আমরা ইতোমধ্যেই করছি। ফলে কবিতা, গল্প, উপন্যাস সহসাহিত্যের সব দিকে আঙ্গিক বদলে গিয়ে বিজ্ঞান ভিত্তিক সাহিত্য জগত সৃষ্টি হবে। আজকে যেটি কল্প বিজ্ঞান সেটি ধীরে ধীরে বাস্তবায়িত হবে। একই সাথে মানুষ আরো বেশী স্বপ্ন দেখতে কল্প বিজ্ঞানঅন্যরকম ভাবে চিন্তা করবে। আর সেটিও বাস্তবায়নের পদক্ষেপ নিতে থাকবে। মানুষের জৈবিক চাহিদা মেটাবে রোবটের মাধ্যমে। মানুষের মতই রোবট যৌন আচরণ করতে পারবে। মানুষের মতঅনুভূতি থাকবে। বুদ্ধিমত্তার সাথে কথাবার্তা চালানোর পাশাপাশি মানুষের সঙ্গে সম্পর্কও তৈরি করবে। প্রেমিক -প্রেমিকা হতে পারবে রোবট। এমনও হতে পারে তারা সন্তান জন্মদানে সক্ষমতা অর্জনকরবে। বর্তমানে রোবট গাড়ী চালাতে পারে। একসময় কল কারখানা ও হাসপাতাল চালাবে রোবট। ২০৪৫-২০৫০ সালের মধ্যে সহজ ভাষায় প্রযুক্তি বিজ্ঞানে যখন কম্পিউটারের বুদ্ধিমত্তা মানববুদ্ধিমত্তাকে অতিক্রম করবে এবং যার ফলে একটি শক্তিশালী সুপারিনটেনশান তৈরি হবে যার ক্ষমতা মানুষের চেয়ে অনেক বেশি হবে। যা ২০৪৫ এর মধ্যে সম্ভব হবার আশা করা যায়।

 

মানুষ অপার আশায় বাঁচে।তবে আশার কথা, মানুষ এই সময়েই পাবে উন্নত ভ্যাকসিন বাটিকা।রোগ মোকাবিলায় মানুষ আশা তীত সাফল্যের দেখা পেতে পারে।মানুষের গড় আয়ু বেড়ে দাঁড়াতে পারে ৮০বছরের কাছা কাছি।শিশু মৃত্যুর হার অনেকাংশে কমে যাবে।গবেষকরা আশা বাদী শিশু মৃত্যুর হার কমিয়ে চমক প্রদ এক পৃথিবীর সঙ্গে মানুষকে পরিচয় করে দেবে ২০৫০সাল নাগাদ।এই সুফল পরবর্তী ২০বছর ভোগ করতে পারবে পৃথিবী।এইচ আইভি ওক্যান্সারের মতো মরণ ব্যাধি

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» ধামইরহাট মঙ্গল খাল পুনঃ খনন হওয়ায় খুশি পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির উপকারভোগী কৃষকরা

» বেনাপোলে জয়যাত্রা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান সিষ্টার হেলেনা জাহাঙ্গীরের সুস্থতা কামনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

» ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়া

» কলাপাড়ায় তেগাছিয়ার খেঁয়াঘাট টি যেন এখন মরণ ফাঁদ! যাত্রীদের চরম দুর্ভ্যোগ

» টাকা ছাড়াই ১৮ জন বেকার যুবককে পুলিশে চাকরি দিলেন এসপি মাহবুবুর রহমান

» প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা বন্ধের পরিকল্পনা নেই: প্রতিমন্ত্রী

» এইচএসসির ফল ২০ থেকে ২২ জুলাইয়ের মধ্যে

» ৫০ লাখ সৌদি রিয়াল নিয়ে অপেক্ষায় সৌদি নারীরা, বিয়ে করতে পারেন যে কেউ!

» ১ টাকার কয়েন পানিতে ভাসলেই ৫ কোটি টাকা!

» ভারতের বিপক্ষে অনিশ্চিত মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন





ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১২ই আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দুই হাজার পঞ্চাশ সালে বাংলা সাহিত্য-রীনা তালুকদার

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

পৃথিবীর একটি ল্যান্ডমার্ক হিসাবে এক সময় পৃথিবীতে জনসংখ্যা ১ হাজার কোটি ছাড়িয়ে যাবে। বিজ্ঞানী, গবেষকরা এখনই ভাবতে শুরু করেছেন কেমন হতে পারে ৩৪ বছর পরের পৃথিবী। কোনদিকেযাচ্ছে পৃথিবীর ভবিষ্যৎ। ২০১৮  থেকে বত্রিশ বছর পর অর্র্থাৎ ২০৫০ সালে গল্প, কবিতা, মুক্ত গদ্য কেমন হবে সে আলোচনার আগে বলতে হয় লেখার জন্য যে সব উপকরণ রয়েছে প্রকৃতিতে,  মানুষেরব্যবহৃত ও অব্যবহৃত এবং স্বয়ং মানুষের মন ও মেধা কি অবস্থায় পৌঁছাবে। সেটি মুখ্য বিষয় মনে হচ্ছে। কেননা সাহিত্য নিরেট শুধু অভিধানগত শব্দ বসালেই হয়ে যায় না। নানা উপকরণে সমৃদ্ধকরেই সাহিত্য গড়তে হয়। বলা যায় পৃথিবী যতই এগিয়ে যাচ্ছে ততই আশা ও আশংকা দুই-ই এগিয়ে যাচ্ছে মানুষের মন ও মেধার তালে তাল সামলিয়ে। নি:সন্দেহে বলা যায় সাহিত্যের জায়গাটি হবেব্যাপক প্রতিযোগিতামূলক। একটা সময় ছিল যখন কম্পিউটারের কথা চিন্তাতেই আসেনি। ক্ষুদ্র ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের মাধ্যমে লিখতে পারবে, লেখা ষ্টোর করে রাখতে পারবে বা লেখা পড়তে পারবেএটাও মানুষের চিন্তায় ছিল না। অথচ বর্তমানে কম্পিউটার কত আপডেট হয়েছে কাজের ক্ষেত্রে। মোবাইলের ছোট ডিভাইসে কত হাজার হাজার তথ্য ধারণ করে। যা প্রয়োজন মত কাজে লাগানো যাচ্ছে।জানা ও পড়া যাচ্ছে বিশ্ব সাহিত্যের নানান তথ্য ও উপাত্ত। প্রযুক্তিগত উন্নয়নে সাথে সাথে মানুষের দৈনন্দিত চাহিদা বৃদ্ধি ও আরাম আয়েশে উন্নততর ভাবনা বেড়ে গেছে এবং যাবে। মানুষ আরো সহজসরল ও কম সময়ে কাজ করার চেষ্টা করছে। সেখানে রোবট গুরুত্ব পূর্ণ ভূমিকা পালন করছে এবং করবে। এমনও হতে পারে মানুষের পাশাপাশি রোবটের আবেগের লিম্বিক সিস্টেম তৈরীর মাধ্যমেলেখালেখির আবেগ তৈরীর করে কবিতা, গল্প, নাটক ইত্যাদি লেখানোর চেষ্টা চলবে। বর্তমানে রোবট নিজে থেকে অনেকটা কথা বলা, প্রশ্নের উত্তর এবং দৈনন্দিন বাসা বাড়ির কাজ ও রেস্টুরেস্ট সার্ভিসদিচ্ছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানেও রোবটকে দিয়ে এক বিস্ময়কর অবদান রাখার চেষ্টা অব্যাহত ভাবে চলছে। চিকিৎসাজগতের বিস্ময়কর পরিবর্তন সুচিত হবে। কলকারখানায় রোবট কাজ উপযোগী হয়েউঠবে। এতে মানুষের কাজের গতি বেড়ে যাবে। মানুষের অসাধ্য রোবটের মাধ্যমে সাধন করাবে। ফলে মানুষের পরিশ্রম কম হবে। এতে মানুষের মানসিকতার পরিবর্তন হবে। কবিতা, গল্প, নাটক,সিনেমার দৃশ্য পট আমূল বদলে যাবে। কবিতা ও গল্পে উপমার বিষয় বদলে যাবে। অলংকার বিন্যাসে নতুন বৈজ্ঞানিক শব্দ যুক্ত হবে। যা আমরা ইতোমধ্যেই করছি। ফলে কবিতা, গল্প, উপন্যাস সহসাহিত্যের সব দিকে আঙ্গিক বদলে গিয়ে বিজ্ঞান ভিত্তিক সাহিত্য জগত সৃষ্টি হবে। আজকে যেটি কল্প বিজ্ঞান সেটি ধীরে ধীরে বাস্তবায়িত হবে। একই সাথে মানুষ আরো বেশী স্বপ্ন দেখতে কল্প বিজ্ঞানঅন্যরকম ভাবে চিন্তা করবে। আর সেটিও বাস্তবায়নের পদক্ষেপ নিতে থাকবে। মানুষের জৈবিক চাহিদা মেটাবে রোবটের মাধ্যমে। মানুষের মতই রোবট যৌন আচরণ করতে পারবে। মানুষের মতঅনুভূতি থাকবে। বুদ্ধিমত্তার সাথে কথাবার্তা চালানোর পাশাপাশি মানুষের সঙ্গে সম্পর্কও তৈরি করবে। প্রেমিক -প্রেমিকা হতে পারবে রোবট। এমনও হতে পারে তারা সন্তান জন্মদানে সক্ষমতা অর্জনকরবে। বর্তমানে রোবট গাড়ী চালাতে পারে। একসময় কল কারখানা ও হাসপাতাল চালাবে রোবট। ২০৪৫-২০৫০ সালের মধ্যে সহজ ভাষায় প্রযুক্তি বিজ্ঞানে যখন কম্পিউটারের বুদ্ধিমত্তা মানববুদ্ধিমত্তাকে অতিক্রম করবে এবং যার ফলে একটি শক্তিশালী সুপারিনটেনশান তৈরি হবে যার ক্ষমতা মানুষের চেয়ে অনেক বেশি হবে। যা ২০৪৫ এর মধ্যে সম্ভব হবার আশা করা যায়।

 

মানুষ অপার আশায় বাঁচে।তবে আশার কথা, মানুষ এই সময়েই পাবে উন্নত ভ্যাকসিন বাটিকা।রোগ মোকাবিলায় মানুষ আশা তীত সাফল্যের দেখা পেতে পারে।মানুষের গড় আয়ু বেড়ে দাঁড়াতে পারে ৮০বছরের কাছা কাছি।শিশু মৃত্যুর হার অনেকাংশে কমে যাবে।গবেষকরা আশা বাদী শিশু মৃত্যুর হার কমিয়ে চমক প্রদ এক পৃথিবীর সঙ্গে মানুষকে পরিচয় করে দেবে ২০৫০সাল নাগাদ।এই সুফল পরবর্তী ২০বছর ভোগ করতে পারবে পৃথিবী।এইচ আইভি ওক্যান্সারের মতো মরণ ব্যাধি

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited