কুয়াকাটা খানাবাদ ডিগ্রি কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানববন্ধন

Spread the love

কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি॥ কুয়াকাটা খানাবাদ ডিগ্রি কলেজ প্রভাষক ও সাংস্কৃতিককর্মী শহিদুল ইসলাম শাহিনের উপর হামলা, বাড়িঘরে ভাংচুর ও লুটপাটের প্রতিবাদে কুয়াকাটার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। শনিবার বেলা ১১টায় কুয়াকাটা খানাবাদ ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন সড়কে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা কলেজ তেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল রেব করেন। মিছিল শেষে কলেজের সম্মুখে সড়কে এসে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা। এসময় ছাত্র ছাত্রীরা বলেন, আমাদের শিক্ষকের উপর ও তার বসতবাড়িতে হামলা হয়েছে, মালামাল লুট করা হয়েছে আমরা সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমূল শাস্তি চাই।

দ্রুত সময়ের মধ্যে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় না আনলে আমরা কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবো। কন্নাভেজা কন্ঠে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সি.এম. সাইফুর রহমান খান বলেন, আমরা জাতীয় গড়ার কারীগড়রা যদি নিরাপদ বসবাস করতে না পারি তাহলে কিভাবে জাতী গঠন করবো। আমরা শিক্ষক সমাজ এই বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। অবিলম্ভে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাই। তিনি আরও বলেন, আমরা শিক্ষক সমাজ আজ (শনিবার) বিকেলে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট স্মারকলিপি পেশ করবো এবং আগামীকাল (রবিবার) উপজেলার সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একঘন্টার কর্মবিরতি পালন করবে।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন, কলেজের প্রভাষক এম. জাকির হোসাইন, ফিরোজ আলম, সোহরাফ হোসাইন, ফরিদুর রহমান খান প্রমূখ। একই সময় লতাচাপলী ইউনিয়নের কুয়াকাটা বঙ্গবন্ধু মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ফাতেমা হাই মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মুসুল্লীয়াবাদ এ.কে মাধ্যমিক বিদ্যালয় মানববন্ধন করেছেন। মানববন্ধনে কুয়াকাটা বঙ্গবন্ধু মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খলিলুর রহমান, সহকারী শিক্ষক মাওঃ মাঈনুল ইসলাম মান্নান, নিজামউদ্দিন, ফাতেমা হাই মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা, মুসুল্লীয়াবাদ এ.কে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনোরঞ্জন গাইন বক্তব্য রাখেন।

উল্লেখ্য যে, গত শুক্রবার বিকালে কুয়াকাটা খানাবাদ কলেজের প্রভাষক শহিদুল ইসলাম শাহিন ও তার স্ত্রী শিক্ষিকা শাহিনুর বেগমের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা। বাড়িঘর দখলের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়ে নগত ১২ লক্ষ টাকাসহ জমির দলিলপত্র লুট করে নিয়ে যায় হামলাকারীরা। মুকুলের নেতৃত্বে নাছির, নুরআলম, জাকারিয়া জাহিদসহ অর্ধশতাধিক সন্ত্রীরা দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা চালায়। এসময় ৩টি সিসি টিভি ক্যামেরা, মনিটরসহ বসত ঘরের আসবাবপত্রে ব্যাপক ভাংচুর চালানো হয়। সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত শহিদুল ইসলাম শাহীন, তার স্ত্রী শাহিনুর বেগম, বড় ভাই মিলন, বাড়ির কেয়ারটেকার ও ভাড়াটিয়াসহ ৫জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় প্রভাষক শহিদুল ইসলাম শাহীনকে কুয়াকাটা হাসপাতালে নেয়া হয়।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মনিরুজ্জামান তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল সেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। বর্তমানে তিনি বরিশাল সেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এদিকে ঘটনার দিন রাত ৩টার দিকে প্রভাষক শহিদুল ইসলাম শাহিনের স্ত্রী শাহিনুর বেগম বাদী হয়ে মহিপুর থানায় ০৪/১৮নং একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় আঃ রহিম মুকুলকে প্রধান আসামী করে মোঃ নাসির, মোঃ জাকারিয়া, মোঃ নুরআলমসহ অজ্ঞাত ৫/৬জনকে আসামী করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে বস্তির আগুনে ৩ হাজার পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত

» কবুতর পালন করে স্বাবলম্বী হওয়ার চেষ্টা দশম শ্রেণীর ছাত্র রূপঙ্কর চৌধুরী

» সেভ দ্য রোড ও অনলাইন প্রেস ইউনিটির উদ্যেগে বন্যাদূর্গত পরিবারকে ত্রাণ প্রদান

» কলাপাড়া প্রেসক্লাবের ১৭তম দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন

» রাজধানীর মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে ভয়াবহ আগুন

» বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দশমিনায় শোক দিবস পালিত

» রাজনগরে তারাপাশা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল

» বাউফলে জাতীয় শোক দিবস পালিত

» যথাযোগ্য মর্যাদায় পবিপ্রবিতে জাতীয় শোক দিবস পালিত

» কলাপাড়ায় জাতীয় শোক দিবস পালিত

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ২রা ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কুয়াকাটা খানাবাদ ডিগ্রি কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানববন্ধন

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি॥ কুয়াকাটা খানাবাদ ডিগ্রি কলেজ প্রভাষক ও সাংস্কৃতিককর্মী শহিদুল ইসলাম শাহিনের উপর হামলা, বাড়িঘরে ভাংচুর ও লুটপাটের প্রতিবাদে কুয়াকাটার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। শনিবার বেলা ১১টায় কুয়াকাটা খানাবাদ ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন সড়কে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা কলেজ তেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল রেব করেন। মিছিল শেষে কলেজের সম্মুখে সড়কে এসে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা। এসময় ছাত্র ছাত্রীরা বলেন, আমাদের শিক্ষকের উপর ও তার বসতবাড়িতে হামলা হয়েছে, মালামাল লুট করা হয়েছে আমরা সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমূল শাস্তি চাই।

দ্রুত সময়ের মধ্যে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় না আনলে আমরা কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবো। কন্নাভেজা কন্ঠে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সি.এম. সাইফুর রহমান খান বলেন, আমরা জাতীয় গড়ার কারীগড়রা যদি নিরাপদ বসবাস করতে না পারি তাহলে কিভাবে জাতী গঠন করবো। আমরা শিক্ষক সমাজ এই বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। অবিলম্ভে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাই। তিনি আরও বলেন, আমরা শিক্ষক সমাজ আজ (শনিবার) বিকেলে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট স্মারকলিপি পেশ করবো এবং আগামীকাল (রবিবার) উপজেলার সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একঘন্টার কর্মবিরতি পালন করবে।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন, কলেজের প্রভাষক এম. জাকির হোসাইন, ফিরোজ আলম, সোহরাফ হোসাইন, ফরিদুর রহমান খান প্রমূখ। একই সময় লতাচাপলী ইউনিয়নের কুয়াকাটা বঙ্গবন্ধু মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ফাতেমা হাই মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মুসুল্লীয়াবাদ এ.কে মাধ্যমিক বিদ্যালয় মানববন্ধন করেছেন। মানববন্ধনে কুয়াকাটা বঙ্গবন্ধু মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খলিলুর রহমান, সহকারী শিক্ষক মাওঃ মাঈনুল ইসলাম মান্নান, নিজামউদ্দিন, ফাতেমা হাই মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা, মুসুল্লীয়াবাদ এ.কে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনোরঞ্জন গাইন বক্তব্য রাখেন।

উল্লেখ্য যে, গত শুক্রবার বিকালে কুয়াকাটা খানাবাদ কলেজের প্রভাষক শহিদুল ইসলাম শাহিন ও তার স্ত্রী শিক্ষিকা শাহিনুর বেগমের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা। বাড়িঘর দখলের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়ে নগত ১২ লক্ষ টাকাসহ জমির দলিলপত্র লুট করে নিয়ে যায় হামলাকারীরা। মুকুলের নেতৃত্বে নাছির, নুরআলম, জাকারিয়া জাহিদসহ অর্ধশতাধিক সন্ত্রীরা দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা চালায়। এসময় ৩টি সিসি টিভি ক্যামেরা, মনিটরসহ বসত ঘরের আসবাবপত্রে ব্যাপক ভাংচুর চালানো হয়। সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত শহিদুল ইসলাম শাহীন, তার স্ত্রী শাহিনুর বেগম, বড় ভাই মিলন, বাড়ির কেয়ারটেকার ও ভাড়াটিয়াসহ ৫জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় প্রভাষক শহিদুল ইসলাম শাহীনকে কুয়াকাটা হাসপাতালে নেয়া হয়।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মনিরুজ্জামান তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল সেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। বর্তমানে তিনি বরিশাল সেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এদিকে ঘটনার দিন রাত ৩টার দিকে প্রভাষক শহিদুল ইসলাম শাহিনের স্ত্রী শাহিনুর বেগম বাদী হয়ে মহিপুর থানায় ০৪/১৮নং একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় আঃ রহিম মুকুলকে প্রধান আসামী করে মোঃ নাসির, মোঃ জাকারিয়া, মোঃ নুরআলমসহ অজ্ঞাত ৫/৬জনকে আসামী করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited