ক্ষমতায় থাকি না থাকি উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখুন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

Spread the love

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সামনে নির্বাচন জানি না আবার ক্ষমতায় আসতে পারব কি না। যদি আসি তো ভালো, আর যদি না আসতে পারি আপনাদের কাছে আমার একটা অনুরোধ- দেশের উন্নয়নের ধারাটা অব্যাহত রাখবেন। রাজধানীর ফার্মগেটে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটশন প্রাঙ্গণে কৃষিবিদদের ষষ্ঠ জাতীয় কনভেনশন উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।প্রধানমন্ত্রী বলেন, তৃতীয় মেয়াদ জনগণ ভোট দিলে ক্ষমতায় আসব কিন্তু ভোট না দিলে বলতে পারি না যে আবার ক্ষমতায় আসব।

তিনি বলেন, আমরা ক্ষমতায় আসার পর কৃষি গবেষণায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছি। কম জমিতে কীভাবে বেশি ফসল করতে হবে তার ওপর গুরুত্ব দিয়েছি। লবণাক্ত জমিতে, খরার সময় এবং জলমগ্ন জমিতে ধানচাষ করার জন্য আলাদা আলাদা ধান উদ্ভাবন করা হয়েছে। যে কারণে দেশের চারিদিকে সমানভাবে ধান উৎপাদন হচ্ছে। ফলে তৃণমূলের মানুষ অর্থনৈতিক সুফল পাচ্ছে। একটি বাড়ি একটি খামারের মধ্যদিয়ে তৃণমূলের মানুষকে আমরা স্বাবলম্বী করার চেষ্টা করছি। তাদের বলা হয়েছে এক ইঞ্চি জায়গা যেন খালি পড়ে না থাকে।

 

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘কৃষকদের উৎপাদন সহযোগিতার জন্য মাত্র ১০ টাকায় অ্যাকাউন্ট করার সুযোগ দিয়েছি। ফলে সরকারের দেয়া ভর্তুকির টাকা সরাসরি কৃষকের অ্যাকাউন্টে চলে যাচ্ছে। কৃষিঋণ কৃষকের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে। সার নিয়ে অার কোনো লুকোচুরি নেই। অথচ এই সারের জন্য বিএনপি সরকার ১৮ জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করেছে। সেচের দাবিতে মিছিল করতে গিয়ে অনেক কৃষককে প্রাণ দিতে হয়েছে।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ থেকে শত বছর পরে আমরা বাংলাদেশকে কেমন দেখতে চাই সেভাবে পরিকল্পনা করছি। এ জন্য ডেল্টা প্ল্যান গ্রহণ করে এগিয়ে যাচ্ছি। আমরা বিশাল সমুদ্রসীমা জয় করেছি। এই সমুদ্রসীমায় শুধু খনিজ নয়, মৎস্যসম্পদ যেন ভাণ্ডারে পরিণত হয় সে জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। কৃষির সার্বিক উন্নয়নের জন্য কৃষি কর্মকর্তাদের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করা হয়েছে। তিনি বলেন, গত কয়েক দশকে কৃষিতে বাংলাদেশের সাফল্য ঈর্ষণীয়। ধান, সবজি, মাছ উৎপাদনে বিশ্বে প্রথম সারির দিকে বাংলাদেশ। স্বাবলম্বী হতে যাচ্ছে, মাংস ও ডিম উৎপাদনেও।

 

সরকারপ্রধান বলেন, স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু কৃষি উন্নয়নে ব্যাপক পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। তবে পরবর্তী সময়ের সরকারগুলো তা নষ্ট করে দিয়েছিল। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগের কৃষি পরিকল্পনায় খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয় দেশ। আর এ খাতে বিগত সরকারগুলোর পরনির্ভরশীল নীতি নিয়ে আক্ষেপ করেন প্রধানমন্ত্রী।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করবেন ব্যারিস্টার সুমন (ভিডিও)

» বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলা: আদালতে মিন্নির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

» ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগ সঠিক নয়: মার্কিন রাষ্ট্রদূত (ভিডিও)

» গলাচিপায় নির্মানাধীনব্রিজের ডাইভার্সন বাধ কেটে দিয়েছে এলাকাবাসী

» মৌলভীবাজারে বন্যা কবলিত এলাকায় বাড়ছে পানি বাহিত রোগ

» বৃদ্ধ নারীকে ৭ টি মামলা দিয়ে হয়রানি, প্রাননাশের হুমকিতে দিশেহারা!

» শিশু ও নারী নির্যাতন এবং যৌন হয়রানীর প্রতিবাদ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

» রাণীনগরের সেই বেড়ি বাঁধ ভেঙ্গে ৩টি গ্রাম প্লাবিত; পানি বন্দি প্রায় ১৫ হাজার মানুষ

» সরকারি হাসপাতালে নবজাতকের গলা কেটে পালিয়ে গেলেন নার্স

» ঔষধ কোম্পানী প্রতিনিধিদের সুনির্দিষ্ট নীতিমালাসহ পাঁচ দফা দাবি নিয়ে মানববন্ধন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৫ই শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ক্ষমতায় থাকি না থাকি উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখুন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সামনে নির্বাচন জানি না আবার ক্ষমতায় আসতে পারব কি না। যদি আসি তো ভালো, আর যদি না আসতে পারি আপনাদের কাছে আমার একটা অনুরোধ- দেশের উন্নয়নের ধারাটা অব্যাহত রাখবেন। রাজধানীর ফার্মগেটে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটশন প্রাঙ্গণে কৃষিবিদদের ষষ্ঠ জাতীয় কনভেনশন উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।প্রধানমন্ত্রী বলেন, তৃতীয় মেয়াদ জনগণ ভোট দিলে ক্ষমতায় আসব কিন্তু ভোট না দিলে বলতে পারি না যে আবার ক্ষমতায় আসব।

তিনি বলেন, আমরা ক্ষমতায় আসার পর কৃষি গবেষণায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছি। কম জমিতে কীভাবে বেশি ফসল করতে হবে তার ওপর গুরুত্ব দিয়েছি। লবণাক্ত জমিতে, খরার সময় এবং জলমগ্ন জমিতে ধানচাষ করার জন্য আলাদা আলাদা ধান উদ্ভাবন করা হয়েছে। যে কারণে দেশের চারিদিকে সমানভাবে ধান উৎপাদন হচ্ছে। ফলে তৃণমূলের মানুষ অর্থনৈতিক সুফল পাচ্ছে। একটি বাড়ি একটি খামারের মধ্যদিয়ে তৃণমূলের মানুষকে আমরা স্বাবলম্বী করার চেষ্টা করছি। তাদের বলা হয়েছে এক ইঞ্চি জায়গা যেন খালি পড়ে না থাকে।

 

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘কৃষকদের উৎপাদন সহযোগিতার জন্য মাত্র ১০ টাকায় অ্যাকাউন্ট করার সুযোগ দিয়েছি। ফলে সরকারের দেয়া ভর্তুকির টাকা সরাসরি কৃষকের অ্যাকাউন্টে চলে যাচ্ছে। কৃষিঋণ কৃষকের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে। সার নিয়ে অার কোনো লুকোচুরি নেই। অথচ এই সারের জন্য বিএনপি সরকার ১৮ জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করেছে। সেচের দাবিতে মিছিল করতে গিয়ে অনেক কৃষককে প্রাণ দিতে হয়েছে।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ থেকে শত বছর পরে আমরা বাংলাদেশকে কেমন দেখতে চাই সেভাবে পরিকল্পনা করছি। এ জন্য ডেল্টা প্ল্যান গ্রহণ করে এগিয়ে যাচ্ছি। আমরা বিশাল সমুদ্রসীমা জয় করেছি। এই সমুদ্রসীমায় শুধু খনিজ নয়, মৎস্যসম্পদ যেন ভাণ্ডারে পরিণত হয় সে জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। কৃষির সার্বিক উন্নয়নের জন্য কৃষি কর্মকর্তাদের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করা হয়েছে। তিনি বলেন, গত কয়েক দশকে কৃষিতে বাংলাদেশের সাফল্য ঈর্ষণীয়। ধান, সবজি, মাছ উৎপাদনে বিশ্বে প্রথম সারির দিকে বাংলাদেশ। স্বাবলম্বী হতে যাচ্ছে, মাংস ও ডিম উৎপাদনেও।

 

সরকারপ্রধান বলেন, স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু কৃষি উন্নয়নে ব্যাপক পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। তবে পরবর্তী সময়ের সরকারগুলো তা নষ্ট করে দিয়েছিল। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগের কৃষি পরিকল্পনায় খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয় দেশ। আর এ খাতে বিগত সরকারগুলোর পরনির্ভরশীল নীতি নিয়ে আক্ষেপ করেন প্রধানমন্ত্রী।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited