গোপালগঞ্জে সাত বছরের প্রেম : পালিয়ে বেড়াচ্ছেন প্রেমিক

Spread the love

নিজস্ব প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ: সাত বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক। অবশেষে প্রেমিকাকে বিয়ে করে বিপাকে পড়েছেন প্রেমিক। প্রেমিকার প্রভাবশালী বাবার মিথ্যা মামলার আসামি হয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন প্রেমিক। ঘটনাটি ঘটেছে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় প্রেমিকার বাবার করা অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার আসামি হয়ে বর্তমানে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন প্রেমিক তারক সাহা।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কোটালীপাড়া উপজেলার ঘাঘর বাজারের ব্যবসায়ী শংকর সাহার ভাগ্নে তারক সাহার সঙ্গে একই বাজারের ব্যবসায়ী স্বপন সাহার মেয়ে লোপা সাহার সাত বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। গত ১২ জুলাই তারক ও লোপা গোপালগঞ্জ খাটরা সার্বজনীন কালী মন্দিরে গিয়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। ১৫ জুলাই গোপালগঞ্জ নোটারি পাবলিকের কার্যালয়ে গিয়ে এফিডেভিট করে প্রেমিক যুগল। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর লোপার বাবা স্বপন সাহা সম্প্রতি লোপাকে দিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে এফিডেভিটের মাধ্যমে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটান।

 

লোপার বাবা স্বপন সাহা গোপালগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে তারক সাহা ও তার তিন মামা এবং খালাতো ভাই পরিতোষ সাহাকে আসামি করে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে কোটালীপাড়া থানাকে এফআইআর হিসেবে গ্রহণের নির্দেশ দেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে মামলাটি এফআইআর করে পুলিশ। এ মামলার পর তারক এবং তার আত্মীয়-স্বজন এলাকা ছেলে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে তারক সাহা বলেন, আমার শ্বশুর স্বপন সাহা জোর করে আমার স্ত্রীকে আটকে রেখেছেন। তিনি আমাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছেন। আমাকে ও আমার আত্মীয় স্বজনদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছেন। তারকের মামা শংকর সাহা বলেন, আমার ভাগ্নের বাড়ি মুকসুদপুর উপজেলায়। সে আমার দোকানে কাজ করে। তার প্রেম ও বিয়ে সম্পর্কে আমরা কিছুই জানি না। স্বপন সাহা মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাদের হয়রানি করছেন।

 

এ ব্যাপারে প্রেমিকার বাবা ও মামলার বাদী স্বপন সাহার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কোনো প্রকার মন্তব্য করতে রাজি হননি।
কোটালীপাড়া সাহা সম্প্রদায়ের অভিভাবক ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি যশোদা জীবন সাহা বলেন, যে কোনো ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে গিয়ে প্রাপ্ত বয়স্ক দুই ছেলে-মেয়ে একে অপরকে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করে পুরোহিতের উপস্থিতিতে ছেলে মেয়েকে শাখা-সিঁদুর পরিয়ে দিলে বিবাহ হিসেবে গণ্য হয়। এফিডেভিটের মাধ্যমে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটানোর ধর্মীয় কোনো বিধান নেই। এ বিষয়ে কোটালীপাড়া থানা পুলিশের ওসি মোহাম্মদ কামরুল ফারুক বলেন, আদালতের নির্দেশে মামলাটি এফআইআর করা হয়েছে। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» গলাচিপায় ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যালয়ে পাঠদান

» কলাপাড়ায় গাঁজা সহ ব্যবসায়ী আটক

» এবার হাসপাতালে যাওয়ার পথে নার্সকে কুপিয়ে হত্যা

» গাছের সাথে বেঁধে গৃহবধূকে নির্যাতন

» খুনির সঙ্গে রিফাতের স্ত্রী মিন্নির ‘সম্পর্কের তথ্য’ ফাঁস

» দশমিনা-উলানিয়া সড়কের কারপিটিংপিচ উঠে খানা খন্দের সৃষ্টি

» দশমিনায় চাঁই ব্যবহারের ফলে: গল্পেরমত থেকে যাবে দেশী প্রজাতির মাছ

» কলাপাড়ায় গৃহবধু হত্যা মামলায় শ্বশুড় গ্রেফতার

» সীমান্ত প্রেসক্লাব বেনাপোলের প্রচার সম্পাদক রাসেলের উপর প্রাননাশের হুমকিতে থানায় জিডি

» কেরোসিনের চুলা বিস্ফোরণে তিন ছাত্রী দগ্ধ

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১৩ই আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গোপালগঞ্জে সাত বছরের প্রেম : পালিয়ে বেড়াচ্ছেন প্রেমিক

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

নিজস্ব প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ: সাত বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক। অবশেষে প্রেমিকাকে বিয়ে করে বিপাকে পড়েছেন প্রেমিক। প্রেমিকার প্রভাবশালী বাবার মিথ্যা মামলার আসামি হয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন প্রেমিক। ঘটনাটি ঘটেছে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় প্রেমিকার বাবার করা অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার আসামি হয়ে বর্তমানে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন প্রেমিক তারক সাহা।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কোটালীপাড়া উপজেলার ঘাঘর বাজারের ব্যবসায়ী শংকর সাহার ভাগ্নে তারক সাহার সঙ্গে একই বাজারের ব্যবসায়ী স্বপন সাহার মেয়ে লোপা সাহার সাত বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। গত ১২ জুলাই তারক ও লোপা গোপালগঞ্জ খাটরা সার্বজনীন কালী মন্দিরে গিয়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। ১৫ জুলাই গোপালগঞ্জ নোটারি পাবলিকের কার্যালয়ে গিয়ে এফিডেভিট করে প্রেমিক যুগল। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর লোপার বাবা স্বপন সাহা সম্প্রতি লোপাকে দিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে এফিডেভিটের মাধ্যমে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটান।

 

লোপার বাবা স্বপন সাহা গোপালগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে তারক সাহা ও তার তিন মামা এবং খালাতো ভাই পরিতোষ সাহাকে আসামি করে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে কোটালীপাড়া থানাকে এফআইআর হিসেবে গ্রহণের নির্দেশ দেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে মামলাটি এফআইআর করে পুলিশ। এ মামলার পর তারক এবং তার আত্মীয়-স্বজন এলাকা ছেলে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে তারক সাহা বলেন, আমার শ্বশুর স্বপন সাহা জোর করে আমার স্ত্রীকে আটকে রেখেছেন। তিনি আমাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছেন। আমাকে ও আমার আত্মীয় স্বজনদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছেন। তারকের মামা শংকর সাহা বলেন, আমার ভাগ্নের বাড়ি মুকসুদপুর উপজেলায়। সে আমার দোকানে কাজ করে। তার প্রেম ও বিয়ে সম্পর্কে আমরা কিছুই জানি না। স্বপন সাহা মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাদের হয়রানি করছেন।

 

এ ব্যাপারে প্রেমিকার বাবা ও মামলার বাদী স্বপন সাহার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কোনো প্রকার মন্তব্য করতে রাজি হননি।
কোটালীপাড়া সাহা সম্প্রদায়ের অভিভাবক ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি যশোদা জীবন সাহা বলেন, যে কোনো ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে গিয়ে প্রাপ্ত বয়স্ক দুই ছেলে-মেয়ে একে অপরকে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করে পুরোহিতের উপস্থিতিতে ছেলে মেয়েকে শাখা-সিঁদুর পরিয়ে দিলে বিবাহ হিসেবে গণ্য হয়। এফিডেভিটের মাধ্যমে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটানোর ধর্মীয় কোনো বিধান নেই। এ বিষয়ে কোটালীপাড়া থানা পুলিশের ওসি মোহাম্মদ কামরুল ফারুক বলেন, আদালতের নির্দেশে মামলাটি এফআইআর করা হয়েছে। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited