কক্সবাজারের কুতুপালং ক্যাম্পে অবস্থানরত তিন লক্ষাধিক রোহিঙ্গা অপুষ্টিতে ভুগছে

Spread the love

কক্সবাজারের কুতুপালং ক্যাম্পে অবস্থানরত তিন লক্ষাধিক রোহিঙ্গা অপুষ্টিজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছে। এসব রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশ সরকার ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন কর্মসূচির আওতায় স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া হচ্ছে। সরকারের স্থানীয় প্রশাসন ও কুতুপালংয়ে কর্মরত আন্তর্জাতিক সংস্থা এ সেবা দিচ্ছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। তথ্য অনুযায়ী, মিয়ানমারে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত ও নির্যাতনে পালিয়ে আসা এসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আসার সময়ে খাদ্যের অভাব ও বিভিন্ন প্রকার রোগে শোকে আক্রান্ত ছিল।

 

বাংলাদেশের কুতুপালং ক্যাম্পে স্থান পাওয়ার পর থেকে এসব মানুষের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর ৩ লাখ ১৮ হাজার ৭৭৮ জন রোহিঙ্গা যারা অপুষ্টিতজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছে। এর মধ্যে অধিকাংশ শিশু ও গর্ভবতী নারী। এর মধ্যে ৪ আগস্ট পর্যন্ত ১ লাখ ৪২ হাজার ৮২৩ জনকে পুষ্টি সেবা দেওয়া হয়েছে; যা মোট পুষ্টিহীন রোহিঙ্গার ৪৫ শতাংশ। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ৫ বছরের নিচে ১ লাখ ৩৬ হাজার ৮৮২ শিশু তীব্র অপুষ্টিজনিত সমস্যায় ভুগছে। এ সব শিশুকে সুস্থ করে তোলার জন্য র‌্যাংকেট সাপ্লিমেন্টারি ফিডিং প্রোগ্রামের আওতায় আনা হয়েছে। যার ১২ হাজার ৬৬৮ শিশুকে পুষ্টিজনিত সমস্যা দূর করতে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। গর্ভবতী ও প্রাপ্তবয়স্ক মোট ৮৩ হাজার ১৪৫ জন মহিলাকে পুষ্টিজনিত সেবা দেওয়া হয়েছে।

 

কক্সবাজারে অবস্থিত ১১ লাখ ১৮ হাজার ৫৭৯ জন রোহিঙ্গা অস্থায়ী ১ লাখ ১১ হাজার ঘরে বসবাস করছে। তাদের জন্য মোট ৭টি ফিল্ড হাসপাতাল ও ১৬২টি প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যা কেন্দ্র স্থাপন করে সরকার। এর মধ্যে ১০টি হাসপাতাল/স্বাস্থ্যকেন্দ্র ২৪ ঘণ্টা সেবা প্রদান করছে। কুতুপালংয়ে অবস্থানরত সাধারণ শিশু ও নারীদের পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের স্থানীয় ১২টি কেন্দ্রের মাধ্যমে পরিবার পরিকল্পনা এবং মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করছে। এছাড়া এমএসএফ ও আরএইচইউ পরিচালিত স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে বাড়িয়ে ৩৫ শয্যার হাসপাতালে রূপান্তর করা হয়েছে। এসব রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এখন পর্যন্ত গর্ভবতী নারী চিহ্নিত হয়েছে ৩১ হাজার ২৫৮ জন। শিশু জন্মগ্রহণ করেছে ৩ হাজার ৫৫৪ জন। আর এতিম শিশু রয়েছে ৩৯ হাজার ৮৪১ জন। কক্সবাজারের সিভিল সার্জন অফিসের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» গলাচিপায় ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যালয়ে পাঠদান

» কলাপাড়ায় গাঁজা সহ ব্যবসায়ী আটক

» এবার হাসপাতালে যাওয়ার পথে নার্সকে কুপিয়ে হত্যা

» গাছের সাথে বেঁধে গৃহবধূকে নির্যাতন

» খুনির সঙ্গে রিফাতের স্ত্রী মিন্নির ‘সম্পর্কের তথ্য’ ফাঁস

» দশমিনা-উলানিয়া সড়কের কারপিটিংপিচ উঠে খানা খন্দের সৃষ্টি

» দশমিনায় চাঁই ব্যবহারের ফলে: গল্পেরমত থেকে যাবে দেশী প্রজাতির মাছ

» কলাপাড়ায় গৃহবধু হত্যা মামলায় শ্বশুড় গ্রেফতার

» সীমান্ত প্রেসক্লাব বেনাপোলের প্রচার সম্পাদক রাসেলের উপর প্রাননাশের হুমকিতে থানায় জিডি

» কেরোসিনের চুলা বিস্ফোরণে তিন ছাত্রী দগ্ধ

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১৩ই আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কক্সবাজারের কুতুপালং ক্যাম্পে অবস্থানরত তিন লক্ষাধিক রোহিঙ্গা অপুষ্টিতে ভুগছে

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

কক্সবাজারের কুতুপালং ক্যাম্পে অবস্থানরত তিন লক্ষাধিক রোহিঙ্গা অপুষ্টিজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছে। এসব রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশ সরকার ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন কর্মসূচির আওতায় স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া হচ্ছে। সরকারের স্থানীয় প্রশাসন ও কুতুপালংয়ে কর্মরত আন্তর্জাতিক সংস্থা এ সেবা দিচ্ছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। তথ্য অনুযায়ী, মিয়ানমারে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত ও নির্যাতনে পালিয়ে আসা এসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আসার সময়ে খাদ্যের অভাব ও বিভিন্ন প্রকার রোগে শোকে আক্রান্ত ছিল।

 

বাংলাদেশের কুতুপালং ক্যাম্পে স্থান পাওয়ার পর থেকে এসব মানুষের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর ৩ লাখ ১৮ হাজার ৭৭৮ জন রোহিঙ্গা যারা অপুষ্টিতজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছে। এর মধ্যে অধিকাংশ শিশু ও গর্ভবতী নারী। এর মধ্যে ৪ আগস্ট পর্যন্ত ১ লাখ ৪২ হাজার ৮২৩ জনকে পুষ্টি সেবা দেওয়া হয়েছে; যা মোট পুষ্টিহীন রোহিঙ্গার ৪৫ শতাংশ। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ৫ বছরের নিচে ১ লাখ ৩৬ হাজার ৮৮২ শিশু তীব্র অপুষ্টিজনিত সমস্যায় ভুগছে। এ সব শিশুকে সুস্থ করে তোলার জন্য র‌্যাংকেট সাপ্লিমেন্টারি ফিডিং প্রোগ্রামের আওতায় আনা হয়েছে। যার ১২ হাজার ৬৬৮ শিশুকে পুষ্টিজনিত সমস্যা দূর করতে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। গর্ভবতী ও প্রাপ্তবয়স্ক মোট ৮৩ হাজার ১৪৫ জন মহিলাকে পুষ্টিজনিত সেবা দেওয়া হয়েছে।

 

কক্সবাজারে অবস্থিত ১১ লাখ ১৮ হাজার ৫৭৯ জন রোহিঙ্গা অস্থায়ী ১ লাখ ১১ হাজার ঘরে বসবাস করছে। তাদের জন্য মোট ৭টি ফিল্ড হাসপাতাল ও ১৬২টি প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যা কেন্দ্র স্থাপন করে সরকার। এর মধ্যে ১০টি হাসপাতাল/স্বাস্থ্যকেন্দ্র ২৪ ঘণ্টা সেবা প্রদান করছে। কুতুপালংয়ে অবস্থানরত সাধারণ শিশু ও নারীদের পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের স্থানীয় ১২টি কেন্দ্রের মাধ্যমে পরিবার পরিকল্পনা এবং মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করছে। এছাড়া এমএসএফ ও আরএইচইউ পরিচালিত স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে বাড়িয়ে ৩৫ শয্যার হাসপাতালে রূপান্তর করা হয়েছে। এসব রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এখন পর্যন্ত গর্ভবতী নারী চিহ্নিত হয়েছে ৩১ হাজার ২৫৮ জন। শিশু জন্মগ্রহণ করেছে ৩ হাজার ৫৫৪ জন। আর এতিম শিশু রয়েছে ৩৯ হাজার ৮৪১ জন। কক্সবাজারের সিভিল সার্জন অফিসের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited