সফলভাবেই মুক্তামনির অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে, মুক্তামনির সুস্থতায় আশাবাদী চিকিৎসক

Spread the love

মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম, ঢাকা: চর্মরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন সাতক্ষীরার শিশু মুক্তামনির ডান হাতের রক্তনালীর টিউমারের সফল অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে।

 

আজ শনিবার (১২ আগস্ট ২০১৭)সকাল ১১টা ২৫মিনিটে তার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়। পুরোপুরি সুস্থ হতে  মুক্তামনির হাতে আরও ছয়টি অস্ত্রোপচার করা লাগবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।অস্ত্রোপচার করে তার হাত থেকে তিন কেজি মাংসপিণ্ড ফেলে দেওয়া হয়েছে। এগুলো পরীক্ষার জন্য পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। এর আগে সকাল পৌনে নয়টার দিকে মুক্তামনির হাতে অস্ত্রোপচার শুরু করেন চিকিৎসকরা। আড়াই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে অস্ত্রোপচার করেন ২০ জন চিকিৎসকের  একটি চিকিৎসক দল।

 

অস্ত্রোপচারের পর সংবাদ সম্মেলন করে মুক্তমনির অবস্থা জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, ‘সফলভাবেই মুক্তামনির অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে। তার হাতের ডিজিজ পোরশন (রোগাক্রান্ত অংশ) কেটে ফেলতে আমরা সক্ষম হয়েছি। তবে এক অপারেশনেই এটা শেষ হবে না। আরও অন্তত ছয়টি অপারেশন করা লাগবে। অস্ত্রোপচারের পর তার জ্ঞানও ফিরেছে,কথা বলেছে।সে ভালো আছে।এ সাফল্য আমাদের একার না।যে হাতে টিউমার হয়েছিল তার হাত রক্ষা করে মাংস কেটে ফেলা সম্ভব হয়েছে। তার হাত ঠিক আছে। তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে রাখা হয়েছে।’ মুক্তমনির জন্য তিনি দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

 

অপারেশনে অংশ নেয়া চিকিৎসক ডা. আবুল কালাম বলেন, ‘মুক্তামনির প্রাথমিক অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে। সুস্থ হতে আরও কয়েকটি অপারেশন লাগবে। অপারেশনের প্রথম পর্যায় শেষ হওয়ায় আল্লাহর কাছে শোকর আদায় করছি। এক প্রশ্নের জবাবে আবুল কালাম বলেন, ‘মুক্তামনি এখনও শঙ্কামুক্ত নয়। তার রক্তক্ষরণের সম্ভবনাও রয়েছে। তাকে অন্তত ছয় সপ্তাহ পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, ঢামেকের বার্ন ইউনিটের অধ্যাপক সাজ্জাদ খোন্দকার, প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের পরিচালক ডা. জুলফিকার লেলিন ও এনেসথেসিয়া বিভাগের বেশ কয়েকজন চিকিৎসক।

 

স্বাভাবিকভাবে জন্ম নেয়ার দুই বছর পর মুক্তামনির ডান হাতে ছোট একটি টিউমার দেখা যায়, যা ধীরে ধীরে বড় হতে শুরু করে। গত দুই বছর ধরে তা ব্যাপক আকারে বাড়তে থাকে। গত ১২ জুলাই ঢামেকের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে ভর্তি করা হয় মুক্তামনিকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তামনির ব্যাপারে জেনে তার চিকিৎসার সব দায়িত্ব গ্রহণ করেন। পরে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম মুক্তামনিকে দেখতে আসেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। তার চিকিৎসার সব দায়িত্ব স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের বলে জানান মন্ত্রী।

 

গত ২ আগস্ট ১৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি মেডিকেল বোর্ডের মিটিংয়ে সবধরনের সতর্কতা অবলম্বন করে মুক্তামনির চিকিৎসা করার সিদ্ধান্ত হয়। এরপর তার হাতে অস্ত্রোপচার করা হয়। এতোদিন মুক্তামনির রোগটিকে বিরল রোগ বলা হলেও বায়োপসি করার পর জানা যায় তার রোগটি বিরল নয়। তবে বায়োপসি প্রতিবেদনে মুক্তামনির রক্তনালীতে টিউমার ধরা পড়ে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের পৃথক কয়েকটি অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত আসামী-১,ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ আটক-২

» বেনাপোলের আমড়া খালি এলাকা থেকে ৪১ টি সোনার বার সহ আটক-৪

» গাইবান্ধায় বিলের পাড়ে হাত পা বাধা অবস্থায় এক নারী উদ্ধার

» পুলিশ যা জানালো ওসি মোয়াজ্জেমকে গ্রেফতারের পর

» রংপুর চেম্বার পরিচালনা পর্ষদের সঙ্গে ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনারের মত বিনিময় সভা

» ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার: নুসরাতের বাবা-মায়ের নামাজ আদায়

» বাজেট ইতিবাচক, আরো ৫৬৫০ কোটি টাকা প্রণোদনা চায় বিজিএমইএ

» ছাত্রদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়তে যা করতেন শিক্ষিকা!

» ছেলে থাকেন দালানে, মায়ের জায়গা ঝুপড়িতে

» সোনাগাজী থানার ওসি মোয়াজ্জেমের জামিন চাইলে যে ব্যবস্থা নিবেন ব্যারিস্টার সুমন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন








ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৩রা আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সফলভাবেই মুক্তামনির অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে, মুক্তামনির সুস্থতায় আশাবাদী চিকিৎসক

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম, ঢাকা: চর্মরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন সাতক্ষীরার শিশু মুক্তামনির ডান হাতের রক্তনালীর টিউমারের সফল অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে।

 

আজ শনিবার (১২ আগস্ট ২০১৭)সকাল ১১টা ২৫মিনিটে তার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়। পুরোপুরি সুস্থ হতে  মুক্তামনির হাতে আরও ছয়টি অস্ত্রোপচার করা লাগবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।অস্ত্রোপচার করে তার হাত থেকে তিন কেজি মাংসপিণ্ড ফেলে দেওয়া হয়েছে। এগুলো পরীক্ষার জন্য পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। এর আগে সকাল পৌনে নয়টার দিকে মুক্তামনির হাতে অস্ত্রোপচার শুরু করেন চিকিৎসকরা। আড়াই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে অস্ত্রোপচার করেন ২০ জন চিকিৎসকের  একটি চিকিৎসক দল।

 

অস্ত্রোপচারের পর সংবাদ সম্মেলন করে মুক্তমনির অবস্থা জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, ‘সফলভাবেই মুক্তামনির অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে। তার হাতের ডিজিজ পোরশন (রোগাক্রান্ত অংশ) কেটে ফেলতে আমরা সক্ষম হয়েছি। তবে এক অপারেশনেই এটা শেষ হবে না। আরও অন্তত ছয়টি অপারেশন করা লাগবে। অস্ত্রোপচারের পর তার জ্ঞানও ফিরেছে,কথা বলেছে।সে ভালো আছে।এ সাফল্য আমাদের একার না।যে হাতে টিউমার হয়েছিল তার হাত রক্ষা করে মাংস কেটে ফেলা সম্ভব হয়েছে। তার হাত ঠিক আছে। তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে রাখা হয়েছে।’ মুক্তমনির জন্য তিনি দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

 

অপারেশনে অংশ নেয়া চিকিৎসক ডা. আবুল কালাম বলেন, ‘মুক্তামনির প্রাথমিক অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে। সুস্থ হতে আরও কয়েকটি অপারেশন লাগবে। অপারেশনের প্রথম পর্যায় শেষ হওয়ায় আল্লাহর কাছে শোকর আদায় করছি। এক প্রশ্নের জবাবে আবুল কালাম বলেন, ‘মুক্তামনি এখনও শঙ্কামুক্ত নয়। তার রক্তক্ষরণের সম্ভবনাও রয়েছে। তাকে অন্তত ছয় সপ্তাহ পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, ঢামেকের বার্ন ইউনিটের অধ্যাপক সাজ্জাদ খোন্দকার, প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের পরিচালক ডা. জুলফিকার লেলিন ও এনেসথেসিয়া বিভাগের বেশ কয়েকজন চিকিৎসক।

 

স্বাভাবিকভাবে জন্ম নেয়ার দুই বছর পর মুক্তামনির ডান হাতে ছোট একটি টিউমার দেখা যায়, যা ধীরে ধীরে বড় হতে শুরু করে। গত দুই বছর ধরে তা ব্যাপক আকারে বাড়তে থাকে। গত ১২ জুলাই ঢামেকের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে ভর্তি করা হয় মুক্তামনিকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তামনির ব্যাপারে জেনে তার চিকিৎসার সব দায়িত্ব গ্রহণ করেন। পরে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম মুক্তামনিকে দেখতে আসেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। তার চিকিৎসার সব দায়িত্ব স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের বলে জানান মন্ত্রী।

 

গত ২ আগস্ট ১৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি মেডিকেল বোর্ডের মিটিংয়ে সবধরনের সতর্কতা অবলম্বন করে মুক্তামনির চিকিৎসা করার সিদ্ধান্ত হয়। এরপর তার হাতে অস্ত্রোপচার করা হয়। এতোদিন মুক্তামনির রোগটিকে বিরল রোগ বলা হলেও বায়োপসি করার পর জানা যায় তার রোগটি বিরল নয়। তবে বায়োপসি প্রতিবেদনে মুক্তামনির রক্তনালীতে টিউমার ধরা পড়ে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited