ফতুল্লায় এসআই নাজনীন আক্তারের সুকৌশলে পাচার হওয়া নববধূঁ ফেরৎ পেল স্বামী: আটক ২

মুন্নি আলম মনি (ফতুল্লা) নারায়ণগঞ্জ:  ২৮ জুলাই (শুক্রবার)।। বিকেলে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানা এসআই নাজনীন আক্তারের সু-কৌশলে পাচারকারী চক্রের হাত থেকে সদ্য বিবাহিত নববধূঁ সোনিয়ার আক্তার (২০) উদ্ধারসহ ঐ চক্রের দুই সদস্য কে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে।

 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, মো. মিঠুন ওরফে মিন্টু(৩৫) তার স্ত্রী আরজিনা আক্তার (৩০)। তারা দিনাজপুর জেলার হাকিমপুর থানাধীন ধরান্দা গ্রামের অধিবাসী। ফতুল্লার পশ্চিম ধর্মগঞ্জ এলাকায় ভাড়া থাকতো।  পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানাযায়, নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পশ্চিম ধর্মগঞ্জ চটলারমাঠস্থ এলাকায় শরীফের বাড়িতে ভাড়া থাকে মো. মনির হোসেন(৪৫) ও তার স্ত্রী মিনারা বেগম(৪০)এবং তার পরিবার। তার মেয়ে সোনিয়া আক্তার ধর্মগঞ্জ রুমা গার্মেন্টসে চাকুরী করে। একই প্রতিষ্ঠানে আরজিনা নামের আরেক নারী শ্রমিকের সাথে পরিচয় হয়।

 

আরজিনা আক্তার নিয়মিত অফিস না করায় তাকে রুমা গার্মেন্টস থেকে বের করে দেয় প্র্্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা। এদিকে, তানিয়ার একই প্রতিষ্ঠানের জামাল (২৫) নামের এক শ্রমিকের সাথে ভালোবাসা সম্পর্ক হয়। তাদের ভালোবাসা সম্পর্ক ঊভয় পরিবার মেনে নিয়ে গত ২৭ জুলাই রাতে শুভ বিবাহ সম্পন্ন হয়। সকালে আরজিনা সদ্য নববধূঁ সোনিয়াকে নিয়ে তার মামার বাসায় যাবে এমন কথা বলে তাড়াতাড়ি গোসল নাস্তা শেষ করে তাকে নিয়ে বের হয়। প্রথমে তানিয়াকে বলে তার ফতুল্লা যাবে ।তাই চটলার মাঠ থেকে অটোরিক্সায় পঞ্চবটি আসে। এরপর সিএনজি নিয়ে ঢাকার মধ্যবাড্ডা যায়। মধ্যবাড্ডা যাৗয়ার পথে আরো দুইটি মেয়ে সিএনজিতে ঊঠায় আরজিনার স্বামী মিঠুণ। এরপর মধ্যবাড্ডা একটি ৬ষ্ঠতলা বিল্ডিংয়ের ৬ষ্ঠতলায় একটি ফ্লাটের ভেতরে একটি রুমে ৩ জনকে আটক রেখে আরজিনা এবং তার স্বামী মিঠুন বাহিরে চলে যায়।

 

তখন সময় সাড়ে ১১টা। এরপর অটক থাকা সোনিয়ার সাথের এক চৌকশ মেয়ে শারমিন (২৫) জ্বানালার ফাঁক দিয়ে আশে পাশের লোকজন বাচাঁও বাচাঁও বলে ডাকাডাকি করলে পাশের ফ্ল্যাটের লোকজন ও রাস্তার লোকজন এসে জড়ো হয়। পরে তালা ভেঙ্গে তিন যুবতীকে উদ্ধার করে। পরে উপস্থিত লোকজন তানিয়া, শারমিন, সুমি (১৫)’র পরিবারকে ফোন করে বিস্তারিত জানান। এদিকে , তানিয়ার বাবা মনির হোসেন মাল ফতুল্লা মডেল থানায় আসে ।

 

এসময় এসআই নাজনীন আক্তার ডিউটি অফিসার থাকায় ঘটনার বিস্টতারিত জেনে বলে আরজিনা ও তার স্বামীকে ফোন করে জানাও তোমরা বেড়ানো হয়নি তাড়াতাড়ি বাসায় আসো। তাদেরকে বুঝতে দিবেনা ঢাকার ঘটনা তোমরা জানো। এরপর মনির ঠিক এসআই নাজনীনের কথা মতো সু কৌশল অবলম্বন করে ফতুল্লা বাজার কেন্দ্রীয় ৭মতলা মসজীদের সামনে আরজিনা ওতার স্বামী মিঠুন ওরফে মিন্টুকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশ মিঠুনের কাছে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে এই চক্রের মূল হোতা নোভা ফার্নিচারের মালিক আবুল হোসন জড়িত আছে ।

 

তাকে বারবার ফোন করেছে আরজিনা সে পুলিশের খবর শুনে ফোন বন্ধ করে ফেলে। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী এস আই নাজনীন আক্তার জানান আটককৃত আরজিনা ও মিঠু পাচাকারীর সদস্য এরা মেয়েদের বিভিন্ন কৌশলে সংগ্রহ ঢাকার বড় বড় চক্রের কাছে হস্তান্তর করে। যদি মনির হোসেন মামলা করেন তাহলে আমরা মামলা নেব।

 

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। কুয়াকাটা নিউজ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক ফ্যান পেইজে 

 

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ আপডেট



» এস এ গেমস আর্চারিতে দশে দশ বাংলাদেশ

» দশমিনায় দূর্নীতি বিরোধী মানববন্ধন ও সভা অনুষ্ঠিত

» জরাজীর্ণ বসতঘরে জীবন-যাপন দশমিনায় মিনারা’র

» যশোরের বেনাপোলে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিসব-২০১৯ উদযাপন

» যুদ্ধাপরাধীদের রাজনীতিতে পুনর্বাসনকারীদের বিচারের আওতায় আনার দাবিতে সমাবেশ ও মানববন্ধন

» বিপিএলের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

» জমকালো আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

» ডাকসু ভিপি নুরের পদত্যাগ চায় ছাত্রলীগের ২৩ নেতা

» গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে রুম্পার কথিত প্রেমিককে

» প্রধানমন্ত্রী আজ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করবেন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ২৪শে অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ফতুল্লায় এসআই নাজনীন আক্তারের সুকৌশলে পাচার হওয়া নববধূঁ ফেরৎ পেল স্বামী: আটক ২

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

মুন্নি আলম মনি (ফতুল্লা) নারায়ণগঞ্জ:  ২৮ জুলাই (শুক্রবার)।। বিকেলে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানা এসআই নাজনীন আক্তারের সু-কৌশলে পাচারকারী চক্রের হাত থেকে সদ্য বিবাহিত নববধূঁ সোনিয়ার আক্তার (২০) উদ্ধারসহ ঐ চক্রের দুই সদস্য কে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে।

 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, মো. মিঠুন ওরফে মিন্টু(৩৫) তার স্ত্রী আরজিনা আক্তার (৩০)। তারা দিনাজপুর জেলার হাকিমপুর থানাধীন ধরান্দা গ্রামের অধিবাসী। ফতুল্লার পশ্চিম ধর্মগঞ্জ এলাকায় ভাড়া থাকতো।  পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানাযায়, নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পশ্চিম ধর্মগঞ্জ চটলারমাঠস্থ এলাকায় শরীফের বাড়িতে ভাড়া থাকে মো. মনির হোসেন(৪৫) ও তার স্ত্রী মিনারা বেগম(৪০)এবং তার পরিবার। তার মেয়ে সোনিয়া আক্তার ধর্মগঞ্জ রুমা গার্মেন্টসে চাকুরী করে। একই প্রতিষ্ঠানে আরজিনা নামের আরেক নারী শ্রমিকের সাথে পরিচয় হয়।

 

আরজিনা আক্তার নিয়মিত অফিস না করায় তাকে রুমা গার্মেন্টস থেকে বের করে দেয় প্র্্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা। এদিকে, তানিয়ার একই প্রতিষ্ঠানের জামাল (২৫) নামের এক শ্রমিকের সাথে ভালোবাসা সম্পর্ক হয়। তাদের ভালোবাসা সম্পর্ক ঊভয় পরিবার মেনে নিয়ে গত ২৭ জুলাই রাতে শুভ বিবাহ সম্পন্ন হয়। সকালে আরজিনা সদ্য নববধূঁ সোনিয়াকে নিয়ে তার মামার বাসায় যাবে এমন কথা বলে তাড়াতাড়ি গোসল নাস্তা শেষ করে তাকে নিয়ে বের হয়। প্রথমে তানিয়াকে বলে তার ফতুল্লা যাবে ।তাই চটলার মাঠ থেকে অটোরিক্সায় পঞ্চবটি আসে। এরপর সিএনজি নিয়ে ঢাকার মধ্যবাড্ডা যায়। মধ্যবাড্ডা যাৗয়ার পথে আরো দুইটি মেয়ে সিএনজিতে ঊঠায় আরজিনার স্বামী মিঠুণ। এরপর মধ্যবাড্ডা একটি ৬ষ্ঠতলা বিল্ডিংয়ের ৬ষ্ঠতলায় একটি ফ্লাটের ভেতরে একটি রুমে ৩ জনকে আটক রেখে আরজিনা এবং তার স্বামী মিঠুন বাহিরে চলে যায়।

 

তখন সময় সাড়ে ১১টা। এরপর অটক থাকা সোনিয়ার সাথের এক চৌকশ মেয়ে শারমিন (২৫) জ্বানালার ফাঁক দিয়ে আশে পাশের লোকজন বাচাঁও বাচাঁও বলে ডাকাডাকি করলে পাশের ফ্ল্যাটের লোকজন ও রাস্তার লোকজন এসে জড়ো হয়। পরে তালা ভেঙ্গে তিন যুবতীকে উদ্ধার করে। পরে উপস্থিত লোকজন তানিয়া, শারমিন, সুমি (১৫)’র পরিবারকে ফোন করে বিস্তারিত জানান। এদিকে , তানিয়ার বাবা মনির হোসেন মাল ফতুল্লা মডেল থানায় আসে ।

 

এসময় এসআই নাজনীন আক্তার ডিউটি অফিসার থাকায় ঘটনার বিস্টতারিত জেনে বলে আরজিনা ও তার স্বামীকে ফোন করে জানাও তোমরা বেড়ানো হয়নি তাড়াতাড়ি বাসায় আসো। তাদেরকে বুঝতে দিবেনা ঢাকার ঘটনা তোমরা জানো। এরপর মনির ঠিক এসআই নাজনীনের কথা মতো সু কৌশল অবলম্বন করে ফতুল্লা বাজার কেন্দ্রীয় ৭মতলা মসজীদের সামনে আরজিনা ওতার স্বামী মিঠুন ওরফে মিন্টুকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশ মিঠুনের কাছে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে এই চক্রের মূল হোতা নোভা ফার্নিচারের মালিক আবুল হোসন জড়িত আছে ।

 

তাকে বারবার ফোন করেছে আরজিনা সে পুলিশের খবর শুনে ফোন বন্ধ করে ফেলে। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী এস আই নাজনীন আক্তার জানান আটককৃত আরজিনা ও মিঠু পাচাকারীর সদস্য এরা মেয়েদের বিভিন্ন কৌশলে সংগ্রহ ঢাকার বড় বড় চক্রের কাছে হস্তান্তর করে। যদি মনির হোসেন মামলা করেন তাহলে আমরা মামলা নেব।

 

লেখাটি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে অনুরোধ করছি। কুয়াকাটা নিউজ.কম এর অন্যান্য প্রকাশনার আপডেট পেতে যোগ দিন ফেইসবুক ফ্যান পেইজে 

 

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited