ফেসবুকে পরীক্ষার রেজাল্ট পরিবর্তনের শতভাগ নিশ্চয়তা, মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে দুই প্রতারক গ্রেপ্তার

মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম, ঢাকা: ফেসবুকে এইচএসসি পরীক্ষার রেজাল্ট পরিবর্তনের শতভাগ নিশ্চয়তা দেওয়া প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. সুজন মিয়া (২০) এবং মো. ইমরান হোসেন (২২)। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

 

র‌্যাবের একটি সূত্র জানিয়েছে, গোয়েন্দা সুত্রে জানা যায় যে, পিএসসি, জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় যে সকল পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা মানসম্মত হয়নি তাদেরকে শতভাগ পাশ এবং গ্রেড পরিবর্তনের গ্যারান্টি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভুয়া আইডি খুলে প্রতারণার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি চক্র। র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন এমন একটি চক্রকে দীর্ঘদিন যাবৎ গোয়েন্দা নজরদারী এবং পর্যবেক্ষনে কাজ করে আসছিল। ওই সূত্রটি জানায়, আজ বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে একটার সময়ে র‌্যাব-২ এর একটি মোহাম্মদপুরের ৩১/৯ শেরশাহ শুরী রোডস্থ মায়ের দোয়া জেনারেল স্টোরে সামনে থেকে সুজন মিয়া ও ইমরান হোসেন গ্রেপ্তার করে।

 

গ্রেপ্তারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা প্রতারনার মাধ্যমে বিভিন্ন পরীক্ষার পরীক্ষার্থীদের নিকট হতে বিরাট অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিনব কৌশল হিসাবে সুজন মিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভুয়া  আইডি খুলেন। তাতে যে সকল পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা মানসন্মত হয়নি সে সকল পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে রেজাল্ট পরিবর্তনের জন্য শতভাগ নিশ্চয়তা দিয়ে ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে। বিজ্ঞাপনে গোল্ডেন এ + এর জন্য ২০ হাজার, এ + এর জন্য ১৮ হাজার, এর  ১৫ হাজার এবং এ- এর জন্য ১২হাজার টাকার বিনিময়ে তাদের কাংখিত ফলাফল এনে দেবে।

 

তারা যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর দিয়ে থাকে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় , যে সকল পরীক্ষার্থীরা তাদের আহবানে সাড়া দেয়, তারা নিজেরা একটি ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে বিজ্ঞাপন দেওয়া ভুয়া ফেসবুক আইডির গ্রুপে যোগদান করেন। এক্ষেত্রে যিনি প্রতারনার জন্য ফেসবুক আইডিতে প্রথমে বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকেন তিনি উক্ত গ্রপের এ্যাডমিন হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। এ্যাডমিন ছাড়া উক্ত গ্রুপে এ্যাডমিনের আরও একজন নিজস্ব লোক থাকে যে তার আইডিতে শতভাগ উপকার পেয়েছেন মর্মে মিথ্যা তথ্য দিয়ে অন্যদের আকৃষ্ট করেন।

 

র‌্যাবের ওই সূত্রটি জানায়, তখন গ্রুপের অন্য সদস্যরা বিশ্বাস অর্জন করে রেজাল্ট পরিবর্তনের সুযোগ নিতে গ্রুপ এ্যাডমিনের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করেন। এ সুযোগে এ্যাডমিন তাদের নিকট হতে প্রাথমিক ভাবে চুক্তিকৃত টাকার ৫০ ভাগ অগ্রিম হিসেবে নিয়ে থাকেন। জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানায় যে, টাকা আদায়ের জন্য নিজস্ব বিকাশ নম্বর ব্যবহার করে থাকেন । পরবর্তীতে টাকা হাতে পাওয়ার পর গ্রুপের যে সকল সদস্যদের নিকট থেকে এ্যাডমিন প্রতারনার মাধ্যমে টাকা নিয়েছে তাদেরকে ব্লক করে দেয়।

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ আপডেট



» বসানো হলো পদ্মা সেতুর ১৮তম স্প্যান: দৃশ্যমান হল সেতুর ২ হাজার ৭০০ মিটার

» গোপালগঞ্জে মধুমতি নদীর ভাঙ্গঁনে বিলীন হয়ে যাচ্ছে চরগোবরা গ্রাম

» বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের অভিযানে গাঁজাসহ দুই নারী আটক

» কুয়াকাটায় ন্নিমমানের আবাসিক হোটেলের বিরুদ্ধে নারী ও মাদক ব্যবসার অভিযোগ

» আগৈলঝাড়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান

» ঝিনাইদহের শ্রেষ্ঠ সাংবাদিক হলেন আসিফ কাজল

» মহেশপুরের অবৈধ ইটভাটায় পুড়ছে কাঠ প্রশাসন নির্বকার

» ঝিনাইদহে তৃতীয় লিঙ্গ সদস্যদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

» রাজনগরে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সচেতনতা বাড়াতে অবহিতকরণ সভা

» রাজনগরে ভোক্তা অধিকার আইনে ৪ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ২৭শে অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ফেসবুকে পরীক্ষার রেজাল্ট পরিবর্তনের শতভাগ নিশ্চয়তা, মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে দুই প্রতারক গ্রেপ্তার

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম, ঢাকা: ফেসবুকে এইচএসসি পরীক্ষার রেজাল্ট পরিবর্তনের শতভাগ নিশ্চয়তা দেওয়া প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. সুজন মিয়া (২০) এবং মো. ইমরান হোসেন (২২)। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

 

র‌্যাবের একটি সূত্র জানিয়েছে, গোয়েন্দা সুত্রে জানা যায় যে, পিএসসি, জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় যে সকল পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা মানসম্মত হয়নি তাদেরকে শতভাগ পাশ এবং গ্রেড পরিবর্তনের গ্যারান্টি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভুয়া আইডি খুলে প্রতারণার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি চক্র। র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন এমন একটি চক্রকে দীর্ঘদিন যাবৎ গোয়েন্দা নজরদারী এবং পর্যবেক্ষনে কাজ করে আসছিল। ওই সূত্রটি জানায়, আজ বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে একটার সময়ে র‌্যাব-২ এর একটি মোহাম্মদপুরের ৩১/৯ শেরশাহ শুরী রোডস্থ মায়ের দোয়া জেনারেল স্টোরে সামনে থেকে সুজন মিয়া ও ইমরান হোসেন গ্রেপ্তার করে।

 

গ্রেপ্তারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা প্রতারনার মাধ্যমে বিভিন্ন পরীক্ষার পরীক্ষার্থীদের নিকট হতে বিরাট অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিনব কৌশল হিসাবে সুজন মিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভুয়া  আইডি খুলেন। তাতে যে সকল পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা মানসন্মত হয়নি সে সকল পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে রেজাল্ট পরিবর্তনের জন্য শতভাগ নিশ্চয়তা দিয়ে ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে। বিজ্ঞাপনে গোল্ডেন এ + এর জন্য ২০ হাজার, এ + এর জন্য ১৮ হাজার, এর  ১৫ হাজার এবং এ- এর জন্য ১২হাজার টাকার বিনিময়ে তাদের কাংখিত ফলাফল এনে দেবে।

 

তারা যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর দিয়ে থাকে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় , যে সকল পরীক্ষার্থীরা তাদের আহবানে সাড়া দেয়, তারা নিজেরা একটি ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে বিজ্ঞাপন দেওয়া ভুয়া ফেসবুক আইডির গ্রুপে যোগদান করেন। এক্ষেত্রে যিনি প্রতারনার জন্য ফেসবুক আইডিতে প্রথমে বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকেন তিনি উক্ত গ্রপের এ্যাডমিন হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। এ্যাডমিন ছাড়া উক্ত গ্রুপে এ্যাডমিনের আরও একজন নিজস্ব লোক থাকে যে তার আইডিতে শতভাগ উপকার পেয়েছেন মর্মে মিথ্যা তথ্য দিয়ে অন্যদের আকৃষ্ট করেন।

 

র‌্যাবের ওই সূত্রটি জানায়, তখন গ্রুপের অন্য সদস্যরা বিশ্বাস অর্জন করে রেজাল্ট পরিবর্তনের সুযোগ নিতে গ্রুপ এ্যাডমিনের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করেন। এ সুযোগে এ্যাডমিন তাদের নিকট হতে প্রাথমিক ভাবে চুক্তিকৃত টাকার ৫০ ভাগ অগ্রিম হিসেবে নিয়ে থাকেন। জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানায় যে, টাকা আদায়ের জন্য নিজস্ব বিকাশ নম্বর ব্যবহার করে থাকেন । পরবর্তীতে টাকা হাতে পাওয়ার পর গ্রুপের যে সকল সদস্যদের নিকট থেকে এ্যাডমিন প্রতারনার মাধ্যমে টাকা নিয়েছে তাদেরকে ব্লক করে দেয়।

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited