মৌলভীবাজারে বিড়ম্বনায় বানভাসী মানুষ

Spread the love

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার: বানভাসী মানুষের মাঝে চালের পরিবর্তে গম দেয়া হচ্ছে ত্রাণ হিসেবে। আর এই গম নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েছেন বানভাসী মানুষ। থৈ থৈ পানি, গম শুকানোর মত জায়গা কিংবা রোদ কোনটাই নেই। না ফেলতে পারছেন, না খেতে। উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা যায়, কুলাউড়া উপজেলার বন্যা দুর্গত মানুষের জন্য সর্বশেষ ত্রাণ হিসেবে বরাদ্ধ এসেছে ৬৯ মেট্রিক টন গম।

 

কুলাউড়া উপজেলা ১৩টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় দুর্গত মানুষের মধ্যে এই গম বিতরণ করা হয়। গত ১ জুলাই শনিবার থেকে এই গম ইউনিয়ন পর্যায়ে বন্যা কবলিত মানুষের মধ্যে বিতরণ করা শুরু হয়েছে। উপজেলার জয়চন্ডী আবুতালিপুর, মিটুপুর, বেগমান এলাকার বন্যা কবলিত মানুষ জানান, ৫ কেজি করে পরিবার প্রতি গম দেয়া হয়েছে। বলা হচ্ছে ৫ কেজি কিন্তু একটা বালতি দিয়ে দ্রুত বিলি করার জন্য কাউকে ৪ কেজি আবার কাউকে সাড়ে ৪ কেজি করে গম দেয়া হয়েছে। আবুতালিপুর গ্রামের দিলারা বেগম, শামসুল মিয়া, নৃপেন্দ্র নাথ, জিতেন্দ্র দাস. তারেক মিয়া জানান, সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত অপেক্ষার পর ত্রাণ হিসেবে দেয়া হলো গম।

 

এই গম শুকাবো কোথায়? ভাঙবো কোথায়? উল্টো খাজনার চেয়ে যেন বাজনা বেশি হয়ে গেলো। ভকুশিমইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আজিজুর রহমান মনির জানান, তিনি এখনও গম বিতরণ করেননি। ৩ জুলাই সোমবার থেকে বিতরণ শুরু করবেন। প্রতি পরিবারে ১৩ কেজি করে গম দিবেন বলে জানান। তবে গম শুকানো ও ভাঙানো একটা বাড়তি ঝামেলা। কুলাউড়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ শিমুল আলী জানান, দুর্গত মানুষের জন্য ৬৯ মেট্রিক টন গম বরাদ্ধ এসেছে। ইতোমধ্যে ইউনিয়ন পর্যায়ে বিতরণ শুরু হয়েছে। গম দেয়াটা সরকারি সিদ্ধান্ত। আমাদের কিছু করার নেই। কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার চৌঃ মোঃ গোলাম রাব্বি জানান, গম প্রতি পরিবারের জন্য ১৩ কেজি করে বরাদ্ধ দেয়ার নিয়ম রয়েছে। জয়চন্ডী ইউনিয়নের বিষয়টা আমি জেনেছি। সেখানে নাকি লোকজন বেশি হওয়ায় তারা কম করে দিয়েছে। আর গমের পরিবর্তে চাল দেয়া যায় কি-না বিষয়টা নিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাবো।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» মানুষ নামের অমানুষগুলো…

» বাউফলে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

» আগামী ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যেই উৎপাদনে প্রথম ইউনিট।। ছয় হাজার শ্রমিকের বেতন-ভাতা পরিশোধ

» জঙ্গী দমনের মত মাদক নির্মূলেও ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবো

» ইংল্যান্ডে বাংলাদেশের জার্সি পরা ওরা কারা?

» সন্ত্রাসীর সঙ্গে যুদ্ধ করেও স্বামীকে বাঁচাতে পারলেন না স্ত্রী

» র‍্যাংকিংয়ে বড় সুখবর পেল বাংলাদেশ

» পাকিস্তানের বোলিং তোপে কোণঠাসা নিউজিল্যান্ড

» যশোরের বেনাপোল পুটখালী থেকে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ আটক-৩

» শ্রমিকদের জন্য হাসপাতল, আবাসন, রেশনিং, শিক্ষা, পরিবহনসহ গুরুত্বপূর্ন মৌলিক বিষয়ে বর্তমান বাজেটে বরাদ্দ রাখার দাবীতে। মাননীয় স্পিকারের বরাবর স্বারকলিপি প্রদান

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১৩ই আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মৌলভীবাজারে বিড়ম্বনায় বানভাসী মানুষ

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার: বানভাসী মানুষের মাঝে চালের পরিবর্তে গম দেয়া হচ্ছে ত্রাণ হিসেবে। আর এই গম নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েছেন বানভাসী মানুষ। থৈ থৈ পানি, গম শুকানোর মত জায়গা কিংবা রোদ কোনটাই নেই। না ফেলতে পারছেন, না খেতে। উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা যায়, কুলাউড়া উপজেলার বন্যা দুর্গত মানুষের জন্য সর্বশেষ ত্রাণ হিসেবে বরাদ্ধ এসেছে ৬৯ মেট্রিক টন গম।

 

কুলাউড়া উপজেলা ১৩টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় দুর্গত মানুষের মধ্যে এই গম বিতরণ করা হয়। গত ১ জুলাই শনিবার থেকে এই গম ইউনিয়ন পর্যায়ে বন্যা কবলিত মানুষের মধ্যে বিতরণ করা শুরু হয়েছে। উপজেলার জয়চন্ডী আবুতালিপুর, মিটুপুর, বেগমান এলাকার বন্যা কবলিত মানুষ জানান, ৫ কেজি করে পরিবার প্রতি গম দেয়া হয়েছে। বলা হচ্ছে ৫ কেজি কিন্তু একটা বালতি দিয়ে দ্রুত বিলি করার জন্য কাউকে ৪ কেজি আবার কাউকে সাড়ে ৪ কেজি করে গম দেয়া হয়েছে। আবুতালিপুর গ্রামের দিলারা বেগম, শামসুল মিয়া, নৃপেন্দ্র নাথ, জিতেন্দ্র দাস. তারেক মিয়া জানান, সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত অপেক্ষার পর ত্রাণ হিসেবে দেয়া হলো গম।

 

এই গম শুকাবো কোথায়? ভাঙবো কোথায়? উল্টো খাজনার চেয়ে যেন বাজনা বেশি হয়ে গেলো। ভকুশিমইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আজিজুর রহমান মনির জানান, তিনি এখনও গম বিতরণ করেননি। ৩ জুলাই সোমবার থেকে বিতরণ শুরু করবেন। প্রতি পরিবারে ১৩ কেজি করে গম দিবেন বলে জানান। তবে গম শুকানো ও ভাঙানো একটা বাড়তি ঝামেলা। কুলাউড়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ শিমুল আলী জানান, দুর্গত মানুষের জন্য ৬৯ মেট্রিক টন গম বরাদ্ধ এসেছে। ইতোমধ্যে ইউনিয়ন পর্যায়ে বিতরণ শুরু হয়েছে। গম দেয়াটা সরকারি সিদ্ধান্ত। আমাদের কিছু করার নেই। কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার চৌঃ মোঃ গোলাম রাব্বি জানান, গম প্রতি পরিবারের জন্য ১৩ কেজি করে বরাদ্ধ দেয়ার নিয়ম রয়েছে। জয়চন্ডী ইউনিয়নের বিষয়টা আমি জেনেছি। সেখানে নাকি লোকজন বেশি হওয়ায় তারা কম করে দিয়েছে। আর গমের পরিবর্তে চাল দেয়া যায় কি-না বিষয়টা নিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাবো।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited