রমজান মাসে শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ ও ঈদ বোনাসের দাবিতে মৌলভীবাজারে স্বারকলিপি

Spread the love

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার:  রমজান মাসে শ্রমআইন লঙ্ঘন করে বিনা বেতনে শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ ও ২০ রমজানের মধ্যে মাসিক বেতনের সমপরিমান ঈদ উৎসব বোনাস প্রদানের দাবিতে মৌলভীবাজার জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং চট্ট ২৩০৫-এর পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে আজ ২১ দুপুরে।

 

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয় রমজান মাস মুসলমানদের জন্য সিয়াম সাধনার বার্তা নিয়ে আসলেও অধিকাংশ হোটেল শ্রমিকদের জন্য সিয়াম সাধনার পরিবর্তে অজানা আশঙ্খা নিয়ে আসে। কারণ দীর্ঘ ১১ মাস চাকরী করার পর রমজান মাস আসলে ব্যবসা মন্দার অজুহাত দেখিয়ে অধিকাংশ মালিকরা হোটেল শ্রমিকদের শ্রমআইন লঙ্ঘন করে বিনা বেতনে ছাঁটাই করে দেন। ফলে পবিত্র এই মাসে ছাঁটাইকৃত হোটেল শ্রমিকদের জীবনে নেমে আসে চরম অনিশ্চয়তা, পরিবার-পরিজন নিয়ে শ্রমিকরা সিয়াম সাধনার পরিবর্তে অনাহারে-অর্ধাহারে মানবেতর জীবনযাপন করতে বাধ্য হন। এমনকি শ্রমিকরা ঈদের আনন্দ উৎযাপন থেকেও বঞ্চিত হয়।

 

অথচ শ্রমিকদের হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রমে মালিকদের পুঁজি আরাম-আয়েশ বৃদ্ধি হয় আর শ্রমিকদের সৃষ্ট মুনাফায় মালিকপক্ষ মহাধুমধামে ঈদ উৎযাপন করেন। ঈদের সময় হোটেল শ্রমিকরা কোন উৎসব বোনাস পান না। ২০০৯ সালের পর সরকার নতুন করে গত ১ মার্চ ২০১৭ হোটেল শ্রমিকদের জন্য নি¤œতম মজুরির গেজেট(এসআরও নং ৩৮-আইন/২০১৭) প্রকাশ করেন, বর্তমান ঊর্দ্ধগতির বাজারদরে সরকার ঘোষিত মজুরিতে পরিবার-পরিজন নিয়ে একজন শ্রমিক ১০ দিনও চলতে পারবে না। তারপরও মালিকরা সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরি কার্যকর করছেন না। এছাড়া ২০১৫ সালের ২ জুলাই শ্রীমঙ্গলস্থ উপ-শ্রম পরিচালকের মধ্যস্থতায় বিনা বেতনে শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ, মাসিক বেতনের সমপরিমান ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহায় উৎসব বোনাস প্রদান এবং সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরির গেজেট ও শ্রম আইন বাস্তবায়নের প্রেক্ষিতে মৌলভীবাজার হোটেল রেস্টুরেন্ট মালিক সমিতি ও মৌলভীবাজার জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং চট্টঃ ২৩০৫ এর মধ্যে লিখিত চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

 

অথচ হোটেল মালিকরা সরকারী আইন ও চুক্তি লঙ্ঘন করে সম্পূর্ণ বেআইনীভাবে এই সকল কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন। শুধু আইনগতভাবে নয় ধর্মীয় মূল্যবোধ ও মানবাধিকারের দিক থেকেও হোটেল শ্রমিকদের রমজান মাসে বিনাবেতনে ছাঁটাই করা অন্যায়। শ্রমিকরা তাদের আইনসঙ্গত অধিকার বাস্তবায়নের জন্য মাননীয় জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপ-শ্রম পরিচালক, উপ-মহা পরিদর্শক(শ্রম দপ্তর), চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি, ব্যবসায়ী সমিতি ও হোটেল মালিক সমিতিসহ সংশ্লিষ্টদের বার বার লিখিতভাবে আবেদন নিবেদন করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না।

 

হোটেল শ্রমিকরা দৈনিক ১০/১২ ঘন্টা অমানবিক পরিশ্রম করে অর্ধাহারে-অনাহারে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করতে বাধ্য হন, যার কারণে হোটেল শ্রমিকদের  মধ্যে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে। স্মারকলিপিতে আসন্ন রমজান মাসে বিনা বেতনে শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ ও ২০ রমজানের মধ্যে মাসিক বেতনের সমপরিমান ঈদ বোনাস প্রদান, হোটেল সেক্টরে সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরি ও শ্রম আইন কার্যকর করার প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দাবি জানানো হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» মানুষ নামের অমানুষগুলো…

» বাউফলে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

» আগামী ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যেই উৎপাদনে প্রথম ইউনিট।। ছয় হাজার শ্রমিকের বেতন-ভাতা পরিশোধ

» জঙ্গী দমনের মত মাদক নির্মূলেও ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবো

» ইংল্যান্ডে বাংলাদেশের জার্সি পরা ওরা কারা?

» সন্ত্রাসীর সঙ্গে যুদ্ধ করেও স্বামীকে বাঁচাতে পারলেন না স্ত্রী

» র‍্যাংকিংয়ে বড় সুখবর পেল বাংলাদেশ

» পাকিস্তানের বোলিং তোপে কোণঠাসা নিউজিল্যান্ড

» যশোরের বেনাপোল পুটখালী থেকে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ আটক-৩

» শ্রমিকদের জন্য হাসপাতল, আবাসন, রেশনিং, শিক্ষা, পরিবহনসহ গুরুত্বপূর্ন মৌলিক বিষয়ে বর্তমান বাজেটে বরাদ্দ রাখার দাবীতে। মাননীয় স্পিকারের বরাবর স্বারকলিপি প্রদান

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ১৩ই আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রমজান মাসে শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ ও ঈদ বোনাসের দাবিতে মৌলভীবাজারে স্বারকলিপি

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার:  রমজান মাসে শ্রমআইন লঙ্ঘন করে বিনা বেতনে শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ ও ২০ রমজানের মধ্যে মাসিক বেতনের সমপরিমান ঈদ উৎসব বোনাস প্রদানের দাবিতে মৌলভীবাজার জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং চট্ট ২৩০৫-এর পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে আজ ২১ দুপুরে।

 

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয় রমজান মাস মুসলমানদের জন্য সিয়াম সাধনার বার্তা নিয়ে আসলেও অধিকাংশ হোটেল শ্রমিকদের জন্য সিয়াম সাধনার পরিবর্তে অজানা আশঙ্খা নিয়ে আসে। কারণ দীর্ঘ ১১ মাস চাকরী করার পর রমজান মাস আসলে ব্যবসা মন্দার অজুহাত দেখিয়ে অধিকাংশ মালিকরা হোটেল শ্রমিকদের শ্রমআইন লঙ্ঘন করে বিনা বেতনে ছাঁটাই করে দেন। ফলে পবিত্র এই মাসে ছাঁটাইকৃত হোটেল শ্রমিকদের জীবনে নেমে আসে চরম অনিশ্চয়তা, পরিবার-পরিজন নিয়ে শ্রমিকরা সিয়াম সাধনার পরিবর্তে অনাহারে-অর্ধাহারে মানবেতর জীবনযাপন করতে বাধ্য হন। এমনকি শ্রমিকরা ঈদের আনন্দ উৎযাপন থেকেও বঞ্চিত হয়।

 

অথচ শ্রমিকদের হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রমে মালিকদের পুঁজি আরাম-আয়েশ বৃদ্ধি হয় আর শ্রমিকদের সৃষ্ট মুনাফায় মালিকপক্ষ মহাধুমধামে ঈদ উৎযাপন করেন। ঈদের সময় হোটেল শ্রমিকরা কোন উৎসব বোনাস পান না। ২০০৯ সালের পর সরকার নতুন করে গত ১ মার্চ ২০১৭ হোটেল শ্রমিকদের জন্য নি¤œতম মজুরির গেজেট(এসআরও নং ৩৮-আইন/২০১৭) প্রকাশ করেন, বর্তমান ঊর্দ্ধগতির বাজারদরে সরকার ঘোষিত মজুরিতে পরিবার-পরিজন নিয়ে একজন শ্রমিক ১০ দিনও চলতে পারবে না। তারপরও মালিকরা সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরি কার্যকর করছেন না। এছাড়া ২০১৫ সালের ২ জুলাই শ্রীমঙ্গলস্থ উপ-শ্রম পরিচালকের মধ্যস্থতায় বিনা বেতনে শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ, মাসিক বেতনের সমপরিমান ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহায় উৎসব বোনাস প্রদান এবং সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরির গেজেট ও শ্রম আইন বাস্তবায়নের প্রেক্ষিতে মৌলভীবাজার হোটেল রেস্টুরেন্ট মালিক সমিতি ও মৌলভীবাজার জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং চট্টঃ ২৩০৫ এর মধ্যে লিখিত চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

 

অথচ হোটেল মালিকরা সরকারী আইন ও চুক্তি লঙ্ঘন করে সম্পূর্ণ বেআইনীভাবে এই সকল কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন। শুধু আইনগতভাবে নয় ধর্মীয় মূল্যবোধ ও মানবাধিকারের দিক থেকেও হোটেল শ্রমিকদের রমজান মাসে বিনাবেতনে ছাঁটাই করা অন্যায়। শ্রমিকরা তাদের আইনসঙ্গত অধিকার বাস্তবায়নের জন্য মাননীয় জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপ-শ্রম পরিচালক, উপ-মহা পরিদর্শক(শ্রম দপ্তর), চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি, ব্যবসায়ী সমিতি ও হোটেল মালিক সমিতিসহ সংশ্লিষ্টদের বার বার লিখিতভাবে আবেদন নিবেদন করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না।

 

হোটেল শ্রমিকরা দৈনিক ১০/১২ ঘন্টা অমানবিক পরিশ্রম করে অর্ধাহারে-অনাহারে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করতে বাধ্য হন, যার কারণে হোটেল শ্রমিকদের  মধ্যে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে। স্মারকলিপিতে আসন্ন রমজান মাসে বিনা বেতনে শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ ও ২০ রমজানের মধ্যে মাসিক বেতনের সমপরিমান ঈদ বোনাস প্রদান, হোটেল সেক্টরে সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরি ও শ্রম আইন কার্যকর করার প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দাবি জানানো হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us | Sitemap
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
সহ-সম্পাদক : নুরুজ্জামান কাফি
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited