দুর্নীতির মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনে আদালতে খালেদা জিয়া

আত্মপক্ষ সমর্থনের অসমাপ্ত বক্তব্য উপস্থাপন করতে আদালতে হাজির হয়েছেন বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে আলিয়া মাদরাসাসংলগ্ন মাঠে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে হাজির হন খালেদা জিয়া।

 

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট-সংক্রান্ত দুর্নীতি মামলার বিচারকাজও একই আদালতে চলছে। এই মামলায় সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দুদকের তৎকালীন পরিচালক নূর আহমেদের সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়। সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে তাঁকে জেরা শুরু করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। এরআগে গত বৃহস্পতিবার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আত্মপক্ষের সমর্থনের অসমাপ্ত বক্তব্য দেয়ার জন্য পরবর্তী তারিখ ১২ জানুয়ারি ধার্য করেছে আদালত। বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদ্দার আদালতে এ দিন ধার্য করেন। সে দিন বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবী আত্মপক্ষ সমর্থনে অসমাপ্ত বক্তব্য না নিতে সময়ের আবেদন দাখিল করেন। সময়ের আবেদনে উল্লেখ করা হয়, মামলাটির সাক্ষী বাতিলের আবেদনটি আদালত নামঞ্জুর করেছেন। তাই এর বিরুদ্ধে আমারা উচ্চ আদালতে একটি রিট পিটিশন দায়ের করেছি। তাই আমাদের সময় দেয়া হোক।

 

আদালত আত্মপক্ষের সমর্থনের অসমাপ্ত বক্তব্য দেয়ার জন্য পরবর্তী তারিখ ১২ জানুয়ারি ধার্য করেছেন। গত বৃহস্পতিবার এ মামলার আত্মপক্ষের সমর্থনের অসমাপ্ত বক্তব্য দেয়ার দিন ধার্য ছিল। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে অর্থ লেনদেনের অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ ৪ জনের নামে ২০১০ সালের ৩ জুলাই রাজধানীর রমনা থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মামলার অন্য আসামিরা হলেন হারিছ চৌধুরী, জিয়াউল ইসলাম ও মনিরুল ইসলাম খান। তাদের মধ্যে হারিছ চৌধুরী পলাতক। বাকিরা জামিনে আছেন। মামলায় ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগ আনা হয়। ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি চারজনের বিরুদ্ধেই অভিযোগপত্র দেয় দুদক।

 

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রাজধানীর রমনা থানায় মামলা করে দুদক। এই মামলায় খালেদা জিয়া, তার বড় ছেলে তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০০৯ সালের ৫ আগস্ট আদালতে অভিযোগপত্র দেয়া হয়। দুটি মামলায় ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» দেশে ফিরে জনতার ভালোবাসায় সিক্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

» মজলুমের ভালোবাসার ‘নোবেল’ শেখ হাসিনা পেয়ে গেছেন!

» কুয়াকাটা সৈকতে চুরির অভিযোগে দুই কিশোর আটক

» কুয়াকাটা সৈকতে গোসল করতে নেমে এক যুবক নিখোঁজ

» বাংলাদেশের মাটিতে বিএনপি ষড়যন্ত্রের পরিকল্পনা কখনই বাস্তবায়ন হবে না জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি

» শুঁটকি তৈরিতে ব্যস্ত এখন আত্রাইয়ের ব্যবসায়ীরা

» আগৈলঝাড়া সদর বাজার ব্যবসায়ীদের সাথে প্রশাসনের মতবিনিময়

» আগৈলঝাড়ায় নেশাদ্রব্য খাইয়ে স্কুল ছাত্রীকে গণধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেফতার

» প্রধান বিচারপতিরই অধিকার হরণ, আম নাগরিক কোথায় এবং কার কাছে যাবে রিট আবেদনের জন্য? !

» রোহিঙ্গাদের আশ্রয় নয়, ত্রাণ দেবে মালয়েশিয়া

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন






Loading…

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
Email: kuakataonline@gmail.com
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন: + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

দুর্নীতির মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনে আদালতে খালেদা জিয়া

আত্মপক্ষ সমর্থনের অসমাপ্ত বক্তব্য উপস্থাপন করতে আদালতে হাজির হয়েছেন বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে আলিয়া মাদরাসাসংলগ্ন মাঠে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে হাজির হন খালেদা জিয়া।

 

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট-সংক্রান্ত দুর্নীতি মামলার বিচারকাজও একই আদালতে চলছে। এই মামলায় সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দুদকের তৎকালীন পরিচালক নূর আহমেদের সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়। সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে তাঁকে জেরা শুরু করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। এরআগে গত বৃহস্পতিবার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আত্মপক্ষের সমর্থনের অসমাপ্ত বক্তব্য দেয়ার জন্য পরবর্তী তারিখ ১২ জানুয়ারি ধার্য করেছে আদালত। বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদ্দার আদালতে এ দিন ধার্য করেন। সে দিন বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবী আত্মপক্ষ সমর্থনে অসমাপ্ত বক্তব্য না নিতে সময়ের আবেদন দাখিল করেন। সময়ের আবেদনে উল্লেখ করা হয়, মামলাটির সাক্ষী বাতিলের আবেদনটি আদালত নামঞ্জুর করেছেন। তাই এর বিরুদ্ধে আমারা উচ্চ আদালতে একটি রিট পিটিশন দায়ের করেছি। তাই আমাদের সময় দেয়া হোক।

 

আদালত আত্মপক্ষের সমর্থনের অসমাপ্ত বক্তব্য দেয়ার জন্য পরবর্তী তারিখ ১২ জানুয়ারি ধার্য করেছেন। গত বৃহস্পতিবার এ মামলার আত্মপক্ষের সমর্থনের অসমাপ্ত বক্তব্য দেয়ার দিন ধার্য ছিল। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে অর্থ লেনদেনের অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ ৪ জনের নামে ২০১০ সালের ৩ জুলাই রাজধানীর রমনা থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মামলার অন্য আসামিরা হলেন হারিছ চৌধুরী, জিয়াউল ইসলাম ও মনিরুল ইসলাম খান। তাদের মধ্যে হারিছ চৌধুরী পলাতক। বাকিরা জামিনে আছেন। মামলায় ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগ আনা হয়। ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি চারজনের বিরুদ্ধেই অভিযোগপত্র দেয় দুদক।

 

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রাজধানীর রমনা থানায় মামলা করে দুদক। এই মামলায় খালেদা জিয়া, তার বড় ছেলে তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০০৯ সালের ৫ আগস্ট আদালতে অভিযোগপত্র দেয়া হয়। দুটি মামলায় ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Loading…

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
Email: kuakataonline@gmail.com
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন: + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com