বর্ষবরনকে ঘিরে: গ্রামে গ্রামে বর্ণিল দেবদেবীর সাজে নীল নাচ

উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,১৪এপ্রিল।। আবহমান বাংলার ঐতিহ্যবাহী উৎসব হিসাবে নীল পূজা ও মেলা ব্যাপক জনপ্রিয়।

 

প্রতি বছরই শহর থেকে শুরু করে গ্রামগঞ্জের গৃহস্থের উঠোনে পুরো চৈত্র মাসজুড়ে নীল নাচের আসর বসে। বর্ণিল দেবদেবীর সাজে নীল নাচের দল নানা বাদ্যযন্ত্রের অনুসঙ্গের সঙ্গে নেচে গেয়ে তারা মানুষের মনোরঞ্জন করেন। সেই সাথে তারা চৈত্রসংক্রান্তির নীল পূজা ও মেলার আমন্ত্রণ জানায়। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পৌর শহরের বাদুরতলী এলাকায় গতকাল শনিবার পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে নীলপূজা ও মেলা উদ্যাপন করেছেন। এর সাথে সাথে গ্রামে গ্রামে চলে চৈত্রসংক্রান্তির গঙ্গাপূজা। পুরনো বছরকে বিদায় জানিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের হাজারো নারী-পুরুষ আদিকাল থেকে চৈত্রসংক্রান্তির এ উৎসব পালন করে আসছে।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১০-১২ জনের নীল নাচের দলে রাধা, কৃষ্ণ, শিব, পার্বতী, নারদসহ সাধু পাগল সেজে সকাল থেকে মধ্য রাত অবধি নীল নাচ ও গান পরিবেশন করেন। সকল মানুষের কাছে দারুণ উপভোগ্য এ নীল নাচ। চৈত্রসংক্রান্তি মেলার দিনে নীলপূজা শেষে শেষ হয় এ নীল নাচ। নীলপূজার জন্য নীল নাচের দল বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাল, ডাল আর নগদ অর্থ সংগ্রহ করেন। নীলপূজা মূলত হিন্দু ধর্মীয় উৎসব হলেও চৈত্র সংক্রান্তির উৎসবে মিলে তা সার্বজননীন এক উৎসবে পরিণত হয়। মিলন সরকার বলেন, নতুন বছরের আগমনে গ্রাম গ্রামে শুরু হয়েছে নানা উৎসব। নিয়ম অনুযায়ী গতকাল শুক্রবার চৈত্রের শেষ দিনে অনুষ্ঠিত হয়েছে চৈত্রসংক্রান্তি উৎসব।

 

প্রতি বছর হিন্দু সম্প্রদায় লোকজন পহেলা বৈশাখ গঙ্গাপূজা আর নীলপূজা উৎসব উদ্যাপন করে আসছে। হিন্দু সম্প্রদায়ে বয়বৃদ্ধ আনন্দ সুকুল জানান, নীল পূজামন্ডপকে ঘিরে বসে মেলা। সব ধর্মের মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে সমবেত হয়ে মেলাকে মুখর করে তোলে। তবে কালের আবর্তে ঐতিহ্যের এ উৎসব হারিয়ে যাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» বক্তাবলী খেয়াঘাটে মহিউদ্দিনের অতিরিক্ত টোল আদায়,দেখার যেন কেউ নেই!

» ফতুল্লায় সাড়ে ছয় বছরের শিশুকে ধর্ষনের ঘটনায় ইব্রাহীম গ্রেপ্তার 

» ফতুল্লায় ইয়াবা ট্যাবলেট হেরোইনসহ গ্রেপ্তার -৪

» ফতুল্লায় মুরগী ব্যবসায়ী মো. মনির হোসেন কাজী নিখোঁজ

» কলাপাড়ায় লালুয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন।। ভোটারা রয়েছে চরম উৎকন্ঠায় ।। সাউন্ড সন্ত্রাসের অভিযোগ

» বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে নিষিদ্ধ সময়ে বাশঁ কেটে পাচারের অভিযোগে কয়েক হাজার বাঁশ জব্দ

» বান্দরবানে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ পালিত

» সোনারগাঁয়ে শতাধিক ব্যক্তির জাতীয় পার্টিতে যোগদান

» সোনারগাঁয়ে জাতীয় মহিলা পার্টির মতবিনিময় সভায়, মানুষের দোয়া ও ভালোবাসা একজন এমপির সবচেয়ে বড় পাওয়া: ডালিয়া লিয়াকত

» ভারত থেকে বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে আমদানি হলো ৫০ জোড়া মহিষ

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন






ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
Email: info@kuakatanews.com
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

বর্ষবরনকে ঘিরে: গ্রামে গ্রামে বর্ণিল দেবদেবীর সাজে নীল নাচ

উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,১৪এপ্রিল।। আবহমান বাংলার ঐতিহ্যবাহী উৎসব হিসাবে নীল পূজা ও মেলা ব্যাপক জনপ্রিয়।

 

প্রতি বছরই শহর থেকে শুরু করে গ্রামগঞ্জের গৃহস্থের উঠোনে পুরো চৈত্র মাসজুড়ে নীল নাচের আসর বসে। বর্ণিল দেবদেবীর সাজে নীল নাচের দল নানা বাদ্যযন্ত্রের অনুসঙ্গের সঙ্গে নেচে গেয়ে তারা মানুষের মনোরঞ্জন করেন। সেই সাথে তারা চৈত্রসংক্রান্তির নীল পূজা ও মেলার আমন্ত্রণ জানায়। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পৌর শহরের বাদুরতলী এলাকায় গতকাল শনিবার পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে নীলপূজা ও মেলা উদ্যাপন করেছেন। এর সাথে সাথে গ্রামে গ্রামে চলে চৈত্রসংক্রান্তির গঙ্গাপূজা। পুরনো বছরকে বিদায় জানিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের হাজারো নারী-পুরুষ আদিকাল থেকে চৈত্রসংক্রান্তির এ উৎসব পালন করে আসছে।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১০-১২ জনের নীল নাচের দলে রাধা, কৃষ্ণ, শিব, পার্বতী, নারদসহ সাধু পাগল সেজে সকাল থেকে মধ্য রাত অবধি নীল নাচ ও গান পরিবেশন করেন। সকল মানুষের কাছে দারুণ উপভোগ্য এ নীল নাচ। চৈত্রসংক্রান্তি মেলার দিনে নীলপূজা শেষে শেষ হয় এ নীল নাচ। নীলপূজার জন্য নীল নাচের দল বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাল, ডাল আর নগদ অর্থ সংগ্রহ করেন। নীলপূজা মূলত হিন্দু ধর্মীয় উৎসব হলেও চৈত্র সংক্রান্তির উৎসবে মিলে তা সার্বজননীন এক উৎসবে পরিণত হয়। মিলন সরকার বলেন, নতুন বছরের আগমনে গ্রাম গ্রামে শুরু হয়েছে নানা উৎসব। নিয়ম অনুযায়ী গতকাল শুক্রবার চৈত্রের শেষ দিনে অনুষ্ঠিত হয়েছে চৈত্রসংক্রান্তি উৎসব।

 

প্রতি বছর হিন্দু সম্প্রদায় লোকজন পহেলা বৈশাখ গঙ্গাপূজা আর নীলপূজা উৎসব উদ্যাপন করে আসছে। হিন্দু সম্প্রদায়ে বয়বৃদ্ধ আনন্দ সুকুল জানান, নীল পূজামন্ডপকে ঘিরে বসে মেলা। সব ধর্মের মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে সমবেত হয়ে মেলাকে মুখর করে তোলে। তবে কালের আবর্তে ঐতিহ্যের এ উৎসব হারিয়ে যাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
Email: info@kuakatanews.com
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited