মাদকাসক্ত হয়ে বাবা-মায়ের খুনি আর কোনো ঐশী তৈরি হোক আমরা চাই না-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম, ঢাকা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন,যে কোনো মূল্যে মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। মাদকাসক্ত হয়ে বাবা-মায়ের খুনি আর কোনো ঐশী তৈরি হোক আমরা চাই না।

আজ বৃহস্পতিবার (জানুয়ারি ১৮, ২০১৮) রাজধানীর তেজগাঁওয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরে ‘কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্র ৫০ শয্যা থেকে ১০০ শয্যায় উন্নীতকরণ’ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রীএ কথাবলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রণে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যেমন কাজ করে যাচ্ছে, তেমনি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরকেও শক্তিশালী করা হচ্ছে ।

মন্ত্রী বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রণে আমরা জিরো টলারেন্সের কথা বলেছি। মাদক নিয়ন্ত্রণ সম্ভব না হলে বাংলাদেশ পথ হারিয়ে ফেলবে। এক্ষেত্রে আমরা কতোখানি সফল হয়েছি তারচেয়ে বড় কথা আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আশা করছি মাদকনিয়ন্ত্রণে আমরা সফল হবো।

Qএর আগে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান বলেন, দেশে মাদক তৈরি হয় না। তারপরেও মাদকের ভয়াল থাবা থেকে রেহাই পাইনি। মাদকের আগ্রাসন থেকে দেশকে বাঁচাতে সীমান্তবর্তী দেশগুলোর সঙ্গে কথা বলছি।ভারতকে সীমান্তবর্তী এলাকায় ফেনসিডিলের কারখানাগুলো বন্ধ করার অনুরোধ করেছি। তারাও আমাদের আহ্বানে সাড়া দিচ্ছেন। সার্বিক প্রচেষ্টায় এখন ফেনসিডিলের আগ্রাসন অনেক কমে এসেছে।

বর্তমানে ইয়াবার প্রাদুর্ভাব বেশি উল্লেখ করে মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, এ বিষয়ে আমরা মিয়ানমারের সঙ্গে কথা বলেছি। সীমান্ত এলাকায় ইয়াবা কারখানা বন্ধ করতে তারাও সাড়া দিয়েছে। দেশে ইয়াবার চালান রোধে আমরা সজাগ।

আসাদুজ্জামান খান  বলেন, বর্তমানে প্রায় ৭০ লাখ মাদকাসক্ত। তাদের সেবা দিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে নিয়ে আসা আমাদের দায়িত্ব। মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রের শয্যা সংখ্যা ক্রমান্বয়ে আরও বাড়ানো হবে।

প্রতিনিয়ত মাদকের চেহারা পাল্টে যাচ্ছে উল্লেখ করে আসাদুজ্জামান খান আরো বলেন, ফেনসিডিল, হেরোইন থেকে এখন ইয়াবার প্রাদুর্ভাব বেড়েছে। এ বিষয়ে জানতে আমাদের ট্রেনিং দরকার। তাৎক্ষণিকভাবে মাদক বুঝতে পারলে ব্যবস্থানেওয়া সহজ হবে। শহরের অভিজাত এলাকায় অনেকভাবেই মাদক সেবন হচ্ছে। এগুলো খোলামেলাভাবে আর বলতে চাচ্ছি না। আমরা জানার চেষ্টা করছি এবং আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।

মন্ত্রী বলেন, স্বীকার করতে দ্বিধা নেই, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ছিল আগে ঠুঁটো জগন্নাথ। তিন জেলার দায়িত্বে ছিলেন মাত্র একজন কর্মকর্তা। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রতি জেলাতেই মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের অফিস করা হচ্ছে।২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে পৌঁছাতে মাদক নিয়ন্ত্রণ করে তরুণ প্রজন্মকে রক্ষার বিকল্প নেই।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা ও সেবা বিভাগের সচিব ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক জামাল উদ্দীন আহমেদ প্রমুখ।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ আপডেট



» বড়লেখায় ঠান্ডা মাথায় হত্যার পরিকল্পনা করে এরশাদ

» রাজাপুরে বর্ষা মৌসুম শুরুর আগেই তীব্র নদী ভাঙ্গন

» কলাপাড়ায় বিপুল পরিমান চোলাই মদ ও গাঁজাসহ গ্রেফতার ২

» কলাপাড়ায় ৭০ লিটার দেশীয় চোলাই মদসহ আটক-১

» কলাপাড়ায় ইয়াবা ও গাঁজাসহ দুইজন আটক

» বান্দরবানে ৮’শ পিস ইয়াবা সহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক

» গলাচিপায় ভিজিডি এর চাল বিতরণ

» গলাচিপাতে স্কুল ছাত্রী তামান্না আছে কি মরে গেছে এখন অভিভাবকের প্রশ্ন

» কুলাউড়ায় অপহরণ ও ধষর্নের  ঘটনায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন পিবিআই এর সাফল্য

» ফতুল্লায় চিকিৎসক ও হাসপাতাল মালিককে গুলি করে হত্যার হুমকি

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন


ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
Email: info@kuakatanews.com
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com
Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

মাদকাসক্ত হয়ে বাবা-মায়ের খুনি আর কোনো ঐশী তৈরি হোক আমরা চাই না-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম, ঢাকা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন,যে কোনো মূল্যে মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। মাদকাসক্ত হয়ে বাবা-মায়ের খুনি আর কোনো ঐশী তৈরি হোক আমরা চাই না।

আজ বৃহস্পতিবার (জানুয়ারি ১৮, ২০১৮) রাজধানীর তেজগাঁওয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরে ‘কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্র ৫০ শয্যা থেকে ১০০ শয্যায় উন্নীতকরণ’ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রীএ কথাবলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রণে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যেমন কাজ করে যাচ্ছে, তেমনি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরকেও শক্তিশালী করা হচ্ছে ।

মন্ত্রী বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রণে আমরা জিরো টলারেন্সের কথা বলেছি। মাদক নিয়ন্ত্রণ সম্ভব না হলে বাংলাদেশ পথ হারিয়ে ফেলবে। এক্ষেত্রে আমরা কতোখানি সফল হয়েছি তারচেয়ে বড় কথা আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আশা করছি মাদকনিয়ন্ত্রণে আমরা সফল হবো।

Qএর আগে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান বলেন, দেশে মাদক তৈরি হয় না। তারপরেও মাদকের ভয়াল থাবা থেকে রেহাই পাইনি। মাদকের আগ্রাসন থেকে দেশকে বাঁচাতে সীমান্তবর্তী দেশগুলোর সঙ্গে কথা বলছি।ভারতকে সীমান্তবর্তী এলাকায় ফেনসিডিলের কারখানাগুলো বন্ধ করার অনুরোধ করেছি। তারাও আমাদের আহ্বানে সাড়া দিচ্ছেন। সার্বিক প্রচেষ্টায় এখন ফেনসিডিলের আগ্রাসন অনেক কমে এসেছে।

বর্তমানে ইয়াবার প্রাদুর্ভাব বেশি উল্লেখ করে মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, এ বিষয়ে আমরা মিয়ানমারের সঙ্গে কথা বলেছি। সীমান্ত এলাকায় ইয়াবা কারখানা বন্ধ করতে তারাও সাড়া দিয়েছে। দেশে ইয়াবার চালান রোধে আমরা সজাগ।

আসাদুজ্জামান খান  বলেন, বর্তমানে প্রায় ৭০ লাখ মাদকাসক্ত। তাদের সেবা দিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে নিয়ে আসা আমাদের দায়িত্ব। মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রের শয্যা সংখ্যা ক্রমান্বয়ে আরও বাড়ানো হবে।

প্রতিনিয়ত মাদকের চেহারা পাল্টে যাচ্ছে উল্লেখ করে আসাদুজ্জামান খান আরো বলেন, ফেনসিডিল, হেরোইন থেকে এখন ইয়াবার প্রাদুর্ভাব বেড়েছে। এ বিষয়ে জানতে আমাদের ট্রেনিং দরকার। তাৎক্ষণিকভাবে মাদক বুঝতে পারলে ব্যবস্থানেওয়া সহজ হবে। শহরের অভিজাত এলাকায় অনেকভাবেই মাদক সেবন হচ্ছে। এগুলো খোলামেলাভাবে আর বলতে চাচ্ছি না। আমরা জানার চেষ্টা করছি এবং আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।

মন্ত্রী বলেন, স্বীকার করতে দ্বিধা নেই, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ছিল আগে ঠুঁটো জগন্নাথ। তিন জেলার দায়িত্বে ছিলেন মাত্র একজন কর্মকর্তা। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রতি জেলাতেই মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের অফিস করা হচ্ছে।২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে পৌঁছাতে মাদক নিয়ন্ত্রণ করে তরুণ প্রজন্মকে রক্ষার বিকল্প নেই।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা ও সেবা বিভাগের সচিব ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক জামাল উদ্দীন আহমেদ প্রমুখ।

 

নিউজটি শেয়ার করুন:

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো: আবুল কালাম আজাদ, খোকন
প্রকাশক ও প্রধান সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
সম্পাদক : এডভোকেট মো: ফেরদৌস খান
বার্তা সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ
মফস্বল বিভাগ প্রধান: উত্তম কুমার হাওলাদার
Email: info@kuakatanews.com
যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
বিজ্ঞাপন এবং নিউজ : + ৮৮ ০১৭১৬ ৮৯২ ৯৭০।
News: editor.kuakatanews@gmail.com

© Copyright BY KuakataNews.Com

Design & Developed BY PopularITLimited